সর্বশেষ আপডেট : ৪ মিনিট ৪৬ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

সিলেটে সাঁড়াশি অভিযানে ধরা পড়েনি কোনো জঙ্গি-সন্ত্রাসী, মোড়ে মোড়ে তল্লাশি

2015_11_19_08_46_33_RGAbSi4X020R04KXIW8czCelZDBYaF_originalস্টাফ রিপোর্টার::
দেশে জঙ্গিবিরোধী সাঁড়াশি অভিযান শুরু হয়েছে। সে অনুসারে সিলেটে চলছে পুলিশি অভিযান। তবে, সড়কে মোটরসাইকেল তল্লাশি ছাড়া সাঁড়াশি অভিযানে এখনও কোনো জঙ্গি বা সন্ত্রাসী আটক হয়নি। শুক্রবার দিনভর নগরীর গুরুত্বপূর্ণ সড়কের বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে পুলিশকে মোটরসাইকেল তল্লাশি করতে দেখা গেছে।

পুলিশ সূত্র জানায়, গগত বৃহস্পতিবার রাত থেকে এসএমপি পুলিশ চৌকস সদস্যদের দিয়ে একটি বিশেষ দল গঠন করেছে। তারা সন্ত্রাসী ও জঙ্গি ধরতে নগরজুড়ে চষে বেড়াচ্ছেন। তবে, তারা এখনও কোনো উল্লেখযোগ্য সন্ত্রাসী ধরতে পারেননি। এসএমপির ৬ থানায় যেসব আসামি ধরা হয়েছে, তারা নিয়মতি মামলার আসামি।

নগর ঘুরে দেখা গেছে, শুক্রবার সকাল থেকে নগরীর মোড়ে মোড়ে চেকপোস্ট বসিয়ে পুলিশ তল্লাশি শুরু করেছে। বিশেষত, মোটরসাইকেলে দুজন-তিনজন আরোহী দেখা মাত্রই চেকপোস্টে দাঁড়ানো পুলিশ সদস্যরা সিগন্যালে দিচ্ছেন। গাড়ি থামিয়ে কাগজপত্র দেখছেন। জিজ্ঞাসাবাদ করছেন। কাগজে সমস্যা থাকলে সঙ্গে সঙ্গে মামলাও ঠুকে দিচ্ছেন।

বারুতখানা মোড়ে দায়িত্বরত সিলেট কোতোয়ালি থানার উপপরিদর্শক (এসআই) অমর দাশ বলেন, আমরা আপাতত মোটরসাইকেল তল্লাশি বেশি করছি। কারণ, মোটরসাইকেলে অপরাধ বেশি হচ্ছে। তেমন কোনো সন্ত্রাসী ধরতে না পারলেও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব হচ্ছে। মোটরসাইকেল আরোহীদের মামলা দেওয়ায় সতর্ককর্তা বেড়েছে। এছাড়া রাতে পুলিশের একটি বিশেষ দল তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী ধরতে অভিযান চালাচ্ছে।

উল্লেখ্য, চট্টগ্রামে পুলিশের এসপি বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতুকে সন্দেহভাজন ইসলামি জঙ্গিরা খুন করার পর জঙ্গিবিরোধী অভিযান হঠাৎ নতুন মোড় নেয়।

সম্প্রতি আইন-শৃঙ্খলা সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির এক বৈঠক শেষে শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে যে ৩৭টি হত্যার ঘটনা ঘটেছে, তার মধ্যে ২৫টির সঙ্গে সরাসরি নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জামায়তুল মুজাহিদীন বাংলাদেশ (জেএমবি) জড়িত।

রাষ্ট্রীয় সূত্র দাবি করছে, সন্দেহভাজন জঙ্গিদের হাতে গত তিন বছরে অন্তত ৫০ জন নিহত হয়েছেন। এদের মধ্যে সেক্যুলার ও নাস্তিক লেখক-ব্লগার, সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ধর্মগুরুরাও রয়েছেন।

গত বৃহস্পতিবার পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সে বাংলাদেশ পুলিশের ইন্সপেক্টর জেনারেল একেএম শহীদুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এক সভায় সন্ত্রাসী ও জঙ্গি ধরতে সাঁড়াশি অভিযানের সিদ্ধান্ত হয়।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: