সর্বশেষ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে
রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

গাড়ি চালক রানার বর্ণনায় গুলশানের রেস্টুরেন্টে হামলার ঘটনা

BNডেইলি সিলেট ডটকম :: স্প্যানিশ রেস্টুরেন্টের সামনে গাড়ি পার্কিং করে অন্যান্যদের সঙ্গে কথা বলছিলেন গাড়ি চালক আবদুর রাজ্জাক রানা। কিছু বুঝে উঠার আগেই মুহুর্মুহু গুলির শব্দ। আশপাশের লোকজন সবাই যে যার মতো নিরাপদ স্থানে আশ্রয় নিলেও সড়কে পড়ে যান রানা।

তার আগেই গলায় একটি গুলিবিদ্ধ হয়। আর একটি গুলিবিদ্ধ হয় হাতে। গুলি ও বিস্ফোরণের প্রচন্ড শব্দ হচ্ছিলো তখন। সেইসঙ্গে ‘আল্লাহু আকবর’ বলে চিৎকার শোনা যাচ্ছিলো।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তির পর এসব তথ্য জানান গুলিবিদ্ধ আবদুর রাজ্জাক রানা। গতকাল রাত সোয়া ১০টায় রানাকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পেশায় গাড়ি চালক রানা জানান, তিনি যাত্রী নিয়ে ওই রেস্টুরেন্টে যান। তার গাড়িতে চারজন জাপানী নাগরিক ছিলেন।

পানী নাগরিকরা রেস্টুরেন্টের ভেতরে যাওয়ার পর তিনি বাইরে অপেক্ষা করছিলেন তাদের নিয়ে আবার ফিরে যাবেন বলে। কিন্তু তারা ভিতরে ঢুকার কিছুক্ষণের মধ্যেই হামলার ঘটনা ঘটে। রানা ও আশপাশের লোকজনের চিৎকার ও গুলির শব্দ শুনে পুলিশ সদস্যরা এগিয়ে যান।

এসময় পুলিশ কনস্টেবল আলমগীর ও প্রদীপ গুলিবিদ্ধ হন। আলমগীরের বাম পায়ের হাঁটুর নিচে ও প্রদীপের ডান পায়ের গোড়ালি ও গালে গুলিবিদ্ধ হয়। এই দুই পুলিশ সদস্যকেও ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গুলিবিদ্ধ রাজ্জাক রানা ঠাকুরগাঁও জেলা সদরের বেলাজান ভাসাঘারার। অন্যদিকে দুই পুলিশ সদস্য রিজার্ভ পুলিশে কর্মরত ছিলেন।

গুলিবিদ্ধদের দেখতে গতকাল রাতে ঢামেকে যান স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক দীন মোহাম্মদ। এসময় তিনি সাংবাদিকদের জানান, গুলিবিদ্ধদের অবস্থা আশঙ্কামুক্ত।

সূত্র : মানবজমিন

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: