সর্বশেষ আপডেট : ৪ ঘন্টা আগে
শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

সরকারের মধ্যেই জঙ্গিদের সমর্থনকারী দেখছেন ইমরান!

নিউজ ডেস্ক :: সদ্য সমাপ্ত রাজধানীর গুলশানে জঙ্গী হামলার বিষয়ে মন্তব্য করতে গিয়ে সরকারের মধ্যেই জঙ্গিদের সমর্থনকারী দেখছেন গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ড. ইমরান এইচ সরকার। তিনি মন্তব্য করেন, ‘‘জঙ্গিবাদ দমনের আগে জঙ্গিবাদের প্রশ্রয়দাতাদের চিহ্নিত করাটাও জরুরী।

সরকারের ভেতরে, বাইরে কাদের বক্তব্যে জঙ্গীদের প্রতি প্রচ্ছন্ন সমর্থন ছিল, সেটা এখনই খুঁজে বের করতে ব্যর্থ হলে এই ভয়াবহ খাদ থেকে দেশ ও জাতিকে রক্ষা করা অসম্ভব হয়ে যাবেImran। শনিবার তার ভেরিফায়েড কৃত ফেইসবুক পেইজের এক স্ট্যাটাসে এ মন্তব্য করেন ড. ইমরান।

পাঠকদের সুবিধার্থে ইমরান এইচ সরকারের স্ট্যাটাসটি হুবহু তুলে ধরা হলো-

‘‘গতকালের হামলা ছিল মূলত সুইসাইডাল এটাক। নিশ্চিত মৃত্যু জেনেই জঙ্গিরা অপারেশনে অংশগ্রহণ করেছিল। তারা যাদেরকে হত্যা করতে চেয়েছে হামলার পরপরই তাদের হত্যা করেছিল এবং হত্যাকাণ্ডের ছবি গতকালই অনলাইনে প্রকাশ করেছে; যাদের বেশিরভাগই বিদেশী। তারা লাশের সংখ্যাটা যে ২০, সেটাও গতকালই প্রকাশ করেছে। আর যাদের জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে তাদের ১০ জন বাংলাদেশী, ৩ জন বিদেশী, যাদেরকে তারা হত্যা করেনি।

আমি জানিনা এই ঘটনায় আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর সফলতা-ব্যর্থতা কতটুকু। তবে গোয়েন্দা ব্যর্থতা যে ছিল তা অস্বীকারের উপায় নেই।

গতকাল ঘটনার পরপরই পুলিশ যে সাহসিকতার পরিচয় দিয়েছেন তা অনন্য। দুজন দেশপ্রেমিক পুলিশ অফিসারের প্রাণের বিনিময়ে সম্ভবত খুনীদের একাধিক হামলার সম্ভাবনা নস্যাৎ হয়েছে।

আত্মতুষ্টিতে না ভুগে আমাদের জাতীয় নিরাপত্তা নিয়ে গভীরভাবে ভাবাটা খুব অত্যাবশ্যকীয় হয়ে গেছে। অতীতের কোন ভুলগুলো আমাদের আজ এই পর্যায়ে নিয়ে এলো এটা নিয়েও গভীরভাবে ভাবা দরকার।

জঙ্গিবাদ দমনের আগে জঙ্গিবাদের প্রশ্রয়দাতাদের চিহ্নিত করাটাও জরুরী। সরকারের ভেতরে, বাইরে কাদের বক্তব্যে জঙ্গীদের প্রতি প্রচ্ছন্ন সমর্থন ছিল, সেটা এখনই খুঁজে বের করতে ব্যর্থ হলে এই ভয়াবহ খাদ থেকে দেশ ও জাতীকে রক্ষা করা অসম্ভব হয়ে যাবে।

তাই এখনই সময় সবকিছু ভুলে, সকল মত-পার্থক্য ভুলে গিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে এই জাতীয় সংকট মোকাবেলা করা। আসুন, হাতে হাত রেখে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে ছাপ্পান্ন হাজার বর্গমাইলের প্রতি ইঞ্চি মাটিকে রক্ষা করি, ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য নিরাপদ বাংলাদেশ গড়ি।”

উল্লেখ, শুক্রবার রাতে হলি আর্টিজেন বেকারিতে অস্ত্র ও বিস্ফোরক নিয়ে একদল যুবক ঢুকে বিদেশিসহ বেশ কয়েকজনকে জিম্মি করে। সকালে কমান্ডো অভিযান চালায় নিরাপত্তা বাহিনী।

প্যারা কমান্ডোরা ৭টা ৪০ মিনিটে অপারেশন শুরু হয়, ১২ থেকে ১৩ মিনিটের মধ্যে সকল অপরাধীকে নির্মূল করে সকাল সাড়ে ৮টায় অভিযানের সফল সমাপ্তি করে। অভিযানে ৬ জঙ্গী নিহত হয়, ১ জনকে জীবিত আটক করা হয়। এরপর তল্লাশি চালিয়ে ২০টি মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়।

-বিডি২৪লাইভ

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: