সর্বশেষ আপডেট : ২০ মিনিট ৫৮ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

লর্ডস টেস্টে এবার ‘নো বল’ বিতর্ক

Untitled-3 copyনিউজহ ডেস্ক : একের পর এক বিতর্কে তোলপাড় হচ্ছে লর্ডস টেস্ট। প্রথম দিনের খেলায় বিতর্ক ছড়িয়েছিল ডিসিশন রিভিউ সিস্টেম (ডিআরএস)। নিশ্চিত আউটের হাত থেকে বেঁচে গিয়েছিলেন জনি বেয়ারস্ট্রো। ৫৬ রানে জীবন পেয়ে শেষপর্যন্ত খেলেছিলেন ১৬৭ রানের অপরাজিত ইনিংস। চতুর্থ দিনের খেলায় আবারও বিতর্ক ছড়িয়েছে আম্পায়ারের একটি ভুল সিদ্ধান্ত। এবার তোলপাড় উঠেছে ‘নো বল’ নিয়ে। লর্ডসের ব্যালকনিতে নিজ দেশের পতাকা টাঙিয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছেন শ্রীলঙ্কার খেলোয়াড়রা। আর শ্রীলঙ্কার কোচ গ্রাহাম ফোর্ড আইসিসির কাছে আবেদন জানিয়েছেন সব নো বলের ক্ষেত্রে থার্ড আম্পায়ারের সহায়তা নেওয়ার।

ঘটনাটি ইংল্যান্ডের দ্বিতীয় ইনিংসের ৪৬তম ওভারের। নুয়ান প্রদীপের বলে বোল্ড হয়েছিলেন অ্যালেক্স হালেস। কিন্তু ওভার স্টেপিংয়ের কারণে নো বল ডেকে বসেন আম্পায়ার রড টাকার। পরে টেলিভিশন রিপ্লে থেকে দেখা যায় প্রদীপের বলটি বৈধই ছিল। ফলে নিশ্চিত আউটের হাত থেকে বেঁচে যান হালেস। ৫৮ রানে জীবন পেয়ে তিনি খেলেছেন ৯৪ রানের ইনিংস। তাঁর এই লড়াকু ইনিংসের সুবাদেই ইংল্যান্ড শ্রীলঙ্কার সামনে ছুড়ে দিয়েছে ৩৬২ রানের দুরূহ লক্ষ্য।

এ বছরের ফেব্রুয়ারিতে নিউজিল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার মধ্যকার একটি টেস্টেও দেখা গেছে এমন চিত্র। মাত্র সাত রানের মাথায় আম্পায়ারের ডাকা নো বলের কারণে জীবন পেয়েছিলেন অ্যাডাম ভোজেস। সেই ম্যাচে তিনি খেলেছিলেন ২৩৯ রানের ইনিংস। বারবার এমন ভুল যেন না ঘটে সে জন্য সব নো বলের ক্ষেত্রেই থার্ড আম্পায়ারের সহায়তা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন শ্রীলঙ্কার কোচ গ্রাহাম ফোর্ড। চতুর্থ দিনের খেলা শেষে তিনি বলেছেন, ‘আইসিসির অবশ্যই এদিকে নজর দেওয়া উচিত। সব ধরনের প্রযুক্তি হাতে কাছে থাকা সত্ত্বেও এ জাতীয় ভুল চলতে থাকাটা খুব অবাক করার মতো ব্যাপার। সবচেয়ে ভালো সমাধান হচ্ছে, উইকেটের অপর প্রান্তে কী ঘটছে, আম্পায়ার সেদিকেই মনোযোগ দেবেন। আর বোলার ওভার স্টেপিং করছে কি না, সেদিকটা প্রযুক্তির হাতেই ছেড়ে দেওয়া হবে।’

বর্তমান নিয়ম অনুযায়ী কোনো ব্যাটসম্যান আউট হয়ে গেলে টেলিভিশন রিপ্লেতে দেখা হয় যে, বোলার ওভারস্টেপিংয়ের কারণে নো বল করেছেন কি না। কিন্তু মাঠের আম্পায়ার নো বল ডাকলে সেটা বাতিল করার কোনো সুযোগ থার্ড আম্পায়ারের নেই। এ ব্যাপারে রিভিউয়ের আবেদন করার কোনো সুযোগও থাকে না ফিল্ডিংরত দলের কাছে।

আম্পায়ার রড টাকার এই ভুল সিদ্ধান্তের জন্য পরে ক্ষমাও চেয়েছেন শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউসের কাছে। কিন্তু এই একটি সিদ্ধান্তের কারণে বেশ ক্ষতিই হয়ে গেছে লঙ্কানদের। চতুর্থ দিনের শুরুতে হালেসের উইকেটটি পেয়ে গেলে ইংল্যান্ডকে হয়তো আরো অল্প রানে আটকে ফেলতে পারত শ্রীলঙ্কা। এখন লর্ডস টেস্ট জিতে হোয়াইটওয়াশের লজ্জা এড়াতে হলে দ্বিতীয় ইনিংসে শ্রীলঙ্কাকে করতে হবে ৩৬২ রান। এরই মধ্যে স্কোরবোর্ডে ৩২ রান জমাও করে ফেলেছে লঙ্কানরা। ফলে জয়ের জন্য শেষ দিনে শ্রীলঙ্কাকে করতে হবে ৩৩০ রান।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: