সর্বশেষ আপডেট : ৫৯ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

উত্তরায় সেনা কর্মকর্তার মাকে গলা কেটে হত্যা

1নিউজ ডেস্ক :: রাজধানীর উত্তরায় সেনাবাহিনীর কর্মকর্তা কর্ণেল খালেদ বিন ইউসুফের বাসায় তার মাকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। নিহত ওই নারীর নাম মনোয়ারা সুলতানা (৬৪)।

গত শনিবার গভীর রাতে পুলিশ খবর পেয়ে উত্তরা ৯ নম্বর সেক্টরের ১ নম্বর রোডের পঞ্চম তলা বাড়ির দ্বিতীয় তলা থেকে মনোয়ারার লাশ উদ্ধার করে। গতকাল রোববার ময়না তদন্তের জন্য লাশটি ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

তদন্তের স্বার্থে পুলিশ ওই বাসার পাঁচ ভাড়াটিয়াকে আটক করেছে। আটকরা হচ্ছেন- ভবনের নীচ তলার বিউটি পার্লালের মালিক এমি ও তার স্বামী অপু, তৃতীয় তলার ভাড়াটিয়া লাবন্য ও তার ছেলে।

উত্তরা থানার এসআই মো. মামুন মিয়া জানান, মনোয়ারার ছেলে কর্ণেল খালেদ বিন ইউসুফ চট্টগ্রাম ক্যান্টনমেন্টে কর্মরত। তিন ছেলের মধ্যে বড় ছেলে ইকবাল ইবনে ইউসুফ অস্ট্রেলিয়ায় ও ছোট ছেলে আরমানা ইবনে ইউসুফ আমেরিকায় থাকেন।

মনোয়ারা বেগম উত্তরার বাসায় একাই থাকতেন। শনিবার রাতে মনোয়ারা বেগমের সাড়া না পেয়ে ভবনের নিচ তলার ভাড়াটিয়া কর্নেল খালেদ ইবনে ইউসুফকে ফোন করে বিষয়টি জানান। পরে স্বজনরা মনোয়ারা সুলতানাকে ফোন করে কোনো সাড়া না পেয়ে থানা পুলিশকে তা অবহিত করে।

গতকাল ভোরে পুলিশ বাসার দরজা ভেঙে মনোয়ারা বেগমের লাশ উদ্ধার করে। তার গলাকাটা ছাড়াও মুখমণ্ডল ও শরীরের বিভিন্ন অংশে ধারালো অস্ত্রের চিহ্ন রয়েছে। বাসার ড্রইং রুমের সোফাসেটে বসানো অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করা হয়। ঘরের ভেতর বিভিন্ন আসবাবপত্র এলোমেলোভাবে পড়ে ছিল।

নিহত মনোয়ারা বেগমের ভাই মির্জা আজম বেগ বলেন, তার বোনের সঙ্গে একজন গৃহ পরিচারিকা থাকতো। গত ৩-৪ দিন ধরে সে অনুপস্থিত ছিল। তার অনুপস্থিতিতে ওই ভবনের ৪ তলার এক ভাড়াটিয়া তাকে খাবার দিতেন। ভাড়াটিয়া নিজে অথবা কারও সহায়তায় খাবারের সঙ্গে বিষ মিশিয়ে ও জবাই করে মনোয়াকে হত্যা করতে পারে বলে তার ধারণা।

তিনি আরো বলেন, মনোয়ারা বেগম দীর্ঘদিন ধরে তার স্বামীর সঙ্গে সৌদি আরবে ছিলেন। সেখানে থাকা অবস্থায় অনেক স্বর্ণালঙ্কার কিনেছেন তিনি। মসজিদ বানানোর জন্য গত কয়েক বছর ধরে তিনি আরো স্বর্ণ জমাচ্ছিলেন। এ পর্যন্ত প্রায় ১০০ ভরি স্বর্ণ জমিয়েছেন তিনি। ৪ তলার ওই ভাড়াটিয়া স্বর্ণের বিষয়টি জানতে পেরে তাকে হত্যা করতে পারে।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: