সর্বশেষ আপডেট : ৪ ঘন্টা আগে
মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বিয়ানীবাজারে ক্যারম খেলা নিয়ে রাতভর সংঘর্ষ, পুলিশসহ আহত ৪৮

download (2)বিয়ারীবাজার সংবাদদাতা::বিয়ানীবাজার উপজেলার মোল্লাপুর ইউনিয়নে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে গত শনিবার রাত ভর সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র দুই গ্রামবাসীর মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষ, ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া, গুলিবর্ষণ, ইটপাটকেল নিক্ষেপে পুলিশসহ কমপক্ষে ৪৮ জন আহত হয়েছেন। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে ৩০ রাউন্ড শটগানের ফাকা গুলি ছুড়ে। বর্তমান পরিস্থিতি থমথমে রয়েছে। ফের সংঘর্ষের আশঙ্কায় ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

সংঘর্ষের ঘটনায় আতহদের বিয়ানীবাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, সিলেট ওসমানি মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও বড়লেখা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন কাচাটুল গ্রামের রিনা মিয়ার পুত্র শরিফের অবস্থা আশংকাজনক বলে জানাযায়।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, পাতন গ্রামের নুর উদ্দিন কটই মিয়ার পুত্র মুর্শেদের সাথে ক্যারামবোর্ড খেলা নিয়ে কথা কাটাকাটি হয় কাচাটুল এলাকার রিনা মিয়ার পুত্র মারুফের। মারুফের বড়ভাই শরিফ আহমদ ঘটনাস্থল লামাপাতন এলাকায় দিয়ে রাত ১১টার দিকে যাওয়ার পথে জাহেদ ও মুর্দেশের হামলার শিকার হন। ধারালো অস্ত্রের আঘাতে আহত শরিফকে রক্তাক্ত অবস্থায় স্থানীয়রা উদ্ধার করে বিয়ানীবাজার উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। তার অবস্থার অবনতি হলে রাতে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।
শরিফের উপর হামলার খবর কাচাটুল এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে উত্তেজিত এলাকাবাসী সংগঠিত হয়ে পাতন গ্রামে চলে আসেন। উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রাণ বিষয়ক সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম তাদের শান্ত করে বিষয়টি সুন্দর সমাধানের আশ^াস দেন।
বিষয়টির সুষ্ঠু সমাধানের লক্ষ্যে পাতন গ্রামবাসী কাচাটুল এলাকায় গিয়ে বর্তমান চেয়ারম্যান এম এ মান্নান, ইউপি সদস্য অন্যদের সাথে আলোচনা করে সুষ্ঠু সমাধানের আশ্বাস দেন। এ নিয়ে পাতন গ্রামের লোকজন মরফ উদ্দিনের বাড়িতে বৈঠকে বসলে সেখানে রাত ১২টার মসজিদের মাইকে প্রচারণা চালিয়ে সশস্ত্র হামলা চালান কাচাটুল এলাকার লোকজন। সালিশ বৈঠকের সদস্য আশরাফুল ইসলাম, এসআই মুর্শেদ আলম ও ৩ পুলিশ সদস্য সাজুদ হোসেন (২০) শাহিন হোসেন (২২) ও আরিফ (২২) ইউনিয়ন বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক জামিল আহমদ, আহমদ (২১) পাতন, বাবুল (৩০), জাকির (১৮), আজিম (৩৫), শাহাজান (১৯), কাশেম (৩০), হবিব আলী (১৮), ইসমাইল (২০), কামেল (১৮), কাজল (২৫), ময়নুল (২০), আলী হোসেন (৩২), আছকন আলী (৫৫) কমপক্ষে ৫০ আহত হন। হামলার সময় কাচাটুল গ্রামের ২০/২৫ রাউন্ড বন্দুকের গুলি ছুড়ে। বর্তমানে থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। দুই এলাকাবাসী দফায় দফায় বৈঠক করছেন।

ঘটনাস্থলে দায়িত্বপালন করা বিয়ানীবাজার থানার এসআই মুর্শেদ বলেন, উত্তেজিত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে পুলিশ শর্টগানের ৩০ রাউন্ড ফাকা গুলি ছুড়েছে। রাত সাড়ে ৩টার দিকে পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হয়ে আসে।

বিয়ানীবাজার থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আবুল বাসার মোহাম্মদ বদরুজ্জামান জানান, বর্তমানে ঘটনাস্থল ও আশপাশ এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। উভয় পক্ষকে শান্ত থেকে পুলিশকে সহযোগিতা করার অনুরোধ করা হয়েছে। তিনি জানান, গতকাল রোববার দুপুর ৩টা পর্যন্ত কোন পই থানায় অভিযোগ দায়ের করেনি।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: