সর্বশেষ আপডেট : ৭ মিনিট ১৬ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

গুলশানে রেস্টুরেন্টটি ঘিরে রেখেছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা

2016_07_01_23_47_44_wTqFYNEt3WKeRCrZCh4KX4e7f8G9dQ_originalনিউজ ডেস্ক :: গুলশানে হলি আর্টিজান বেকারিতে জিম্মি হয়ে পড়াদের মধ্যে আনুমানিক ২০ জন বিদেশি নাগরিক রয়েছেন বলে জানিয়েছেন বেকারির সুপারভাইজার সুমন রেজা। বেকারির সুপারভাইজার সুমন রেজা বলেন, রাত পৌনে নয়টার দিকে আট থেকে ১০ জন যুবক অতর্কিতে আর্টিজানে ঢুকে পড়ে। তাদের একজনের হাতে ছিল তলোয়ার, বাকিদের কাছে আগ্নেয়াস্ত্র। ঢুকেই তারা ফাঁকা গুলি ছোঁড়া শুরু করে এবং আল্লাহু আকবর বলে চিৎকার করে। তখন ভেতরে ২০ জনের মতো বিদেশি নাগরিক ছিলেন। এসময় গুলিতে বেশ কয়েকজন পুলিশ সদ্যস্য আহত হয়েছেন। হতাহতদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতেলে নেয়া হয়েছ।

এদিকে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত এখনও জিম্মিদের কাউকে উদ্ধার করা যায়নি। র‍্যাবের মাহাপরিচালক বেনজির আহমেদ ঘটনাস্থলে উপস্থিত আছেন। র‍্যাবের মহাপরিচালক জানান, শান্তিপূর্ণভাবে গোটা বিষয়টি সমাপ্ত করতে চান তারা। কোন ধরণের বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হোক এমনটি তারা চাননা। তবে জিম্মিদের উদ্ধারে যে কোনো সময় অপারেশন শুরু হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ঘটনাস্থলে ইতোমধ্যে র‍্যাব, বিজিবি সহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিপুল সংখ্যক সদস্য সতর্ক অবস্থায় পুরো হোটেলটি ঘিরে রেখেছেন। আকাশে র‍্যাবের হেলিকপ্টার চক্কর দিচ্ছে। গোটা এলাকজুড়ে নিরাপত্তা বলয় গড়ে তোলা হয়েছে। র‍্যাবের একটি সুজজ্জিত দল বর্তমানে অভিযান পরিচালনা করার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছন। রেস্তোরাটির আশেপাশের সব সড়ক ব্যারিকেট দিয়ে যান চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। তবে জিম্মিদের উদ্ধারে কি ধরণের অভিযান চালানো হবে এ সম্পর্কে এখনও কিছুই জানায়নি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদ্যরা।

রেস্তোরাটির আশেপাশে প্রচুর আবাসিক বাড়িঘর রয়েছে। ফলে অভিযানে সাধারন মানুষের নিরাপত্তার বিষয়টিও বিবেচনায় রাখা হয়েছে বলে জানা গেছে।

বেকারির সুপারভাইজার সুমন রেজা বলেন, তিনি নিজে ও আর্টিজানের আরেকজন কর্মী (ইতালির নাগরিক) দোতলার ছাদ থেকে লাফিয়ে বাইরে আসতে সক্ষম হন।

সুমন বলেন, ‘আমি ছাদে ছিলাম। ওরা যখন বোমা মারছিল, তখন বিল্ডিং কাঁপতে থাকে। ওরা ১০-১২টা বোমা মারছে। মারতেই আছে, মারতেই আছে। ওরা সামনের দিকে স্টেপ নিচ্ছিল মনে হচ্ছিল। তখন ছাদ থেকে লাফ দেই।’

সুমন রেজা বলেন, ‘ভেতরে থাকা আমাদের কর্মীরা ফোন ধরছে না। আমাদের স্টাফদের মধ্যেও দুজন বিদেশি। আর্জেন্টাইন কর্মীর কোনো খোঁজ নেই।’

সর্বশেষ রাত ১০টা ৩৫ মিনিটে ভেতর থেকে অস্ত্রধারীরা পরপর দুটি বোমার বিস্ফোরণ ঘটায় এবং বেশ কয়েকটি গুলি ছোড়ে। এ সময় চারদিকে ঘিরে থাকা র‍্যাব-পুলিশসহ আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা দৌড়ে নিরাপদ দূরত্বে সরে যায়।

একজন প্রত্যক্ষদর্শী জানান, বেকারির সামনে আহত অবস্থায় পুলিশের পোশাকধারী কয়েকজনকে পড়ে থাকতে দেখা গেছে। পৌনে ১১টায় আবার গুলির শব্দ পাওয়া যায়। তার কিছুক্ষণ আগে বনানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সালাহউদ্দিনসহ আহত কয়েকজন পুলিশ সদস্যকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: