সর্বশেষ আপডেট : ৩ মিনিট ৫৩ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

তাহিরপুরে মিয়ারচর নদীতে ব্রিজ নেই, জনদুর্ভোগ চরমে

cdfa3f58-60cc-4ea9-9119-ca56ccfa9d77জাহাঙ্গীর আলম ভুঁইয়া, তাহিরপুর::
সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নের মিয়ারচর নদীর উপর একটি মাত্র ব্রীজ না থাকায় চরম দুভোর্গের মাঝে রয়েছে এলাকাবাসী। ব্রুজ না থাকায় এ নদী পাড় হতে র্দীঘ সময় নষ্ট করে ও জীবনের যুকিঁ নিয়ে নৌকা দিয়ে পারাপাড় হচ্ছে সর্বস্থরের লোকজন। প্রায়ই এ নদী পাড় হতে গিয়ে নৌ-দুর্ঘটনা শিকার হয় স্কুল,কলেজের ছাত্র-ছাত্রী,বিভিন্ন প্রতিষ্টানের চাকুরীজীবি, ব্যবসায়িগণ।

এ নদী পারাপড়ের জন্য ব্যবহৃত হয় একটি মাত্র নৌকা। আর এ নৌকা দিয়েই জনসাধারনের পাশা-পাশি বাইসাইকেল,মটরসাইকেল,ঠেলাগাড়ি,ভেনগাড়ি ও অন্যান্য যানবাহন পারাপার হচ্ছে এক সাথে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে। যেন দেখার কেউ নেই। বাদাঘাট ইউনিয়ন থেকে সুনামগঞ্জ জেলার সদরের দূরত্ব ৩৫কিঃ মিঃ আর যোগাযোগের একমাত্র সড়ক হল বাদাঘাট-মিয়ারচর-সুনামগঞ্জ সড়ক। ব্রীজের না থাকায় উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়ন ও পার্শ্ববর্তী বিশ্বাম্ভরপুর উপজেলার দক্ষিন বাদাঘাট ইউনিয়নের ৭০টি গ্রামের হাজার হাজর জনসাধারনের জীবন যাত্রার মান থমকে যাচ্ছে। অবহেলিত তাহিরপুর উপজেলার ৭টি বিচ্ছিন্ন ইউনিয়ন গুলোর মধ্যে ব্যবসার-বানিজ্যের প্রান কেন্দ্র হিসাবে পরিচিত বাদাঘাট বাজার। বাদাঘাট বাজারে আসার জন্য প্রতিদিন হাজার হাজার লোকজনের পদচারনায় মুখরিত হয় মিয়ারচর নদীটি।

এছাড়াও বাদাঘাট-সুনামগঞ্জ সড়ক দিয়ে মিয়ারচর নদী পাড় হয়ে সারা বছর জেলা সদর,পাশ্বভর্তি বিশ্বাম্ভরপুর উপজেলা ও তাহিরপুর উপজেলার বাদাঘাট,উত্তর বড়দল,দক্ষিন বড়দল,উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের হাজার হাজার হাজার জনসাধারন যোগাযোগ করে থাকে। বাদাঘাট এলাকার অধিকাংশ কৃষক,সবজি চাষীরা তাদের উৎপাদিত পন্য সামগ্রী বেচা কেনার জেলা সদরে,পাশ্ববর্তি বিশ্বাম্ভরপুর বাজার,তাহিরপুর সদর আসা যাওয়া করতে পারছে না নদীতে ব্রীজ না থাকায়। আসা-যাওয়া করতে গেলে যাতায়াত খরচের পরিমান বেড়ে যাওয়ার ফলে ব্যবসায়ী ও কৃষকদের কষ্টার্জিত ফসল বিক্রি করে লাভবান হতে পারছেন না।

এই সুযোগে জেলা পরিষদ থেকে লীজ নিয়ে ১টাকার স্থলে ৫টাকা জন প্রতি,মটর সাইকেল থেকে ২০টাকা,ঠেলাগাড়ি/ ভেনগাড়ি থেকে ৩০টাকা হারে টাকা আদায় করছে খেয়াঘাটের ইজারাদার। এ নিয়ে ঝগড়া-বিবাধ লেগেই থাকে সারাক্ষন। জেলা সদর,পাশ্ববর্তি উপজেলা ও বাদাঘাট বাজারের সাথে যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নের জন্য মিয়ারচর নদীর উপর সর্বস্তরের জনসাধারন একটি ব্রীজ নির্মানের র্দীঘ দিনের দাবী জানিয়ে আসলেও সংশ্লিষ্ট প্রশাসন প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিচ্ছে না। যার ফলে এলাকাবাসীর মাঝে র্দীঘ দিনের ক্ষোভ বিরাজ করছে।

বিশিষ্ট ব্যবসায়ী,সমাজ সেবক আবু সায়েম,সুজাত মিয়া,ব্যবসায়ী রাশিদ ভূঁইয়া,শিক্ষক সিদ্দিকুর রহমান,স্থানীয় এলাকাবাসী,ছাত্রছাত্রী ও কৃষকগন জানান-মিয়ারচর নদীর উপর একটি ব্রীজ নির্মান হলে এলাকার সর্বস্তরের জনসাধারন,ব্যবসা-বানিজ্য করা ও চলাচলের পথ সুগম হবে ভোগান্তি থেকেও মুক্তিপাবে। বাদাঘাট ইউনিয়নের নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান আপ্তাব উদ্দিন বলেন,আমি এবার নির্বাচনে বিজয়ী হয়েছি আমি জনগনের ভোটেই নির্বাচিত হয়েছি তাদের সুবিধার স্বার্থে মিয়ারচর নদীতে ব্রীজ সহ সব বিষয়েই আমি সর্বাতœক চেষ্টা করব।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইকবাল হোসেন জানান-মিয়ারচর নদীতে ব্রীজ নির্মান হলে এলাকার সর্বস্থরের জনসাধারন উপকৃত হবে তাই ব্রীজ স্থাপনের জন্য সর্বাত্মক চেষ্টা করব। উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান কামরুল বলেন-মিয়ারচড় নদীর উপর একটি ব্রীজ নির্মান করা হলে জেলা সদর,বিশ্বাম্ভরপুর উপজেলার সাথে সহজে জনসাধারনের চলাচলের সুবিধা এবং ব্যবসায়ীরা লাভবান হবে। তাই সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষ এ বিষয়ে গুরুত্বের সাথে প্রয়োজনীয় প্রদক্ষেপ নেওয়া প্রয়োজন।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: