সর্বশেষ আপডেট : ১ মিনিট ৭ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

আহসানউল্লাহ মাস্টার হত্যা : ৬ জনের মৃত্যুদন্ড বহাল, ৭ জনের হ্রাস

AHSan Ullah Masterনিজস্ব প্রতিবেদক : জনপ্রিয় আওয়ামী লীগ নেতা ও সাবেক এমপি আহসানউল্লাাহ মাস্টার হত্যা মামলায় ছয় আসামির মৃত্যুদণ্ডাদেশ বহাল রেখেছে হাইকোর্ট। এরা হলেন- যুবদল নেতা নুরুল ইসলাম সরকার, নুরুল ইসলাম দিপু, মাহবুবুর রহমান, শহিদুল ইসলাম শিপু, হাফিজ ইলিয়াস ওরফে কানা হাফিজ ও সোহাগ ওরফে সুরু। এছাড়া নিম্ন আদালতে মৃত্যুদণ্ডপ্র্রাপ্ত  ৭ আসামির দণ্ড হ্রাস করে তাদেরকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে হাইকোর্ট।

এরা হলেন মোহাম্মদ আলী, সৈয়দ আহমেদ মনজু, আনোয়ার হোসেন আনু, রতন মিয়া ওরফে বড় রতন, জাহাঙ্গীর ওরফে কাশেম মাতবর, আবু সালাম ও মসিউর রহমান। এছাড়া বিচারকি আদালতে যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত নুরুল আমিনের রায় বহাল রেখেছে হাইকোর্ট।

বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি তৃষ্ণা দেব নাথের ডিভিশন বেঞ্চ বুধবার দুপুর ১টায় এ রায় ঘোষণা করে।  এর আগে বিচারিক আদালত আহসানউল্লাহ মাস্টার হত্যায় ২০ জনের ফাঁসি দিয়েছিলেন।

গত ৮ জুন ডেথ রেফারেন্স ও আপিলের ওপর রাষ্ট্র ও আসামি পক্ষের আইনজীবীদের দীর্ঘ শুনানি শেষে হাইকোর্ট রায় ঘোষণার জন্য এ দিন ধার্য করে দেয়।

তৎকালীন বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের সময় ২০০৪ সালের ৭ মে নোয়াগাঁও এম এ মজিদ মিয়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে প্রকাশ্যে গুলি করে হত্যা করা হয় সংসদ সদস্য ও আওয়ামী লীগ নেতা আহসানউল্লাহ মাস্টারকে। ঘটনার পরদিন তার ভাই মতিউর রহমান বাদি হয়ে টঙ্গী থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় ২০০৪ সালের ১০ জুলাই আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে পুলিশ। সাক্ষ্য গ্রহণ ও যুক্তিতর্ক শেষে এ হত্যা মামলায় ২০০৫ সালের ১৬ এপ্রিল দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল বিএনপি নেতা নূরুল ইসলাম সরকারসহ ২২ জনকে মৃত্যুদণ্ড এবং ৬ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রদান করে। দণ্ডপ্রাপ্তদের মধ্যে দুইজন মারা গেছেন। ১৭ জন কারাগারে রয়েছেন। এর মধ্যে ১৩ জন মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ও ৪ জন যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি। বাকি ৯ জন পলাতক রয়েছেন বলে জানিয়েছেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল রোনা নাহরীন।

নিম্ন আদালতের ফাঁসি ও যাবজ্জীবন সাজার রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেন দণ্ডপ্রাপ্ত কারাবন্দী আসামিরা। একইসঙ্গে মামলাটি ডেথ রেফারেন্স আকারে হাইকোর্টে আসে। দীর্ঘ প্রায় এক যুগ পর চলতি বছরে আপিল ও ডেথ রেফারেন্সের শুনানি হাইকোর্টে শুরু হয়। শুনানি শেষে হাইকোর্ট ১৫ জুন রায় ঘোষণার জন্য রাখে।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: