সর্বশেষ আপডেট : ১৯ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

সিলেটে ব্যবসায়ী-ভ্যাট কর্মকর্তা দ্বন্দ্বের অবসান চান কমিশনার

নিজস্ব প্রতিবেদক :: সম্প্রতি ভ্যাট আদায়কে কেন্দ্র করে সিলেটের ব্যবসায়ী ও ভ্যাট কর্মকর্তার মধ্যে সৃষ্ট দ্বন্দ্বের অবসান ঘটিয়েছেন কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট এর কমিশনার একেএম নুরুজ্জামান। একই সাথে ভবিষ্যতে এরকম কোন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অভিযোগ থাকলে তার কাছে লিখিত আকারে দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

এ বিষয়ে বুধবার সিলেট মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্টি (এসএমসিসিআই) এর ব্যবসায়ী নের্তৃবৃন্দের সাথে এক মতবিনিময় সভায় মিলিত হন তিনি।

এসময় তিনি বলেন, আমার কোন অফিসারের বিরুদ্ধে অভিযোগ থাকলে আমাকে লিখিত আকারে জানাবেন। আমি সাথে সাথে ব্যবস্থা নেব। আমি আশা করব- ব্যবসায়ী ও ভ্যাট কর্মকর্তাদের ভূল বুঝাবুঝির অবসান ঘটবে।Vat

এসএমসিসিআই এর ১ম সহ-সভাপতি হাসিন আহমদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তারা বলেন, আমরা ভ্যাট দিতে প্রস্তুত এবং আমরা ভ্যাট দিয়েও যাচ্ছি। আমরা শুধু মাত্র ভ্যাট কর্মকর্তাদের সহনশীল আচরণ কামনা করছি। পাইকারী ও খুচরা বিক্রেতাদের প্যাকেজ ভ্যাট ৮ হাজার টাকা পুন:নির্ধারণের দাবি জানান ব্যবসায়ীরা।

সভায় মেট্রো চেম্বারের পরিচালক মোয়াম্মীর হোসেন চৌধুরী কিছু প্রস্থাবনা তুলে ধরেন। প্রস্তাবনাগুলো হচ্ছে- ১. ভ্যাট এর পরিধি বৃদ্ধি করা, ছোট, বড় ও মাঝারী সকল ব্যবসাকে ভ্যাটের আওতায় নিয়ে আশা। ২. ব্যাংক, বীমা ও রিসোর্ট সহ সকল বড় বড় কোম্পানী গুলোর শাখা অফিসের ভ্যাট ঐ এলাকার জোনাল ভ্যাট বা অঞ্চলে আদায় করা। ৩. প্যাকেজ ভ্যাট সহণীয় পর্যায়ে রাখা যাতে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা ভ্যাট দিতেউৎসাহিত হয়। ৪. হোটেল, রেস্তোরার খাদ্যদ্রব্যের ভ্যাট এ শ্রেণী বিন্যাস না করে সকল খাদ্য দ্রব্যেকে একই শ্রেণীভুক্ত করা। ৫. ভ্যাট সম্মন্ধে বিভিন্ন ধরনের কার্যক্রম বা সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে পদক্ষেপ নেওয়া।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে কমিশনার আরও বলেন, আমি আপনাদের আশ্বস্থ করছি আপনাদের সকল যৌক্তিক দাবি বিবেচনা করব এবং আমার কোন অফিসারের বিরুদ্ধে অভিযোগ থাকলে আমাকে লিখিত আকারে জানালে সাথে সাথে ব্যবস্থা নেব। আমি ব্যবসায়ী ও ভ্যাট কর্মকর্তাদের ভুল বুঝাবুঝির অবসান চাই।

বক্তৃতায় হাসিন আহমদ বলেন, বর্তমান সরকার হচ্ছে ব্যবসা বান্ধব সরকার। সরকারের রাজস্ব আদায়ের সিংহভাগ আসছে ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে। তাই পারস্পরিক শ্রদ্ধা, যোগাযোগ ও সহযোগিতার মাধ্যমে ব্যবসায়ী ও রাজস্ব আদায়কারি কর্মকর্তাদের মধ্যে সমন্বয় জরুরি।

সভায় বক্তব্য রাখেন এসএমসিসিআইর পরিচালক শফিউল আলম চৌধুরী, ভ্যাট এডিসি রাশেদুল আলম, সিলেট মিষ্ঠান্ন সমিতির সভাপতি মো. তোফাজ্জল হোসেন, ব্যবসায়ী ঐক্য কল্যাণ পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শেখ মো. তুরন মিয়া, এসএমসিসিআইর পরিচালক মাওলানা খায়রুল হোসেন, সিলেট হোটেল এন্ড গেস্ট হাউস ওনার্স গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক তাহমিন আহমদ, এসএমসিসিআইর পরিচালক সুমেয়াত নুরী চৌধুরী, সিলেট ব্যবসায়ী স্বার্থ সংরক্ষণ পরিষদের সদস্য সচিব এহসানুল হক তাহের প্রমুখ।

সভায় এসএমসিসিআই এর পরিচালনা পর্ষদের পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন আব্দুল জব্বার জলিল, হুরায়রা ইফতার হোসেন, মো. কফিলুর রহমান, কাজী মকবুল হোসেন, খলিলুর রহমান মাছুম, মো. মুহিতুল বারী রহমান এবং ব্যবসায়ীদের পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন এ.এম মাসুদুল ইসলাম, দিদারুল আলম, মো. ইকবাল হোসেন, এনায়েত মৌলা চৌধুরী, প্রশান্ত কুমার দাস, এম.এ হক, লায়েক রহমান, মো. আকাশ, মো. মুনতাছির, মো. আবু সায়েম, কাওছার আহমদ, মো. সাজেদুল হক, এম.এ মনাফ, মো. দিদারুল আলম, জামাল উদ্দিন, মো. নুরুল ইসলাম সুমন, মনজুরুল ইসলাম প্রমুখ।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: