সর্বশেষ আপডেট : ৮ মিনিট ১ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

চরম ‘বিরক্ত’ মুস্তাফিজ

full_1277269328_1464870397খেলাধুলা ডেস্ক: এতদিন পর বাড়িতে গিয়েছেন বৃষ্টিতে একটু নাকডেকে ঘুমাবেন, তার উপায় নেই। মায়ের সাথে বসে একটু গল্প করবেন সে সুযোগটুকু পাচ্ছেন না মুস্তাফিজরাত দুইটা পর্যন্ত মানুষের আনাগোনা। কাকডাকা ভোরেও একই অবস্থা। কেউ ফ্রিজ, কেউ আবার দামী উপহার নিয়ে হাজির হচ্ছেন। কেউ ছবি তুলতে চাইছেন। ‘বালকে’র ছেড়ে দে মা কেঁদে বাঁচি অবস্থা।

মুস্তাফিজ বাড়ি পৌঁছান গতকাল রাত এগারোটার দিকে। ঘুমাতে যান তিনটার দিকে। ঘুম থেকে ওঠার পরপরই মা মাহমুদা খাতুনসহ পরিবারের সদস্য এবং প্রতিবেশীদের হাতে অনেকটা বাধ্য হয়েই মিষ্টি মুখ করতে হয়েছে তাকে। এরপরই সেই বিরক্তিকর কাজ কারবার। উঠোনে বেরিয়ে সকালের আলো দেখতে না দেখতে ক্যামেরা দেখে ভো দৌড় মারেন। এরপর আর বের হতেই চাইছিলেন না! পরে স্থানীয় তারালী ইউপি চেয়ারম্যান এনামুল হকের অনুরোধে বের হয়ে আসেন।

বের হলেও মুখে টু শব্দটি করেননি। চোখ-মুখে রাজ্যের বিরক্তি নিয়ে ‘হ্যাঁ’ অথবা ‘না’ বলে গেছেন।

এরই মাঝে জনতা ব্যাংক উজিরপুর শাখা থেকে তাকে সংবর্ধনা দিতে আসেন শাখা ব্যবস্থাপক শেখ শামীম আহম্মদসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা। কয়েক মিনিট পর ফ্রিজসহ উপহারের পসরা নিয়ে আসেন কোকাকোলা কোম্পানির কালিগঞ্জ উপজেলা রিসোর্স অফিসার হাবিবুর রহমান।

মুস্তাফিজ শুধু মুখ বুঝে দেখেছেন। আর ছবি তুলেছেন!

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: