সর্বশেষ আপডেট : ১৩ মিনিট ৪৫ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৪ আশ্বিন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

অপু বিশ্বাসের খবর জানেন না স্বজনরা!

2012-10-23-20-11-03-5086f9d7ad42e-untitled-21বিনোদন ডেস্ক:: দেশজুড়ে তার ব্যাপক পরিচিতি। সবাই চেনে প্রায় এক নামে। তিনি বগুড়া শহরের মেয়ে অপু বিশ্বাস। দেশীয় চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় নায়িকা তিনি। কিন্তু দীর্ঘদিন ধরে কোথাও তার খোঁজ মিলছে না।

নিজ গ্রামের বাড়িতেও অপুর দেখা পাওয়া যায়নি। স্বজনদের কাছ থেকেও মেলেনি তার হদিস। মা শেফালী বিশ্বাসও দীর্ঘদিন ধরে বগুড়ার বাসায় থাকেন না। তিনি ঢাকাতেই স্থায়ী হয়েছেন বলে জানান স্বজনরা। প্রায় সাত মাস আগে তার সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ হয় তারই এক স্বজনের।

৩ নং ওয়ার্ডের ডা. এস কে লেনের হোল্ডিং নং ১৬৪৭ (এ) প্রধান ফটকের ডান পাশে শেফালী ভবন নামের নামফলক বসানো রয়েছে।

ভবনের প্রধান ফটকের ভেতরে ও বাইরে তখন তালা ঝুলছিলো। দারোয়ানও নেই। দরজায় কড়া নাড়লে বাসার এক ভাড়াটিয়া মহিলা বেরিয়ে আসেন। তাকে পরিচয় দিয়ে অনুরোধ করলে তিনি ভেতরে প্রবেশের সুযোগ দেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এই ভাড়াটিয়া জানান, ভবনের ছয়তলায় নায়িকা অপু বিশ্বাসের পরিবার থাকেন। এরপর সিঁড়ি বেয়ে ওপরে ওঠা শুরু। তারপর ঠিক ছয়তলার একটি ইউনিটের সামনে অপুর ছবি চোখে পড়লো।

কলিংবেল চেপে বেশ কিছুক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকার পর একজন ভদ্রমহিলা বেরিয়ে আসেন। তার নাম নূপুর বিশ্বাস। তাকে অপুর ব্যাপারে জিজ্ঞেস করতেই তিনি ভেতরে ঢুকে যান। কিছুক্ষণ পর তার স্বামী লিটন কুমার বিশ্বাস বেরিয়ে আসেন। তিনি নওগাঁ জেলার মান্দা গ্রামের বাসিন্দা। শেফালী বিশ্বাস তার খালা। সে হিসেবে অপু তার খালাত বোন। এই ভবনের দেখভালকারী তার মামা স্বপন বিশ্বাস দু’দিন হলো বাসায় নেই। তিনি চাকরির কাজে বাইরে আছেন।

কথা হয় লিটন কুমার বিশ্বাসের সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘আমি অসুস্থ। চিকিৎসার জন্য দুই দিন আগে স্ত্রীকে নিয়ে এই বাসায় উঠেছি। তখন মামা স্বপন বিশ্বাস বাসায় ছিলেন। আমি আসার পর তিনি চলে যান।’

লিটন কুমার বিশ্বাস আরও জানান, প্রায় সাত মাস আগে খালা শেফালী বিশ্বাসের সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা হয়েছে। আর অপুর কোনো ফোন নম্বর তার জানা নেই। তাই তার সঙ্গে কথাও হয়নি। ‘খালা ঢাকায় আছেন এতোটুকু জানি। কিন্তু ঢাকার কোথায় থাকেন তা জানা নেই’- বললেন তিনি।

অারেক প্রশ্নের উত্তরে লিটন জানান, কারও ফোন নম্বর তার জানা নেই। এমনকি তিনি নিজেও ফোন ব্যবহার করেন না বলে একপর্যায়ে দাবি করে বসেন।এ সময় উপস্থিত তার স্ত্রী নূপুর বিশ্বাসও কিছু বলতে রাজি হননি। পরে বাড়ির ভেতরে দেয়ালের সঙ্গে লাগানো অপু বিশ্বাসের ছবি তুলতে চাইলে তারা তা না তোলার অনুরোধ জানান।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: