সর্বশেষ আপডেট : ৮ মিনিট ১ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

রাতের ঘটনা বলতেই মুখ খুললেন এসপি’র শ্বশুর

1466852140নিউজ ডেস্ক : স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১৫ মিনিটের কথা বলে পুলিশ সুপার (এসপি) বাবুল আক্তারকে তার শ্বশুর মোশাররফ হোসেনের বনশ্রীর বাসা থেকে নিয়ে যায় পুলিশ।

পুরো বিষয়টি নিয়ে তিনি সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন। সাবেক এই পুলিশ কর্মকর্তা মোশাররফ হোসেন বলেন, আইজিপি স্যারের কথা বলে তাকে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ঘটনার বর্ণনা দিয়ে তিনি বলেন, ‘রাত আনুমানিক ১টা ৫ মিনিট হবে। বাবুল আক্তার কেবল বাসায় এসেছে, এর মধ্যে খিলগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মঈনুল হোসেন বাসায় আসেন। তার পেছনে পেছনে মতিঝিল বিভাগের উপ-কমিশনার আনোয়ার হোসেন প্রবেশ করেন। তারা বলল- আইজিপি স্যার যেতে বলছে। আমি জিজ্ঞাস করলাম কোথায়? তারা উত্তরে বলল- স্যারের বাসায়। ১৫ মিনিটের জন্য যাচ্ছে, একটু পরই আবার চলে আসবে। এরপর তারা চলে যায়।’

মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘শুক্রবার সন্ধ্যায় অফিসার মেসে ২৪তম বিসিএস পুলিশ কর্মকর্তারা আমার মেয়েকে নিয়ে শোকসভা ও ইফতার পার্টির আয়োজন করে। সেখানে ছিল বাবুল আক্তার। সেখান থেকে রাত ১০টার দিকে রমনা কমপ্লেক্স আসেন। তার দুই সন্তান তার সঙ্গেই ছিল। আইজিপির সঙ্গে দেখা করবে বলে রমনা কমপ্লেক্সের একটি পরিচিত বাসায় তাদের রেখে দেখা করতে যায়। এরপর আনুমানিক রাত সাড়ে ১২টার দিকে তিনি সেখান থেকে বাচ্চাদের নিয়ে বাসায় আসেন। এর কিছুক্ষণ পরই খিলগাঁও থানার ওসি আসেন।’

ওসি এসে কী বলল? এর জবাবে তিনি বলেন, ‘আমি ধারণা করছি, তাকে অনুসরণ করতে করতেই ওসি এসেছেন। তা না হলে সে বাসায় প্রবেশের সঙ্গে সঙ্গে তিনি কিভাবে বাসায় আসলেন? ওসির পেছনেই আবার মতিঝিলের ডিসি আসেন। তিনি একটু পর আসেন। ওসি প্রথমে বাবুলের সঙ্গে কথা বলেন। এরপর মতিঝিলের ডিসি কথা বলেন।’

তাদের সঙ্গে কী কথা হয়? এমন প্রশ্নের জবাবে মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘বাসায় খুবই অল্প সময় ছিল। আসলো আর নিয়ে গেলো। আইজিপির কথাটাই বলল তারা।’

এর আগে কখনও এভাবে নিয়েছে কিনা এর উত্তরে তিনি বলেন, ‘এর আগে পরশুদিন ইফতারের আগে আইজিপি স্যারের বাসায় ইফতারের দাওয়াত ছিল বলে ডেকে নিয়েছিল পুলিশ। আবার ফিরেও আসে। তবে এবার ১৫ মিনিটের কথা বলে নিয়ে যাওয়া হয়। অনেক সময় হলেও আর ফিরে আসেনি। এতেই আমাদের সন্দেহ হয়। যারা নিয়েছিল তারা কেউ ফোনও ধরছে না। আমরা জানি না কোথায় আছে।’

শনিবার সকালে বাবুল আক্তারকে জিজ্ঞাসাবাদের কথা জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

তিনি জানান, মিতু হত্যা মামলায় তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তবে হঠাৎ এভাবে গভীর রাতে ডেকে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের কারণ তিনি জানাননি।

পুলিশ সদর দফতরের একটি সূত্র জানিয়েছে, বাবুল আক্তারকে রাতে পুলিশ সদর দফতরে রাখা হয়েছিল। সেখানে রাতভর পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। সেখানে কয়েকজন সন্দেহভাজন আসামির সঙ্গে তাকে মুখোমুখি করা হয়।

শনিবার সকালে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও আইজিপি এ বিষয়টি নিয়ে বৈঠক করেন। বৈঠকে চট্টগ্রাম পুলিশের কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: