সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
শুক্রবার, ২ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বাংলাদেশ থেকে চীনে জনশক্তি নেওয়ার প্রস্তাব

Amu20160614085533নিউজ ডেস্ক:
বাংলাদেশ থেকে চীনে দক্ষ ও আধাদক্ষ জনশক্তি নেওয়ার প্রস্তাব করেছেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু। চীনের ইউনান প্রদেশের গভর্নর চেং হাউ সঙ্গে বৈঠককালে শিল্পমন্ত্রী এ প্রস্তাব করেন। মঙ্গলবার কুনমিং ইন্টারন্যাশনাল হোটেলে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠকে চীনে শ্রমিকের মজুরি ব্যাপকহারে বৃদ্ধির কারণে বাংলাদেশ থেকে শ্রমশক্তি নেওয়ার সুযোগ রয়েছে উল্লেখ করে বাংলাদেশে উন্নতমানের শিল্পপণ্য উৎপাদনের লক্ষ্যে চীনের উন্নত প্রযুক্তি স্থানান্তর এবং মানব সম্পদ প্রশিক্ষণের জন্য যৌথ বিনিয়োগের প্রস্তাব করেন মন্ত্রী। শিল্প মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়েছে।

শিল্পমন্ত্রী বলেন, ২০২১ সাল নাগাদ শিল্পসমৃদ্ধ মধ্যম আয়ের বাংলাদেশ গড়ে তোলার লক্ষ্য নিয়ে বর্তমান সরকার কাজ করেছে। এ লক্ষ্য অর্জনে ম্যানুফ্যাকচারিং শিল্পখাতের অবদান শতকরা ৩৫ ভাগ এবং শিল্প শ্রমশক্তির পরিমাণ শতকরা ২৫ ভাগে উন্নীত করা হবে। ইতোমধ্যে বিদেশি বিনিয়োগকারীদের জন্য বিশেষ সুবিধা দিয়ে জাতীয় শিল্পনীতি-২০১৬ প্রণয়ন করা হয়েছে।

আমু বলেন, শিল্পায়নের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ পরিবেশ সুরক্ষার প্রতি সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিচ্ছে। চীন বাংলাদেশের শিল্প কারখানায় ইটিপি স্থাপনে কারিগরি সহায়তা দিতে পারে। এর পাশাপাশি জ্বালানি সাশ্রয়ী বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম উৎপাদন, বিএসটিআইর আধুনিকায়ন, রাষ্ট্রায়ত্ত্ব চিনিকলগুলোর উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি, আধুনিক পদ্ধতিতে মৌ-চাষ এবং পরিবেশবান্ধব শিপ-রিসাইক্লিং শিল্পখাতে চীনের প্রযুক্তিগত সহায়তা কামনা করেন তিনি।

বৈঠকে গভর্ণর চেং হাউ বলেন, কুনমিংয়ের সঙ্গে বাংলাদেশের ঐতিহাসিক বাণিজ্যিক সম্পর্ক রয়েছে। দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য জোরদারের লক্ষ্যে দু’দেশের মধ্যে সড়ক ও রেল যোগাযোগ নেটওয়ার্ক গড়ে তোলা সময়ের দাবি।

বাংলাদেশের সমুদ্র সৈকত কুনমিংয়ের জনগণকে আকর্ষণ করে জানিয়ে তিনি বলেন, কুনমিং প্রদেশের শিল্প উদ্যোক্তারা বাংলাদেশের পর্যটন শিল্পসহ উদীয়মান শিল্পখাতে বিনিয়োগে আগ্রহী। দ্বিপাক্ষিক বিনিয়োগ ও বাণিজ্য প্রসারের মাধ্যমে বাংলাদেশের উদীয়মান অর্থনীতির অংশীদার হতে চীন সব ধরনের সহায়তা দেবে।

সভায় চীন সরকারের জাতীয় উন্নয়ন ও সংস্কার কমিশন সম্পর্কিত আন্তর্জাতিক বিভাগের ভাইস চেয়ারম্যান নিং জি, ইউনান প্রদেশের গভর্নর চেং হাউসহ আফগানিস্তান, ভুটান, ভারত, মালদ্বীপ, পাকিস্তান, শ্রীলংকা, নেপালসহ দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মন্ত্রী ও শিল্প উদ্যোক্তারা অংশ নেন।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: