সর্বশেষ আপডেট : ৪ ঘন্টা আগে
বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বাবুল আক্তারের মামলা দায়ের, চারজন পুলিশ হেফাজতে

42নিউজ ডেস্ক :: মাহমুদা খানম ওরফে মিতু আক্তারের হত্যাকাণ্ডের ২৪ ঘণ্টা পর নগরীর পাঁচলাইশ থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। মামলার বাদি হয়েছে মিতুর স্বামী পুলিশ সুপার বাবুল আক্তার নিজেই। এছাড়া হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য চারজনকে নিজেদের হেফাজতে নিয়েছে নগর পুলিশ।

সিএমপি কমিশনার মো.ইকবাল বাহার সোমবার (০৬ জুন) দুপুরে এসব তথ্য জানিয়েছেন।

এর আগে গত (রোববার) রাতে পাঁচলাইশ থানার উপ-পরিদর্শক (এস আই) ত্রিরতন বড়ুয়াকে বাদি করে মামলার একটি এজাহার তৈরি করা হলেও এবং দায়েরের সমস্ত প্রক্রিয়া শেষ হলেও উর্দ্ধতন পর্যায়ের নির্দেশে শেষ পর্যন্ত মামলাটি হয়নি বলে জানিয়েছেন নগর পুলিশের সহকারি কমিশনার (পাঁচলাইশ জোন) আসিফ মহিউদ্দিন।

তিনি জানিয়েছেন, শেষ মুহুর্তে পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারকে মামলার বাদি করার সিদ্ধান্ত হওয়ায় মামলার নম্বর আর দেয়া হয়নি।

সোমবার দুপুরে সিএমপি কমিশনার বলেন, বাবুল আক্তার বাদি হয়ে মামলা করেছে। মামলার তদন্তভার নগর গোয়েন্দা পুলিশকে (ডিবি) দিয়েছি। অন্যান্য সব সংস্থার সদস্যরা ডিবিকে সহযোগিতা করবে।

এদিকে সোমবার ঢাকায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বাবুল আক্তারের স্ত্রী হত্যার ঘটনায় চারজনকে আটক করা হয়েছে বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।

বিষয়টির প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করলে সিএমপি কমিশনার ইকবাল বাহার বলেন, ‘আমি কাউকে আটক করেছি এটা বলতে পারবনা। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য চারজনকে আমরা এনেছি। জিজ্ঞাসাবাদ করে যদি তাদের আটকের প্রয়োজন হয় তখন বলব আটক করেছি। ’

চারজনের পরিচয় জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ বিষয়ে এখনই আমরা কিছু বলব না। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে যদি আটকের প্রয়োজন হয় তখন বিস্তারিত বলব।

চট্টগ্রাম নগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনারের দায়িত্বে থাকা বাবুল আক্তার জঙ্গি দমনে ব্যাপক সাফল্য অর্জন করেছিলেন। সম্প্রতি পুলিশ সুপার হিসেবে পদোন্নতি পাবার পর বাবুল আক্তার পুলিশ সদর দপ্তরে সংযুক্ত হয়েছিলেন। এজন্য তিনি চট্টগ্রাম ছেড়েছিলেন।

চট্টগ্রাম ছাড়ার একদিনের মাথায় রোববার (০৫ জুন) ভোরে বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম ওরফে মিতু আক্তারকে (৩২) ছুরিকাঘাত ও গুলি করে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। প্রকাশ্য দিবালোকে একজন পুলিশ সুপারের স্ত্রী খুন হওয়ার ঘটনা নাড়া দিয়েছে সবাইকে।

ঘটনার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে পুলিশ হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত মোটর সাইকেলটি উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছে।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: