সর্বশেষ আপডেট : ২ মিনিট ৩৯ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

এবার রোজা রাখতে হবে ১১ ঘণ্টা থেকে ২২ ঘণ্টা

alaska-bg20160606201927ডেইলি সিলেট ডেস্ক::
আত্মশুদ্ধির বার্তা নিয়ে বছর ঘুরে ফিরে আসে পবিত্র রমজান মাস। প্রতিটি মুসলমানের আত্মার পরিশুদ্ধতার মাস এই রমজান। কিন্তু সেই রোজাই কারো কারো জন্য হয়ে ওঠে অপেক্ষাকৃত কঠিন, কারো জন্য অনেক সহজ। রোজা পালন সে তো সূর্যের অবস্থানের ভিত্তিতে। সূর্যোদয়ের আগেই খেয়ে নিতে হবে সেহরি। আর ইফতার করতে হবে সূর্যাস্তের পর। এর মাঝে নেই কোনো খাদ্য গ্রহণের সুযোগ। তার পরও মুসলমানরা আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জনের নিমিত্তে রোজা পালন করে থাকেন।

বিশ্বের কোনো কোনো দেশে ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের ইফতারের দু’ঘণ্টা পরই সেহরি খেতে হয়৷ অর্থাৎ তাদের জন্য রোজা ২২ ঘণ্টার৷ চলুন দেখে নেওয়া যাক, বিশ্বের কোন দেশগুলোতে মুসলমানদের সবচেয়ে লম্বা সময়ের রোজা রাখতে হয়৷

উত্তর গোলার্ধের মুসলমানদের বিগত ৩০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে দীর্ঘ সময়ব্যাপী রোজা পালন করতে হবে। চাঁদ দেখা সাপেক্ষে ওই অঞ্চলে সোমবার থেকে পবিত্র রমজান মাস শুরু হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। গত বছরও এমন দীর্ঘ সময় তাদের রোজা পালন করতে হয়েছিল। তাই ওই অঞ্চলের মুসলমানরা দীর্ঘ রোজাকে তাদের জীবনের অভিজ্ঞতার অবিচ্ছেদ্য অংশ হিসেবেই গ্রহণ করেছেন।

এসব সত্ত্বেও মুসলমানরা রোজা রাখতে বদ্ধপরিকর। এটা কঠিন মনে হলেও রোজা রাখা আসলে সহজ। এবার আসুন দেখি সবচেয়ে লম্বা সময়ের রোজা হবে যেসব দেশে।

আইসল্যান্ড: ২২ ঘণ্টা
উত্তর ইউরোপের একটি দ্বীপরাষ্ট্র আইসল্যান্ড। দেশটি মোট জনসংখ্যা সাড়ে ৩ লাখের মতো। এর মধ্যে মুসলমান ১ হাজারের কিছু বেশি। এখানকার মুসলমানরা রোজা পালনের ক্ষেত্রে বিশ্বের সব ধর্মপ্রাণ মুসলমানকে ছাড়িয়ে যান। তারা সবচেয়ে বেশি লম্বা সময় রোজা রাখেন। আইসল্যান্ডে এবার সেহরি খেতে হচ্ছে রাত দু’টো ৮ মিনিটে আর ইফতার হয় পরের দিন রাত পৌনে ১২ টায়৷ সেহরি থেকে ইফতার পর্যন্ত কত ঘণ্টা হলো? ২২ ঘণ্টার মাত্র বিশ মিনিট কম!

সুইডেন: ২০ ঘণ্টা
খুব গরমের মধ্যে রোজা হলে সুইডেনের মুসলমানদের কষ্টের সীমা থাকে না৷ দেশটির সাড়ে ৫ লাখ মুসলমানের মধ্যে যারা রোজা রাখেন, তাদের ইফতারের মাত্র চার ঘণ্টা পরই সেহরি খেতে হয়৷ উল্টো দিক থেকে ভাবলে কষ্টটা বুঝতে পারবেন৷ সুইডেনের মুসলমানদের অনেক দিন সেহরির ২০ ঘণ্টা পর ইফতার খেতে হয়৷ সুইডেনবাসীর প্রথম সেহরির শেষ সময় রাত ১টা ৫৫ মিনিট। আর ইফতারের সময় পরের দিন রাত ৯টা ৫৯ মিনিট। সবমিলিয়ে তাদের রোজা রাখতে হচ্ছে ২০ ঘন্টা ৪ মিনিট।

আলাস্কা: ১৯ ঘণ্টা ৪১ মিনিট
যুক্তরাষ্ট্রের আলাস্কার মুসলমানের মধ্যে কেউ কেউ আজকাল সৌদি আরবের সঙ্গে মিলিয়ে সেহরি আর ইফতার করতে শুরু করেছেন৷ কারণ একেতো তীব্র গরম, তার ওপর অনেক লম্বা সময় ধরে রোজা রাখা! যদিও তাদের এ পন্থা অবলম্বনকে ইসলামি স্কলাররা অনুমোদন দেননি বা ইসলামি শরিয়ত এটাকে অনুমোদন দেয় না। আলাস্কা ৩ হাজার মুসলমানকে রোজা পালনের জন্য রাত ৩টা ৫০ মিনিটে সেহরি খেয়ে পরের দিন রাত ১১ টা ৯ মিনিটে ইফতার করতে হয়। পুরো ১৯ ঘন্টা ৪১ মিনিটের রোজা রাখা কষ্টকর বিধায় তারা এমনটি করছেন।

জার্মানি: ১৮ ঘণ্টা ৫৩ মিনিট
রমজান মাসের সময় দিন খুব বড় হলে জার্মানির মুসলমানদেরও রোজা রাখতে ভীষণ কষ্ট হয়৷ এ বছর জার্মানিতে মুসলমানদের সেহরি খেতে হচ্ছে রাত ২টা ৩৩ মিনিটে আর ইফতার রাত ৯টা ২৬ মিনিটে। রোজার মোট সময় ১৮ ঘন্টা ৫৩ মিনিট।

ইংল্যান্ড: ১৮ ঘণ্টা ৪৫ মিনিট
যুক্তরাজ্যের মধ্যে সবচেয়ে দীর্ঘ সময় রোজা থাকতে হবে স্কটিশ হাইল্যান্ডস ও আয়ল্যান্ডের বাসিন্দাদের। এখানে সূর্য অস্ত যায় না বললেই চলে। যেটা হয় তা হলো- গোধূলি। গড়ে তাদের রোজা রাখতে হবে ১৮ ঘন্টা ৪৫ মিনিট। প্রথম রোজার সেহরির শেষ সময় রাত আড়াইটায় আর ইফতার রাত সোয়া ৯টায়। গত বছর এত দীর্ঘ সময় রোজার প্রেক্ষিতে মুসলিম কাউন্সিল অফ ব্রিটেন নামের একটি সংগঠন দীর্ঘ সময়ের রোজা রাখার বিষয়টি নিয়ে আলেম-উলামাদের ভেবে দেখার আহবান জানিয়েছিলেন। সংগঠনটির আশঙ্কা ছিল, এত লম্বা সময় রোজা রাখলে অনেকে অসুস্থ হয়ে পড়তে পারেন৷ বিশেষ করে ডায়বেটিসে আক্রান্তদের প্রাণহানির শঙ্কাও দেখা দিতে পারে৷ ব্রিটেনে প্রায় ৩০ লাখের মতো মুসলমান আছে৷ এর মধ্যে ৩ লাখের বেশি ডায়বেটিসে আক্রান্ত৷

কানাডা: ১৭ ঘণ্ট ১০ মিনিট
সর্বশেষ ২০১১-এর জনসংখ্যা গণনায় দেখা যায়, কানাডায় মুসলিম অধিবাসীর সংখ্যা ১০ লাখের বেশি। যা কানাডার মোট জনসংখ্যার ৩ দশমিক ২ শতাংশ। মুসলিমরা কানাডায় খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীদের পরেই দ্বিতীয় বৃহত্তম ধর্মীয় সম্প্রদায়। জরিপে বলা হয়েছে, কানাডায় মুসলিমদের সংখ্যা ক্রমবর্ধমান হারে বাড়ছে এবং ২০৩০ সাল নাগাদ মুসলিম অধিবাসীর সংখ্যা বর্তমান সংখ্যার তিন গুণ হবে। কানাডার টরেন্টোতে সবচেয়ে বেশি মুসলমানের বাস। এবার কানাডার মুসলমানদের রোজা রাখতে হবে ১৭ ঘন্টা ১০ মিনিট। প্রথম রোজায় তাদের সেহরির শেষ সময় রাত ৪টা ১২ মিনিটে আর ইফতার রাত ৯টা ২২ মিনিটে।

তুরস্ক: ১৬ ঘন্টা ৫৭ মিনিট
মুসলিম প্রধান দেশ তুরস্কে এবার সেহরির প্রায় সাড়ে ১৭ ঘণ্টা পর ইফতার করতে হচ্ছে ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের৷ সেখানে রাত ৩টা ১৯ মিনিটে সেহরি খেয়ে পরের দিন রাত ৮টা ১৬ মিনিটে ইফতার করতে হচ্ছে।

এবার সবচেয়ে অল্প সময়ের রোজা পালন করতে হবে অস্ট্রেলিয়ার মুসলমানদের। তাদের রোজার ব্যাপ্তি মাত্র ১১ ঘন্টা ২৪ মিনি। চিলিতে রোজার মোট সময় ১১ ঘন্টা ৩০ মিনিট।

এবার বাংলাদেশের মুসলমানদের রোজা রাখতে হবে ১৫ ঘন্টার বেশি সময়। ৭ জুন প্রথম সেহেরির হলে রাত ৩টা ৪৪ মিনিটে খাওয়া শেষ করে পরের দিন সন্ধ্যা ৬টা ৪৫ মিনিটে ইফতার করতে হবে। মোট সময় ১৫ ঘন্টা ১ মিনিট।

অনদিকে সৌদি আরবে রোজা রাখতে হবে ১৪ ঘন্টা ৫৩ মিনিট, জিম্বাবুয়ের মুসলমানরা রোজা রাখবেন ১২ ঘন্টা ২৪ মিনিট।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: