সর্বশেষ আপডেট : ৪ ঘন্টা আগে
মঙ্গলবার, ২৭ জুন, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ আষাঢ় ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ভূমিকম্প পরবর্তী উদ্ধারে প্রস্তুতি নিচ্ছে সরকার

indexfনিইজ ডেস্ক : ভূমিকম্প পরবর্তী অনুসন্ধান ও উদ্ধার তৎপরতার জন্য ৬৯ কোটি টাকার যন্ত্রপাতি সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের কাছে হস্তান্তর করেছে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়।  ইতোমধ্যে ১০০ কোটি টাকার তাঁবু কেনা হয়েছে। এছাড়া উদ্ধার তৎপরতার জন্য আরও ১৭০ কোটি টাকার যন্ত্রপাতি কেনা প্রক্রিয়াধীন।

আজ বুধবার দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. শাহ্ কামালের সভাপতিত্বে মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় ভূমিকম্প সম্পর্কে সচেতনতা বিষয়ে করণীয় ও সরকারের প্রস্তুতিমূলক এসব তথ্য উপস্থাপন করা হয়।

সভায় বলা হয়, ভূমিকম্পে করণীয় নির্ধারণসহ জনসচেতনতা সৃষ্টির উদ্দেশ্যে সারাদেশে প্রতিটি জেলায় সরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরিজীবীসহ সর্বস্তরের পেশাজীবী, এনজিও কর্মী, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সব শিক্ষার্থী, স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানের জনপ্রতিনিধিসহ সর্বস্তরের জনগণকে সম্পৃক্ত করে একযোগে ভূমিকম্প সচেতনতা বিষয়ক মহড়া প্রতিটি জেলায় অনুষ্ঠিত হয়েছে।

তাছাড়া ঢাকা মহানগরীকে বিভিন্ন জোনে বিভক্ত করে ৮টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ভূমিকম্পে করণীয় সম্পর্কে মহড়া আয়োজন করা হয়েছে। আগামী ১৩ অক্টোবর আন্তর্জাতিক দুর্যোগ প্রশমন দিবস উপলক্ষে সারাদেশে একসঙ্গে ভূমিকম্পে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে মহড়া আয়োজনের উদ্যোগ নেয়া হবে।

ভূমিকম্পে করণীয় বিষয়ে সভায় যেসব সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে সেগুলো হচ্ছে, কোর কাটিং মেশিন এবং বিল্ডিং স্ক্যানার মেশিন সংগ্রহপূর্বক ফায়ার সার্ভিস এবং সিভিল ডিফেন্সের কাছে হস্তান্তর; ফায়ার সার্ভিস এবং সিভিল ডিফেন্সকে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের আওতায় আনতে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ; ভবন মালিকরা সরকারের নিযুক্ত সার্টিফাইড এজেন্সির মাধ্যমে ভবন পরীক্ষা-নিরীক্ষা করিয়ে ভবনের উপযুক্ততা সম্পর্কে সনদ রাজউকে জমা প্রদানের বিষয়ে জনসাধারণকে সচেতন করা; নির্দিষ্ট মাত্রার ভূমিকম্পে গ্যাস সংযোগ যাতে স্বয়ংক্রিয়ভাবে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় সেজন্য সারাদেশে গ্রাহক পর্যায়ে গ্যাস লাইনের সেন্সর লাগানোর ব্যবস্থা গ্রহণ; ভবনের নকশা অনুমোদনকারী কর্তৃপক্ষ নকশা অনুযায়ী মাটি পরীক্ষাপূর্বক ভবন নির্মাণ কার্যক্রম তদারকির প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা করা; ভূমিকম্পে ঝুঁকিপূর্ণ ভবন চিহ্নিতকরণসহ তা ভেঙে ফেলার জন্য দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়, আরকিওলজিক্যাল ডিপার্টমেন্ট, ফায়ার সার্ভিস এবং সিভিল ডিফেন্স, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দুর্যোগ বিজ্ঞান ও ব্যবস্থাপনা বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইডিএমভিএস এবং বুয়েটের সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং ডিপার্টমেন্টের একজন করে প্রতিনিধি সমন্বয়ে সেল গঠন করা।

সভায় বুয়েটের অধ্যাপক মেহেদী আলম আনসারী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দুর্যোগ বিজ্ঞান ও ব্যবস্থাপনা বিভাগের অধ্যাপক মাকসুদ কামাল, জ্বালানি ও খনিজ  সম্পদ বিভাগের উপসচিব ড. মহম্মদ শের আলী ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইডিএমভিএস বিভাগের অধ্যাপক ড. মাহবুবা নাসরিন উপস্থিত ছিলেন।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: