সর্বশেষ আপডেট : ১০ মিনিট ১৩ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ছাত্রীকে বিয়ে করে জেলে বৃদ্ধ অধ্যাপক

Untitled-12 copyনিউজ ডেস্ক : বয়সের পার্থক্য ঘুচিয়ে দিয়েছিল মনের মিল। সামাজিক নানা ব্যবধানেও  মন মানেনি। তাই ৬৪ বছর বয়সে বিয়ে করেছিলেন ২৭ বছরের ছাত্রীকে। এরপরই সমাজের রোষ টের পেলেন ওই বৃদ্ধ অধ্যাপক।

প্রথমে প্রতিবাদ, সামাজিকভাবে বয়কটের পরপর বেশ কয়েক দিন ঘরে ফেরার পথে হামলার শিকার হন বেঙ্গালুরু ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব ক্রিয়েটিভ কমিউনিকেশনের অধ্যক্ষ ড. আকাশ কে রোজ। এখানেই শেষ হয়নি। বিয়ের দিনকয়েক পরে স্ত্রীর পরিবারের হাতে নিজের বাড়িতে বেধড়ক মার খেলেন তিনি। লাঞ্ছনার হাত থেকে রেহাই পাননি স্ত্রী কৃপা দেশপাণ্ডেও।

সর্বশেষ একজন প্রাপ্তবয়স্ক নারীকে বিয়ের অপরাধে নারী নির্যাতনের মামলার আদালতে হাজিরা দিতে হলো ওই বৃদ্ধ অধ্যাপককে। এর আগে তাঁকে আটক করে জেলে পুরে দেয় স্থানীয় পুলিশ।

জিনিউজ জানায়, ২০১০ সালে বেঙ্গালুরু ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব ক্রিয়েটিভ কমিউনিকেশনে ছাত্রী হিসেবে যোগ দিয়েছিলেন কৃপা। তখন তাঁর বয়স ছিল ২১, আর আকাশ ছিলেন ৫৯ বছরের প্রৌঢ়। তবে প্রেমের আবেগ বয়সের বাধা টপকে নিজের গন্তব্যে পৌঁছাতে বেশি সময় লাগেনি।

চলতি বছরের মে মাসে বাড়িতে না জানিয়ে ‘হিন্দু ম্যারেজ অ্যাক্ট’ অনুযায়ী আকাশকে বিয়ে করেন কৃপা। এ কথা বাড়িতে জানাজানি হতেই বিক্ষোভের মুখে পড়তে হয় কৃপাকে। কৃপার বাবা অভিযোগ করেন, যেহেতু আকাশ খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বী, তাই এই বিয়ে বৈধতা পাবে না। আকাশ এর আগে অনেক মেয়ের জীবন নষ্ট করেছেন বলেও অভিযোগ তাঁর।

গত সপ্তাহের শনিবার আদালতের কাছে কৃপা-আকাশ তাঁদের ওপর হেনস্তার অভিযোগ করেছিলেন। এক সংবাদ সম্মেলনে তাঁরা জানান, নিজেদের বিয়ের কাগজপত্র ঠিক করতেই রাজেশ্বর নগরের ডেপুটি রেজিস্ট্রারের অফিসে গিয়েছিলেন কৃপা-আকাশ। সেখানে তাঁদের ওপর চড়াও হন কৃপার বাবা ও তাঁর বন্ধুরা। আকাশকে বাঁচাতে গিয়ে হেনস্তার শিকার হন কৃপাও।

এর পর কৃপার বাবার করা মামলার পরিপ্রেক্ষিতে আটক করে জেলে নিয়ে যাওয়া হয় অধ্যক্ষ আকাশ কে রোজকে।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: