সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
বুধবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ফেসবুক কাঁপাচ্ছেন ‘হিরো আলম’

full_1484399345_1467100278বিনোদন ডেস্ক: অন্যরকম ভিডিওর কারনে যোগাযোগ মাধ্যমে খুব তারাতারি আলোচনায় চলে আসেন আশরাফুল আলম ওরফে হিরো আলম। ফেসবুকে সবাই শেয়ার দিচ্ছে তার ভিডিও। তাকে নিয়ে আলোচনা-সমালোচনায় ভরে উঠছে ফেসবুক।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গত দুই-তিন দিনের সবচেয়ে চর্চিত বিষয়গুলোর একটি হিরো আলম। ফেসবুক, ইউটিউবসহ বিভিন্ন মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া তার ভিডিও ও ছবিতে মেতেছে সোশ্যাল মিডিয়া। এতে করে অনেকের জানতে আগ্রহ জন্মাচ্ছে কে এই হিরো আলম?

হিরো আলমের প্রকৃত নাম আশরাফুল আলম। তার বাড়ি বগুড়ার এরুলিয়া ইউনিয়নের এরুলিয়া গ্রামে। এক সময় সিডি বিক্রি করতেন। এখন নিজ গ্রামেই তার আছে ক্যাবল নেটওয়ার্ক ব্যবসা।

জানা গেছে, ছোটবেলা থেকেই অভাব-অনটনের সাথে চলা আলমের পরিবার তাকে আরেক পরিবারের হাতে তুলে দেয়। আলম চলে আসেন একই গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের বাসায়। আব্দুর রাজ্জাক তাকে ছেলের মতো করেই বড় করে তোলেন। স্নেহ করতেন। কিন্তু গ্রামে অভাব তো প্রায় মানুষের আছে। আলমের পালক পিতা আব্দুর রাজ্জাকের সংসারও অভাবের ছোঁয়া পায়। স্থানীয় স্কুলে সপ্তম শ্রেণি পর্যন্ত পড়ে আলমকে নেমে পড়তে হলো জীবিকা নির্বাহের তাগিদে। সিডি বিক্রি থেকে আলম ডিশ ব্যবসায় হাত দিয়ে সফলতা অর্জন করেন। বর্তমানে স্ত্রী ও দুই সন্তান নিয়ে সুখেই আছেন আলম।

কিন্তু আশরাফুল আলম কিভাবে হিরো আলম হলেন। সিডির ব্যবসা করার সময় ক্যাসেটে দেখতেন মডেলদের ছবি। সেই থেকেই তার মাথায় ঢোকে মডেল হওয়ার স্বপ্ন। চিন্তা অনুযায়ী ২০০৮ সালেই করে ফেলেন একটা গানের সাথে মডেলিং। এরপর অবশ্য সেসব মাথা থেকে ঝেড়ে ফেলে সংসারে মনোযোগী হন। ২০০৯ সালে বিয়ে করেন পাশের গ্রামের সুমী নামের এক তরুণীকে। তাদের সংসারে আসে নতুন দুই অতিথি। এখন সংসার আর ব্যবসা নিয়েই ব্যস্ত আলম। পাশাপাশি নিজে কিছু মিউজিক ভিডিও করেন। সেগুলো নিজের ক্যাবল চ্যানেলেই প্রচার করেন তিনি। এসব ভিডিও দেখে গ্রামের মানুষদের কেউ কেউ তাকে নিরুৎসাহিত করেন আবারও কেউ কেউ তাকে বাহবা দেন। তবে যারা বাজে বলেন, তাদের কথায় কান দেন না হিরো আলম।

মডেলিং সম্পর্কে আলম বলেন, ”আমার ভিডিওগুলো ফেসবুক, ইউটিউবে ছড়িয়ে যাওয়ায় এখন অনেকেই আমার সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করছে। ইতিমধ্যে দুটি মিউজিক ভিডিও করার জন্য রাজি হয়েছি।”

কার সাথে, কিসের মিউজিক ভিডিও এমন প্রশ্নের জবাবে আলম জানান, ‘কুসুম কুসুম প্রেম’ ছবির সজলের সাথে কাজ করার কথা। ”সজল ভাই আমাদের বগুড়ার ছেলে।

শুধু ডিশ ব্যবসা বা মডেলিং নয়, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনেও প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন আলম। তবে দু’বারই অল্পের জন্য নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি হতে পারেননি। তার ইচ্ছা, আরও একবার তিনি নির্বাচনে দাঁড়াবেন।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: