সর্বশেষ আপডেট : ৩৪ মিনিট ২৪ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ইবরার টিপুর বিরুদ্ধে স্ত্রী মিথিলার পরকীয়া নির্যাতনের অভিযোগ

20250_e1বিনোদন ডেস্ক::
সংগীত পরিচালক ও শিল্পী ইবরার টিপুর বিরুদ্ধে তার স্ত্রী অভিনেত্রী-উপস্থাপিকা মিথিলা ফারজানা ববি পরকীয়া ও নির্যাতনের অভিযোগ এনেছেন। এমন অভিযোগ করেই গতকাল সকালে রমনা থানায় জিডি করেন তিনি। জিডি নং-১৯১১। জিডি করার পর সঙ্গে আলাপকালে খুব শিগগিরই ইবরার টিপুকে ডিভোর্স দেয়ার কথাও জানান তিনি। মিথিলার ভাষায়, দীর্ঘদিন ধরেই তাকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করে আসছিলেন টিপু। অনেকটাই বেপরোয়া হয়ে উঠেছিলেন তিনি। পুত্র ওহী ইবরারের কথা মাথায় রেখে শুরুর দিকে এ বিষয়টি মুখ বুজে সহ্য করে গেছেন মিথিলা।

কিন্তু সময় বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ইবরার টিপু বিভিন্ন নারী কণ্ঠশিল্পীসহ অনেকের সঙ্গে পরকীয়ায় গভীরভাবে জড়িয়ে পড়েন বলে জানান তিনি। অতি সম্প্রতি বিন্দু কনা নামের এক গায়িকার সঙ্গে তার সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এই নিয়ে মিথিলার সঙ্গে ইবরার টিপুর বেশ কয়েকবার তর্ক-বিতর্ক ও ঝগড়াও হয়েছে। পরকীয়ার বাইরেও বিভিন্ন সময় মিথিলাকে শারীরিক নির্যাতনও করেছেন ইবরার টিপু। আর মানসিক নির্যাতন তো রয়েছেই। জিডিতে পুরো বিষয়টিই তুলে ধরেছেন মিথিলা। এদিকে এর আগেও দু-একজন জনপ্রিয় নারী শিল্পী ইবরার টিপুর আচরণের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন সংগীত সংশ্লিষ্ট অনেকের কাছে।

এ বিষয়ে মিথিলা বলেন, বিয়ের পর থেকেই তার পরকীয়া আমি একের পর এক দেখেছি। কিন্তু এখন আমার ছেলে ওহীর বয়স ৮। ওর জন্য সব সহ্য করে গেছি। ভেবেছি ছেলের মধ্যে এর প্রভাব পড়বে। কিন্তু ইবরার থামেনি। একের পর এক মেয়ের সঙ্গে ওর সম্পর্ক চলেছে। এখনও চলছে। এসবে বাধা দিতে গেলে ও আমাকে ডিভোর্সের হুমকি দেয়। মানসিক ও শারীরিক নির্যাতন করে। গতকাল সকালেই আমি জিডি করেছি ইবরারের বিরুদ্ধে। সেখানে সবকিছু উল্লেখ করেছি। সম্প্রতি বিন্দু কনা নামের এক শিল্পীর সঙ্গে ওর সম্পর্ক গড়ে উঠেছে। সেটায় বাধা দিতে গেলে যাচ্ছেতাই ব্যবহার সে করছে। আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি ডিভোর্সের। খুব শিগগিরই আনুষ্ঠানিকভাবে ইবরারকে ডিভোর্স দেবো। কারণ এভাবে আর সব সহ্য করে থাকা যায় না।

এ বিষয়ে মিথিলা আরো বলেন, গত ১২ বছরে আমি তাকে সব বিষয়ে সহযোগিতা করেছি। আগে সে শুধু বাজাতো। আমি তাকে বলে গান গাওয়ানো শুরু করি। কিন্তু এত বছরের ফলাফল শূন্য। সবার সামনে সে আমার সঙ্গে খুব ভালো ব্যবহার করে। মুখোশ পরে থাকে। কিন্তু আমি চাই সে মুখোশ উন্মোচিত হোক। আর কোনো মেয়ের জীবন যেন নষ্ট না হয় সেটাই চাই। যেকোনো মেয়ে দেখলেই সে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে। কোনো কিছুর কেয়ার করে না।

এর আগেও কয়েকজন নারী শিল্পীর সঙ্গে খারাপ আচরণ করেছে সে। সেটা সংগীতসংশ্লিষ্ট অনেকেই জানেন। মুখ বুজে এতদিন সব মেনে নিলেও আমি আর সইতে পারছি না। সে এখন নিয়ন্ত্রণহীন গাড়ির মতো। তাকে কোনোভাবেই আটকানো সম্ভব না। আর তার কাছে আমার ও ওহীর কোন নিরাপত্তাও নেই। এভাবে তার সঙ্গে থাকতে গেলে দেখা যাবে বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটে গেছে। তাই জিডি করে রাখলাম। আমি খুব শিগগিরই তাকে ডিভোর্স দেবো। এদিকে এ বিষয়ে মন্তব্য জানতে ইবরার টিপুর মোবাইল নাম্বারে ফোন করা হলে তিনি বিস্ময় প্রকাশ করে কিছুই জানেন না বলে জানান।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: