সর্বশেষ আপডেট : ৫ মিনিট ৫ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ভালো ছবির জন্য সময় লাগে : মালেক আফসারী

Untitled-4 copyনিউজ ডেস্ক : মালেক আফসারী ছেড়ে দেওয়ার পর ‘রক্ত’ ছবিটি পরিচালনা করছেন ওয়াজেদ আলী সুমন। মালেক আফসারী চেয়েছিলেন ৬০ দিনে ছবিটির শুটিং শেষ করতে।কিন্তু এটি নিয়েই পরিচালক আফসারীর সাথে মতানৈক্য হয় প্রযোজনা সংস্থা জাজ মাল্টিমিডিয়ার। শুটিংয়ের জন্য ৬০দিন দিতে তারা নারাজ, তাই ছবিটি থেকে সরে দাঁড়ান আফসারী। তার পরিবর্তে ছবির হাল ধরেন ওয়াজেদ আলী। তিনি ছবিটির শুটিং ৪০ দিনে শেষ করে দেওয়ার চ্যালেঞ্জটি নেন। এই ৪০ দিনের মধ্যে ছবির ফাইটিং দৃশ্যের জন্য বরাদ্দ ২২ দিন, গান ৮দিন আর অভিনয় দৃশ্যের জন্য ১০ দিন বরাদ্দ করা হয়েছে। গত ৫ জুন থেকে কলকাতায় ছবির শুটিং শুরু হয়েছে।

‘রক্ত’ ছবি থেকে নিজের সরে দাঁড়ানো সম্পর্কে গত ৪ জুন ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেন মালেক আফসারী। তিনি লেখেন, ‘আমি যেকোনো ছবি শুটিং শুরু করার চার-পাঁচ মাস আগে থেকেই  হোম ওয়ার্ক শুরু করি, যেমন দেখেন ‘অন্তর জ্বালা’ শুরু করার আগে জায়েদ খানের গেটাপ নিয়ে ভেবেছি, ওর চুল দাড়ি বড় করিয়েছি, রোদে ওর গা পুড়িয়েছি তারপর পিরোজপুরে ক্যামেরা অন করেছি…, একটানা ৫৯ দিন শুটিং করে ঢাকায় ফিরেছি… ,এখন যাব কক্সবাজারে আরো  ১৫ দিন শুটিং করলেই শেষ হবে ‘অন্তর জ্বালা’, তার মানে ৭৫ দিন লেগে গেল।’

‘আমার লাস্ট মুভি ‘হার্ট বিটে’র  ফুল অ্যান্ড ফাইনাল হতে লেগেছে ৮২ দিন, আর ‘মনের জ্বালা’য়  ১০২ দিন, সিনেমার সবাই জানে আমার নিজের প্রোডাকশন থেকে ‘ধনী গরিব’, ‘ক্ষতি পূরণ’, ‘ক্ষমা’, ‘বোমা হামলা’, ‘ঠেকাও মাস্তান’, ‘উল্টা পাল্টা’, ‘মরণ কামড়’, ‘ঘৃণা’, ‘এই ঘর এই সংসার’-এর  মতো ছবিগুলো ৮০ থেকে ৯০ দিনে কাজ শেষ করেছি এবং আমার এই ছবিগুলো সুপার ডুপার হিট, আমি ঠোকাই (টোকাই) ছবি বানাই না, না, না। ভালো ছবির জন্য সময় লাগে, ‘অন্তর জ্বালা’ দিয়ে তার প্রমাণ দেব আবার ….. ইনশাআল্লাহ্।’

এর আগে ‘রক্ত’ ছবি থেকে সরে দাঁড়িয়ে ঢাকায় ফিরে গত ২৯ মে ফেসবুক স্ট্যাটাসে একটি ছবি আপ করেন আফসারী। সেই ছবিতে জাজ মাল্টিমিডিয়ার কর্ণধার আবদুল আজিজসহ ‘রক্ত’ ছবির অনেকেই উপস্থিত ছিলেন। ছবির সঙ্গে স্ট্যাটাসে পরিচালক আফসারী লিখেছিলেন, “এখানে যাদের দেখছেন উনারা সবাই মিলেমিশে ঠিক করেন ‘রক্ত’ ছবি শেষ করতে ৬০ দিন সময় লাগবে। শুটিংয়ে যাওয়ার চার দিন আগে হঠাৎ আমাকে বলা হলো ৬০ দিন না ৩৭ দিনে ছবি শেষ করতে হবে,

hummmmmmmmmmm আমি বললাম ফাইট মাস্টার চান ২২ দিন, আর ডান্স মাস্টার চান ৮ দিন তার মানে ৩০ দিন  চলে গেল, হাতে রইল সাতদিন এই সাতদিনে কী করে সম্ভব  বাকি ছবিটা শেষ করা !!!??? পরে আমাকে আরো তিন দিন দেওয়া হয়, মোট দাঁড়াল ৪০ দিন, আমি উনাদের প্রশ্ন করি এতে কি ছবিটা শেষ করা সম্ভব ???? এর উত্তর আমি পাইনি, পেয়েছি প্লেনের বিজনেস ক্লাসের একটি টিকিট…, সম্মানসহ বিদায়, আমার বিশ্বাস একবার ক্যামেরার পেছনে দাঁড়াবার সুযোগ পেলে সবার ভালোবাসা আমি পেতাম।”

একই স্ট্যাটাসে আফসারী দাবি করেন, ভালো ছবি করেন বলেই এর আগে প্রযোজকরা তাঁকে দিয়ে দ্বিতীয় ছবিটি করিয়ে নিয়েছেন।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: