সর্বশেষ আপডেট : ২ মিনিট ৪৮ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

‘মা এসেছে, আমাকে তার কাছে নিয়ে যাও’

218604_1নিউজ ডেস্ক: ছেলে মাহিরের পড়াশোনার ক্ষতি হবে ভেবে একাধিকবার পরিকল্পনা করেও বাবার বাড়ি রাজধানীর খিলগাঁওয়ের মেরাদিয়া ভূঁইয়াপাড়ায় যেতে পারছিলেন না পুলিশ কর্মকর্তা বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু। সর্বশেষ জানুয়ারিতে এসেছিলেন তিনি। তবে কয়েক দিন ধরে তিনি বাবা-মায়ের কাছে ফোন করে জানিয়েছিলেন, শিগগিরই আবার আসবেন। অবশেষে আসলেন, তবে লাশ হয়ে!-সমকাল।

রোববার রাত ১০টার দিকে অ্যাম্বুলেন্সে করে ভূঁইয়াপাড়ায় ২২০/এ নম্বর বাড়ির আঙিনায় যখন মাহমুদার নিথর দেহ এসে পৌঁছায়, মিতুর বাবা সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা তখন মোশারফ হোসেন বারান্দায় বসে ছিলেন। মেয়ের লাশ পৌঁছামাত্র আবেগআপ্লুত হয়ে পড়েন তিনি।

কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলতে থাকেন, ‘আমার মা এসেছে। আমাকে তার কাছে নিয়ে যাও। আমার মেয়ে তো কোনো অপরাধ করেনি। সে তো কারও ক্ষতি করেনি। তাহলে কেন তার এই পরিণতি। কখনও শুনিনি, পুলিশ কর্মকর্তার স্ত্রীকে খুন করা হয়েছে। আমার মেয়ের ভাগ্যেই কেন এমন লেখা ছিল।’ এ সময় বারবার মূর্ছা যাচ্ছিলেন অবসরে যাওয়া ওই পুলিশ কর্মকর্তা।

মিতুর মরদেহ তাদের দোতলা বাড়ির ভেতরে নিয়ে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তার মা স্বামী মোশারফ হোসেনকে জড়িয়ে ধরে হাউমাউ করে কেঁদে ওঠেন। কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলতে থাকেন, ‘একটি বার আমার সোনা মায়ের মুখটা দেখতে দাও। আমার মেয়ের কী অপরাধ? এমন নিষ্পাপ মেয়েটাকে ওরা মেরে ফেলতে পারল?’

মিতুর স্বামী পুলিশ কর্মকর্তা বাবুল আক্তারও তখন স্বজনদের জড়িয়ে ধরে করে কাঁদছিলেন। এ সময় সৃষ্টি হয় এক হৃদয়বিদারক দৃশ্যের। আশেপাশের কেউই চোখের পানি ধরে রাখতে পারেননি। কেউ যেন কাউকে সান্ত্বনা দেওয়ার ভাষা পাচ্ছিলেন না।

রোববার সকালে বাসার কাছে চট্টগ্রামের পাঁচলাইশ থানাধীন জিইসি মোড়ের ওয়েল ফুডের কাছাকাছি এলাকায় খুন হন পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু। রাত ১০টার দিকে মিতুর মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় বাবার বাড়ি ভূঁইয়াপাড়ার। রাত ১১টার দিকে স্থানীয় বায়তুল ফালাহ জামে মসজিদের সামনে জানাজা হয়। তার স্বজন ও প্রতিবেশীদের সঙ্গে পুলিশ কর্মকর্তারাও জানাজায় অংশ নেন। এরপর মেরাদিয়া কবরস্থানে তার মরদেহ দাফন করা হয়।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: