সর্বশেষ আপডেট : ২ মিনিট ১৭ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ভূতের ভয়, আর সে ভূত যদি হয় মৃত ব্যক্তি!

53প্রবাস ডেস্ক :: ভূত আর ভয়, শব্দ দু’টো যেনে একে অপরের পরিপূরক। ভূতের ভয় কে না পায়! আর সে ভূত যদি হয় মৃত ব্যক্তি! তাহলেতো ভয় না পেয়ে উপায় নেই।

এ ধরনের ভূতের ভয় থেকে আধুনিক রাষ্ট্র থাইল্যান্ডের লোকরাও (থাই) এ থেকে ব্যতিক্রম নয়। তারা বিশ্বাস করে মন্দ লোক মৃত্যুর পরে ভূত হয়ে ফিরে আসে। আর তাই ভূত প্রবেশে বাধা দিতে ঘরের মেঝে বন্ধুর (উঁচু-নিচু) করে তৈরি করে তারা।

স্থানীয় নাগরিকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, এমন মজার তথ্য। থাইদের বসবাস করার ঘরে প্রবেশের পরেই মেঝেতে সামান্য একটু উঁচু-নিচু জায়গা দেখা যাবে। কোন কারণে বে-খেয়ালে ঢুকলেই নতুন যে কাউকে সেখানে হোঁচট খেতে হবে।

ব্যাংকক ও ফুকেটের কয়েকটি বাড়ির মেঝেতে এমন অমসৃণতা কিংবা শুরুতে কিছুটা উঁচু দেখে তার কারণ জানতে গিয়ে মিলল নতুন এক তথ্য।

স্থানীয়রা জানালেন, থাইরা ভূতে বিশ্বাস করে। আর ভূত অমসৃণ স্থানে হাঁটেনা বলেও বিশ্বাস তাদের। তাই ভূত ঘরে ঢুকলেও শুরুতেই যাতে হোঁচট খায়, সে ব্যবস্থা হিসেবে ঘরে ঢোকার দিকটার মেঝের কিছু অংশ বন্ধুর রাখা হয়। যাতে সেখান থেকেই ফিরে যেতে পারে ভূত কিংবা খারাপ আত্মারা।

থাইল্যান্ডে বসবাস করেন এমন একজন বাংলাদেশির সাহায্য নিয়ে এ বিষয়ে লিসিথা নামে একজন থাই বৃদ্ধাকে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি জানান, পৃথিবীতে যারা বুদ্ধের কথা মেনে চলেনি। ধর্ম পালন করেনি, অন্যের ক্ষতি করেছে, ক্ষতি চেয়েছে-তারা মরণের পর তারা আবারও পৃথিবীতে ফিরে আসে। কারণ, স্বর্গ তাদের গ্রহণ করে না। তাই তারা পৃথিবীর মানুষকে বিরক্ত করে বেড়ায়।

এসব ভূতকে এড়িয়ে চলা বা বধ করার অনেক উপায় রয়েছে। তার মধ্যে ঘরের মেঝে বন্ধুর করা অন্যতম একটি। এছাড়া ঈশ্বরের পূঁজা করার মাধ্যমেও ভূতকে বধ করা যায় বলে মনে করেন তিনি।

তবে আধুনিকতা বিকাশের সঙ্গে সঙ্গে এসব চিন্তা-ভাবনাও বদলাচ্ছে। নতুন তৈরি ঘর, মার্কেট বা দোকান পাটে এমন বন্ধুর মেঝে লক্ষ্য করা যায়। তবে এখনো কিছু কিছু ঘরবাড়িতে এমন মেঝে দেখা যায় বলে জানান অনেকে।

এমন অনেক ধরনের কুসংস্কারই থাইদের মধ্যে দেখা গেলেও আধুনিকতাকেও তারা গ্রহণ করে দশহাতে। আর তাই পৃথিবীর বিরাট সংখ্যক পর্যটকের অন্যতম গন্তব্যের দেশ থাইল্যান্ড।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: