সর্বশেষ আপডেট : ২৫ মিনিট ৪৭ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ২৫ জুলাই, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ১০ শ্রাবণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

১৫৯০০ টাকার লেহেঙ্গা ৩৫৫০০ টাকায় বিক্রি

full_1875589915_1466399023ডেইলি সিলেট ডেস্ক: ঈদে কাপড়ের বাজার স্থিতিশীল রাখতে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালতের চলমান অভিযানে নগরীর টেরীবাজার ও মিমি সুপার মার্কেটের দুই কাপড়ের দোকানকে দুই লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

প্রতিষ্ঠান দুটি হলো : মিমি সুপার মার্কের্টের ‘আকর্ষণ’ ও টেরীবাজারের ‘স্টার প্লাস’। রোববার সকালে অভিযানে নেতৃত্ব দেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাহমিলুর রহমান, অনুপমা দাস ও ইশ্‌তিয়াক আহ্‌মেদ।

এ সময় তাদের সহায়তা দেন ক্যাবের সদরঘাট থানা শাখার সভাপতি জান্নাতুল ফেরদৌস ও তৌহিদুল ইসলাম এবং চট্টগ্রাম চেম্বারের প্রতিনিধি মো. মোকাম্মেল হক খান। পুলিশ ও আনসারের সদস্যরা আইনশৃঙ্খলা রক্ষার দায়িত্ব পালন করেন।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাহমিলুর রহমান বলেন, গত বুধবার হতে শুরু হওয়া এ অভিযানের প্রথম দিকে সবাইকে সতর্ক করা হয়। সে সময় মিমি সুপার মার্কেটের ইয়ং লেডি ও টেরীবাজারের স্টার প্লাসে অতি মুনাফা ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দেখাতে ব্যর্থতার প্রমাণ পাওয়ার গেলেও তাদের পরবর্তীতে এরকম না করার শর্তে শুধুমাত্র সতর্ক করে ছেড়ে দেয়া হয়।

রোববারের অভিযানের সময় টেরীবাজারের ওই দোকানটিতে (স্টার প্লাস) আবারও অতি মুনাফা অর্জনেরও প্রমাণ পাওয়া যায়। তাদের ৫৩৭০ টাকা ক্রয়মূল্যের লেহেঙ্গা ১১৮৬০ টাকায় বিক্রি করতে দেখা যায়, যা ক্রয়মূল্য থেকে ৬৪৯০ টাকা বেশি। ভ্রাম্যমাণ আদালত প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দেখাতে ব্যর্থতা ও অতি মুনাফা অর্জনের প্রেক্ষিতে ১ লাখ টাকা জরিমানা করা হয় এই দোকানকে।

পরবর্তীতে মিমি সুপার মার্কেটে গেলে ইয়ং লেডিসহ অনেক দোকান প্রয়োজনীয় কাগজপত্র প্রদর্শন করে। তবে কাপড়ের দোকান আকর্ষণ-এ গিয়ে বিপুল মুনাফায় কাপড় বিক্রি করতে দেখা যায়। এ সময় দোকানটিকে ১৫৯০০ টাকা ক্রয়মূল্যের লেহেঙ্গা ৩৫৫০০ টাকায় বিক্রি করতে দেখা যায়, যা ক্রয়মূল্য থেকে ১৯৬০০ টাকা বেশি।

এ দোকানের অধিকাংশ পণ্যেরই উচ্চমূল্য লক্ষ করা যায়। ভ্রাম্যমাণ আদালত প্রয়োজনীয় কাগজপত্র প্রদর্শনের ব্যর্থতা ও অতি মুনাফা অর্জনের প্রেক্ষিতে রেডিমেড কাপড়ের এই দোকানটিকে ১ লাখ টাকা জরিমানা করেন।

ফইল্লাতলি বাজারে মূল্যতালিকা প্রদর্শন না করায় একটি দোকানকে ৫০০০ টাকা জরিমানা করা হয়। আদালত পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাব্বির রাহমান সানি।

স্টিল মিল বাজারে মুন বেকারিতে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্য প্রস্তুত ও পোড়া তেলে ইফতার তৈরি করায় ৩০ হাজার টাকা ও দুই দোকানে অতিরিক্ত মূল্যে পণ্য বিক্রি করায় ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফোরকান এলাহী অনুপম।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: