সর্বশেষ আপডেট : ১ মিনিট ৪৩ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

অভিমানে চলে গেলো সেই ‘কন্যা’

Koyinna_BG20160605210048নিউজ ডেস্ক:: ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্স, ব্রাদার, চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী, চিকিৎসাধীন রোগীর স্বজন সবার নয়নের মণি সেই শিশুটি আর নেই।

অর্ধশত দিনের মায়া কাটিয়ে রোববার (৫ জুন) দুপুর সাড়ে ৩টায় শিশুটি চলে গেছে না ফেরার দেশে। ঢামেক হাসপাতালের ২০৫ নম্বর শিশু সার্জারি ওয়ার্ডে এখন শোকের ছায়া।

গত ১৬ এপ্রিল ঢামেক হাসপাতালে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে ফুটফুটে শিশুটির জন্ম হয়। জন্মের সময় তার কিছু শারীরিক প্রতিবন্ধকতা ছিলো। সাত দিনের মধ্যেই শিশুটির শরীরে একটি অস্ত্রোপচার করা হয়, পরে আরও একটি।

তবে কন্যা শিশু জন্ম নেওয়ায় শুরু থেকেই অসন্তুষ্ট ছিলেন শিশুটির বাবা-মা।

শিশুটির মা ওয়ার্ডে থাকা রোগীর স্বজনদের বলেছিলেন, ‘ছেলে হলেই ভালো হতো। এবারও কন্যা সন্তান। আগেও আমার মেয়ে হয়েছে। আমার স্বামী আমাকে তালাক দেবে’।

এর দুইদিন পরই শিশুটিকে হাসপাতালে ফেলে পালিয়ে যায় তার বাবা-মা।

তখন ২০৫ নম্বর শিশু সার্জারি ওয়ার্ডের ২ নম্বর বিছানায় (পর্যবেক্ষণ) ফুটফুটে কন্যার অভিভাবক হয়ে যান সবাই। হাসপাতালের ডাক্তার, নার্স, ব্রাদার, চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী, চিকিৎসাধীন রোগীর স্বজন সবাই কাজের ফাঁকে, অবসরে তাকে আদর করে, খোঁজ-খবর নেন।

এ প্রসঙ্গে শিশু সার্জারি বিভাগের বিভাগীয় অধ্যাপক ডা. মো. আশরাফুল হক কাজল, চিকিৎসাধীন অবস্থায় অনেক শিশুই মারা যায়। কিন্তু এই শিশুটিকে সবাই একটু বেশিই ভালোবাসতো।

ভর্তি ফাইলে থেকে তথ্য নিয়ে শিশুটির বাবা মনিরের সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘মেয়ের মা নিতে চায় না, আমি কি করতে পারি। এখন কারখানায় কাজ করছি, পরে কথা বলবো’।

এরপর থেকে মনিরের মোবাইল ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: