সর্বশেষ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে
শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বিশ্বনাথে বাজারে টাকা উত্তোলন নিয়ে দু’পক্ষের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া : আহত ৫

daily-sylhet-ahota-news111বিশ্বনাথ প্রতিনিধি : সিলেটের বিশ্বনাথে উপজেলা সদরের নতুনবাজারে তুলার (ইজারার) টাকা উত্তোলনকে কেন্দ্র করে রোববার রাত ৯টায় দু’পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও ইট-পাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘঠেছে। বিশ্বনাথ বাজারের ইজারাদার সুন্দর আলী গং ও নতুনবাজার ক্ষুদ্র সবজি ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আইয়ুব আলী গংদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনাটি ঘটে। এতে পথচারীসহ উভয় পক্ষে প্রায় ৫ জন আহত হয়েছেন। আহতরা হলেন সুন্দর আলী, আজব আলী, সেলিম আহমদ, জয়নাল আবেদীন, পথচারী মুসলিম আলী। এলাকার মুরব্বী ও বণিক সমিতির হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আসে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে ইজারাদারদেরকে তুলার টাকা হিসেবে নতুনবাজারের ক্ষুদ্র সবজি ব্যবসায়ীরা জনপ্রতি ৫ টাকা করে দিয়ে আসছিলেন। সম্প্রতি বাজারের ইজারাদাররা তুলার টাকা ৫ টাকা থেকে বাড়িয়ে ১০ টাকা করেছেন। রোববার রাতে তুলার টাকা বৃদ্ধি নিয়ে বাজারের ইজারাদার সুন্দর আলী ও নতুনবাজার ক্ষুদ্র সবজি ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আইয়ুব আলীর মধ্যে বাগবিতন্ডা হয়। বাগবিতন্ডার জের ধরে দু’পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও ইট-পাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে।
বিশ্বনাথ নতুনবাজার ক্ষুদ্র সবজি ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আইয়ুব আলী সাংবাদিকদের বলেন, বাজারের ইজারাদার কর্তৃক তুলার (ইজারা) টাকা অতিরিক্ত হারে (৫ টাকা থেকে ১০ টাকা) বৃদ্ধির প্রতিবাদ করি আমরা (সবজি সমিতি)। এরই জের ধরে তারা (সুন্দর গং) আমাদের উপর হামলা করেছে।

বিশ্বনাথ নতুনবাজার বণিক কল্যাণ সমিতির সভাপতি শামীম আহমদ বলেন, আজ (রোববার) সকালে উপজেলার ৫২ মৌজার মুরব্বীদের উপস্থিতিতে বাজারে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেই সভায় আমি (শামীম) ইজারাদার সুন্দর আলীর পিতা ও বনিক সমিতির সাবেক সভাপতি মবশ্বির আলীর কাজে থাকা সমিতির ফান্ডের ৩ লাখ টাকা ও নতুন বাজার মাছহাটার নিচে ও পার্শ্বে স্থাপিত ১২টি দোকান কোঠার প্রতিটি থেকে ৫ লাখ টাকা করে উত্তোলন করা ৬০ লাখ টাকা’সহ মোট ৬৩ লাখ টাকার হিসাব বুঝে পাইনি বলে উত্তাপন করি। সেই সাথে এলাকার মুরব্বীদের কাছে বিচার প্রার্থী হই এই টাকাগুলোর ব্যাপারে। আর এরই জের ধরে সবজি বাজারকে কেন্দ্র করে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।

বাজারের তুলার টাকা বৃদ্ধি করা হয়নি দাবি করে বিশ্বনাথ বাজারের ইজারাদার সুন্দর আলী সাংবাদিকদের বলেন, প্রায় ৩ বছর ধরে তুলার টাকা হিসেবে সবজি বাজারের ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে জনপ্রতি ১০ টাকা করে উত্তোলন করা হচ্ছে। আমার পিতার উপর মিথ্যা, বানোয়াট ও উদ্যোশ্য প্রনোদিতভাবে অভিযোগ উত্তাপন করা হয়েছে। সমিতির বা দোকান বিক্রির কোন টাকা আমার পিতার কাছে নেই। এমনকি আমার পিতা মসজিদ কমিটিরও কোন দায়িত্বশীল ব্যক্তি ছিলেন না কিংবা এখনও নেই। বাজারের তুলা টাকায় জোরপূর্বকভাবে ‘আইয়ুব আলী ও শামীম আহমদ’ ভাগ দাবি করে আসছে। আমরা এর প্রতিবাদ করায় তারা আমাদের উপর হামলা করেছে।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: