সর্বশেষ আপডেট : ৪৮ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

গাছে বেঁধে গৃহবধূকে নির্যাতন

full_644399362_1431422384নিউচ ডেস্ক : সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার সোনাবাড়িয়া ইউনিয়নে এক গৃহবধূকে গাছে দড়ি দিয়ে বেঁধে নির্যাতন করা হয়েছে।

গত বুধবার সকালে এ ঘটনা ঘটে।

ওই গৃহবধূ তিন ছেলের মা। তাঁর স্বামী ও বড় ছেলে ঢাকায় রিকশা চালান। ছোট দুই ছেলে কলারোয়ায় হোটেলের কর্মচারী। তিনি (গৃহবধূ) মাঝেমধ্যে অন্যের জমিতে দিনমজুর হিসেবে খাটেন। বাড়িতে তিনি একাই থাকেন বলে জানিয়েছেন প্রতিবেশীরা।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বুধবার সকালে ওই গৃহবধূ নিজেদের জমির সীমানা মাপছিলেন। আর এতেই বাদ সাধেন সাবিরুল সর্দার নামের এক প্রতিবেশী। প্রথমে বাকবিতণ্ডা, পরে মারপিট। এরপর ‘দেখাচ্ছি মজা’ বলেই দরিদ্র গৃহবধূকে ধরে রাখলেন সাবিরুল। চিৎকার দিয়ে বললেন, ‘গরুর দড়ি নিয়ে আয়।’

পরে কয়েকজনের সহযোগিতায় গৃহবধূকে বাড়ির নারকেল গাছের সঙ্গে বেঁধে রাখেন সাবিরুল। একই সঙ্গে লাঠি দিয়ে মারধর করে নির্যাতন চালানো হয় তাঁর ওপর।

এক ফালি জমি নিয়ে ওই গৃহবধূর পরিবারের সঙ্গে বিরোধ চলছিল সাবিরুলের। এর জের ধরেই সাবিরুল তাঁকে মারধর করেন।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে সোনাবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম জানান, জমি মাপা নিয়ে বাকবিতণ্ডার একপর্যায়ে সৌদ সরদারের ছেলে সাবিরুল ওই গৃহবধূকে মারধর করে। সাবিরুল ও তাঁর লোকজন গৃহবধূর বাড়িঘর ভেঙে ফেলে।

ইউপি চেয়ারম্যান আরো জানান, মার খেয়ে  ও অপমানিত হয়ে গৃহবধূ বাড়ি থেকে বের হয়ে থানা পুলিশে অভিযোগ করতে চেয়েছিলেন। বাড়ি থেকে বেরও হন তিনি। সাবিরুল বুঝতে পেরে তাঁকে ফের ধরে আনেন। চিৎকার করে বলেন, ‘দড়ি নিয়ে আয়। থানায় যাবার মজা দেখাচ্ছি। ওর জমিও খাওয়াব চিরদিনের মতো।’

চেয়ারম্যান জানান, এরপরই ওই গৃহবধূকে দড়ি দিয়ে নারকেল গাছের সঙ্গে বেঁধে ফেলেন সাবিরুল। পরে লাঠি এনে তাঁকে বারবার আঘাত করেন। রোজাদার গৃহবধূ একপর্যায়ে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। তখন তাঁর পায়ে গরুর দড়ি পরিয়ে গাছের সঙ্গে বেঁধে রাখা হয়। এভাবেই তাঁর ওপর চলে নির্যাতন।

চেয়ারম্যান আরো জানান, গ্রামবাসীর কাছে খবর পেয়ে বিষয়টি তিনি কলারোয়া থানায় অবহিত করেন। তিনি নির্যাতনকারী সাবিরুলসহ অন্যদের কঠোর শাস্তি দাবি করেন।

কলারোয়া  থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু সালেহ মাসুদ করিম জানান, তিনি খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে গৃহবধূকে উদ্ধার করেন। পরে তাঁকে কলারোয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এখনো সেখানেই চিকিৎসাধীন আছেন ওই গৃহবধূ।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: