সর্বশেষ আপডেট : ৫ মিনিট ৮ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বলিউড নায়কদের গোপন চিত্র ফাঁস করলেন রাভিনা

full_38419707_1465035316বিনোদন ডেস্ক: সম্প্রতি বলিউড অভিনেতা হৃতিক রোশন এবং কঙ্গনা রানাউতের মধ্যে ব্যাপক আইনি লড়াই হয়েছে। এ নিয়ে বেশ সরব ছিলো বলিউড মহল। এবার বলিউড নায়িকাদের প্রতি বলিউড নায়কদের খারাপ আচরণ নিয়ে বিস্তারিত জানিয়েছেন বলিউড অভিনেত্রী রাভিনা টেন্ডন। তার লেখাটি বিস্তারিত তুলে ধরা হলো-

”আচ্ছা ‘সত্যি’টা ঠিক কী বলুন তো? আপনার কাছে যেটা সত্যি, আমার কাছে তো তা অর্ধসত্যি বা ডাহা মিথ্যেও হতে পারে। আবার আমার ‘সত্যি’ বাকি সবার কাছে রং চড়ানো পাবলিসিটি মনে হতেই পারে। তাহলে ‘সত্যি’টাই যে সর্বসম্মত ‘ultimate truth’ এটার সিদ্ধান্ত কে নেবে?

৯০-এ দশকে তখন আমি রীতিমতো বলিউডের ব্যস্ত অভিনেত্রী। বয়সও কম। তখন একটা ট্রেন্ড চালু ছিল। বয়স্ক বিবাহিত হিরো, ছবির হিরোইন-এর (যে হয়তো তার অর্ধেক বয়সের) সঙ্গে তলে তলে প্রেমপর্ব চালিয়ে যাবেন। আর অলিখিত নিয়ম ছিল, প্রকাশ্যে সেই সম্পর্ক নিয়ে কোনও মন্তব্য বা অনুভূতি প্রকাশ করতে পারবেন না সেই আনকোরা নায়িকা। যদি একান্তই তার মুখ থেকে সেই বিশেষ সম্পর্ক নিয়ে কোনও কথা বেরিয়ে পড়ে তাহলে তার সারা জীবনের খেল খতম। তিনি বুঝে ওঠার আগেই একের পর এক ছবি বেরিয়ে যাবে তার হাত থেকে, অন্য কোনও হিরো তার সঙ্গে ছবি করতে রাজি হবেন না… কার্যত এক ঘরে করে দেওয়া হবে তাকে। কিন্তু সেই প্রতিষ্ঠিত বয়স্ক হিরোটি বহাল তবিয়তে ঘুরে বেড়াবেন… এর পরের ধাপে মিডিয়া ঝাঁপিয়ে পড়বে এক্সক্লুসিভ সাক্ষাত্‍‌কারের জন্যে। বার বার মেয়েটির উপর চাপ সৃষ্টি করা হবে মুখ না খোলার জন্যে, এবং হিরোটি স্বদর্পে কালি ছিটোবেন তার প্রাক্তন হিরোইনের চরিত্রে। এমনকি পৌরুষের বড়াই করে মেরে মুখ ভেঙে দেওয়ার ধমকিও দেবেন সর্বসমক্ষে। মহান সেই হিরোর এই সব নক্কারজনক কাজকে সমর্থন করার জন্যে রয়েছেন কিছু ধামাধরা সাংবাদিকও। সেই তালিকায় রয়েছেন কিছু মহিলা সাংবাদিক যারা সেই হিরো মোহে এতটাই উন্মত্ত যে তাকে ভগবানের আসনে বসিয়ে রাখেন এবং সেই হতভাগ্য হিরোইনের যতটুকু মানসম্মান বেঁচে ছিল তাও মাটিতে মিশিয়ে দিতে উঠে পড়ে লাগেন।

তবে এখন পরিস্থিতি সামান্য হলেও বদলেছে। সৌজন্য সোশাল মিডিয়া। যদিও এই সোশাল মিডিয়ারও ভালো-খারাপ দু’দিকই রয়েছে, তবুও এখন অন্য পিঠের ‘সত্যি’ জানানোর এবং জানার একটি সফল মাধ্যম হয়ে দাঁড়িয়েছে বিভিন্ন সোশাল মিডিয়া। এই সোশাল মিডিয়ার অকুন্ঠ সাহায্য পেয়েছেন কঙ্গনা রানাওয়াত। হৃত্বিকের সঙ্গে তার টানাপড়েনের কাহিনি এখন সবার নখদর্পনে। কিন্তু অদ্ভুতভাবে, কঙ্গনার এই ব্যক্তিগত লড়াই তাকে ফেমিনিস্টদের পোস্টার গার্ল করে তুলেছে।

এখনও আমার স্পষ্ট মনে আছে। প্রথমবার আমি কঙ্গনাকে দেখেছিলাম লন্ডনের একটি পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে। সেরা নবাগতার সম্মান পেয়েছিলেন তিনি। সেই দিন আমাকে মুগ্ধ করেছিল কঙ্গনার সারল্য। মঞ্চে উঠে সোজাসাপটাভাবেই স্বীকার করে নেন, ইংরেজিতে তিনি ততটা দড় নন, তাই হিন্দিতেই কথা বলবেন। ওই এক মুহূর্তেই তিনি উপস্থিত সবার মন জয় করে নিয়েছিলেন।

আমি বিশ্বাস করি কঙ্গনা এমনই এক নারী যিনি ‘সত্যি’ বলতে বিন্দুমাত্র পিছ-পা হন। সত্যি অর্থাত্‍‌ বাস্তবে যা ঘটেছে। এবং সেই বাস্তব সত্যিকে প্রতিষ্ঠিত করার জন্যে তিনি শেষ পর্যন্ত লড়াই চালিয়ে যেতে পারেন। অন্য অনেকের মতোই আমার মত, কারও ব্যক্তিগত জীবনের খুঁটিনাটি তথ্য জনসমক্ষে আলোচনা-পর্যালোচনা করা অত্যন্ত কুরুচিকর। কিন্তু কঙ্গনা যদি মনে করেন তার সঙ্গে অন্যায় হয়েছে, তাহলে তার অধিকার আছে সেই অন্যায়ের বিরুদ্ধে লড়াই করার।

কঙ্গনাকে আমি আন্তরিক কুর্নিশ জানাই। তিনি এমনই এক সাহসিকতার কাজ করেছেন, যা করা কথা তার জায়গা অন্য কেউ হলে ভাবতেই পারতেন না। চুপচাপ সরিয়ে নিতেন নিজেকে। কিন্তু কঙ্গনা মৌচাকে ঢিল মেরেছেন। হ্যাঁ, হয়তো প্রাথমিকভাবে কিছু হুল তার গায়েও ফুটবে, কিন্তু কে বলতে পারে, হয়তো তার এই অসীম সাহস বলিউডের চেনা ছক পাল্টে দিতে সাহায্য করবে।”

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: