সর্বশেষ আপডেট : ৭ মিনিট ৪৩ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ২ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

৯৬ বছরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

21065_duনিউজ ডেস্ক : সৌরভে গৌরবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার ৯৬ বছরে পা রাখবে আজ। ১৯২১ সালের এই দিন বিশ্ববিদ্যালয়টির যাত্রা শুরু হয়েছিল। প্রতিষ্ঠার পর থেকে এই বিশ্ববিদ্যালয় এই অঞ্চলের মানুষের আশা-আকাক্সক্ষার প্রতীকে পরিণত হয়েছে। বৃটিশবিরোধী আন্দোলন থেকে শুরু করে দেশভাগ, ’৫২-র ভাষা আন্দোলন, ’৬২-র শিক্ষা আন্দোলন, ’৬৬-র ছয় দফা, ’৬৯-র গণঅভ্যুত্থান, ’৭১-র মুক্তিযুদ্ধ, ’৯০-র স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনসহ সর্বশেষ ২০০৭ সালের ১/১১ এর সেনাবাহিনী সমর্থিত সরকার হটাতে সামনে থেকে নেতৃত্ব দেয় এই বিশ্ববিদ্যালয়। দেশ যখন ক্রান্তিকালে পতিত হয় সেখান থেকে উত্তরণে প্রতিবারেই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে দেশসেরা এই বিদ্যাপীঠ। সময়ের সবচেয়ে আলোচিত বিষয় সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ। তাই বিশ্ববিদ্যালয় দিবসে এই বছরের প্রতিপাদ্যও ঠিক করা হয়েছে- ‘সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ ও মানবিক চেতনা বিকাশে উচ্চশিক্ষা’। দিবসটিকে কেন্দ্র করে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভবনগুলো রঙিন বাতি দিয়ে সাজানো হয়েছে। পুরাতন ভবনগুলোতে চিক চিক করছে নতুন রঙ। দেখে মনে হচ্ছে উৎসবের সাড়া পড়েছে।
এদিকে বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উপলক্ষে কর্তৃপক্ষ আজ দিনব্যাপী কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। সকাল সোয়া ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবন সংলগ্ন মলে জাতীয় পতাকা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও হলসমূহের পতাকা উত্তোলন, পায়রা উড়ানো এবং উদ্বোধনী সংগীতের মধ্য দিয়ে দিবসটির কর্মসূচি শুরু হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক দিনব্যাপী কর্মসূচির উদ্বোধন করবেন। এর আগে সকাল ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বিভিন্ন হল থেকে শোভাযাত্রাসহ প্রশাসনিক ভবন সংলগ্ন মলে জমায়েত হবেন। সেখান থেকে একটি শোভাযাত্রা বের করা হবে। শোভাযাত্রাটি টিএসসিতে গিয়ে শেষ হবে।
সকাল ১১টায় টিএসসি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হবে আলোচনা সভা। আলোচনা সভায় ‘সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ ও মানবিক চেতনা বিকাশে উচ্চশিক্ষা’ শীর্ষক প্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সিনেট সদস্য রামেন্দু মজুমদার। ভিসি অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিকের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও উপস্থিত থাকবেন প্রো-ভিসি (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. নাসরীন আহমাদ ও প্রো-ভিসি (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান। শুভেচ্ছা বক্তব্য প্রদান করবেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন ভিসি, প্রাক্তন প্রো-ভিসি, প্রফেসর ইমেরিটাসবৃন্দ, শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারী সমিতির প্রতিনিধিবৃন্দ। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার সৈয়দ রেজাউর রহমান সভা পরিচালনা করবেন।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক এক শুভেচ্ছা বাণী প্রদান করেছেন। বাণীতে তিনি বলেন, এক শতকের অনন্য এক মাইলফলক ছোঁয়ার অভিযাত্রায় ৯৬ বছরে পা রাখলো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক প্রেক্ষাপটে এর গুরুত্ব অপরিসীম। কুসংস্কার থেকে জাতিকে মুক্ত করা, দেশের নাগরিকদের আধুনিক জীবনাদর্শে উজ্জীবিত করা, তাঁদেরকে বিজ্ঞানমনস্ক ও প্রগতিবান্ধব করে তোলার ক্ষেত্রে এ বিশ্ববিদ্যালয় সবসময় পথিকৃতের ভূমিকা পালন করেছে। আমাদের সকল আন্দোলন ও সংগ্রামের সূতিকাগারও এ বিশ্ববিদ্যালয়। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় প্রদীপ্ত বাংলাদেশের সকল শ্রেষ্ঠ অর্জনের সঙ্গে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্পর্ক অতি সুগভীর।
তিনি আরও বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের বাংলাদেশ একবিংশ শতকের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে রূপকল্প ২০২১ ও ২০৪১ বিনির্মাণের পথে বিষকাঁটাস্বরূপ লুকিয়ে থাকা সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের শেকড় উপড়ে ফেলে মানবিক চেতনার অনন্য এক বাংলাদেশ গড়াই এখন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যতম প্রধান লক্ষ্য। তাই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় দিবসের এবারের প্রতিপাদ্য ‘সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ ও মানবিক চেতনা বিকাশে উচ্চশিক্ষা।’ মেধাবী প্রজন্ম তাদের মেধা, সৃষ্টিশীলতা আর মানবিক-নৈতিক মূল্যবোধ ও চেতনায় ভবিষ্যৎ বাংলাদেশকে আরো উর্বর ও ঐশ্বর্যান্বিত করে তুলবে বলে আমার বিশ্বাস। ভিসি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় দিবস ২০১৬ উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের সকলকে ও দেশবাসীকে জানিয়েছেন আন্তরিক অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা। একইসঙ্গে এ উপলক্ষে আয়োজিত দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালায় সকলকে সাদরে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন।
দিবসটি উপলক্ষে অন্যান্য কর্মসূচির মধ্যে সকাল ১০টা থেকে ১টা পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গ্রন্থাগার আয়োজিত দুর্লভ পান্ডুলিপি প্রদর্শন এবং সকাল ১০টা থেকে বিকাল সাড়ে ৩টা পর্যন্ত কার্জন হলে বায়োমেডিকেল ফিজিক্স এন্ড টেকনোলজি বিভাগের উদ্ভাবিত চিকিৎসা প্রযুক্তির যন্ত্রপাতি/গবেষণার প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হবে। এদিকে, দিবস উপলক্ষে চারুকলা অনুষদের আয়োজনে চিত্রকলা প্রদর্শনী চলছে। এ ছাড়া, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল অনুষদ, বিভাগ, ইনস্টিটিউট ও হল দিনব্যাপী নিজস্ব কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উপলক্ষে হল, বিভাগ ও অন্যান্য অফিস দুপুর ১২টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। এদিকে রমজান ও ঈদুল ফিতরের কারণে ক্যাম্পাস বন্ধ থাকায় শিক্ষার্থীর সংখ্যা অনেক কম। অধিকাংশ শিক্ষার্থীই মা-বাবার সঙ্গে ঈদ উদযাপন করতে বাড়ি চলে গেছে।
ঢাকা ইউনিভার্সিটি অ্যালামনাই এসোসিয়েশনের র‌্যালি: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৯৫তম প্রতিষ্ঠাবর্ষিকী উদযাপনে ঢাকা ইউনিভার্সিটি অ্যালামনাই এসোসিয়েশন আজ সকাল ৯টায় অ্যালামনাই ফ্লোরের সামনে থেকে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালির আয়োজন করেছে। এতে সংগঠনের সভাপতি একে আজাদ, মহাসচিব রঞ্জন কর্মকারসহ অ্যালামনাইরা উপস্থিত থাকবেন। এ ছাড়া সংগঠনটি গতকাল থেকে তিনদিনব্যাপী ১০০ দুর্লভ আলোকচিত্র প্রদর্শনীও শুরু করেছে। সূত্র-মানবজমিন

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: