সর্বশেষ আপডেট : ৩৪ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

প্রেম প্রস্তাব, চুম্বন-আলিঙ্গন! এবার রাজউকের ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রীকে টিসি… (ভিডিওসহ)

LOve-vdoডেইলি সিলেট ডেস্ক::
রাস্তায় প্রেমের প্রস্তাবের অভিযোগে ঢাকা কমার্স কলেজেন দুই শিক্ষার্থীকে ট্রান্সফার সার্টিফিকেট (টিসি) দেওয়ার পর এবার রাজধানীর বিখ্যাত রাজউক উত্তরা মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের এক ছাত্রীকে একই ধরনের অপরাধে টিসি দিয়েছে স্কুল কর্তৃপক্ষ। মঙ্গলবার ষষ্ঠ শ্রেণির ওই ছাত্রীকে টিসি দেওয়ার বিষয়ে নিশ্চিত করেছেন স্কুল কর্তৃপক্ষ।

জানা গেছে, স্কুলটির এক ছাত্রীকে অন্য কলেজের এক ছাত্র রাস্তায় প্রেমের প্রস্তাব দেয়। এর ভিডিও ধারণ করে অন্য শিক্ষার্থীরা। এরপর ওই ভিডিও ফেসবুকে ভাইরালে পরিণত হয়। ভিডিওটি ধারণা করা হয়েছে উত্তরা ৬ নম্বর সেক্টরের ঈসা খাঁ রোডে।

ভিডিওতে দেখা যায়, রিকশা করে আসা এক মেয়ের জন্য রাস্তায় অপেক্ষায় থাকে কয়েকজন শিক্ষার্থী। রিকশাটি কাছাকাছি আসতেই রাজউক উত্তরা মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের ইউনিফরম পরা দুজন মেয়ে নামেন এবং রিকশাভাড়া পরিশোধ করেন। এর মধ্যে একটি মেয়ে কাছে আসতেই অপেক্ষমান শিক্ষার্থীরা একটি বৃত্ত তৈরি করে। পরে শার্ট প্যান্ট পরা এক ছেলে ওই শিক্ষার্থীর সামনে হাঁটু গেড়ে একটি গোলাপ ফুল হাতে দিয়ে প্রেমের প্রস্তাব দেয়।

মেয়েটি ছেলেটির প্রস্তাবে সায় দিলে তারা পরস্পরকে জড়িয়ে ধরে। এসময় ছেলেটির সঙ্গে থাকা সঙ্গীরা উল্লাসে চিৎকার করতে থাকে।

এই ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে শুরু হয় সমালোচনা। ফেসবুক ঘেটে দেখা যায় ইতোমধ্যে অনেক শেয়ার হয়েছে এবং এ নিয়ে বেশ আলোচনা-সমালোচনা হচ্ছে।

এ বিষয়ে রাজউক কলেজের অধ্যক্ষ এম এম সালেহীন মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জানিয়েছেন, ‘ওই ছাত্রীকে শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে আজই টিসি দিয়ে দেওয়া হয়েছে। তার বাবা-মাকে ডেকে আনা হয়েছিল কলেজে।’ এ ঘটনায় তাদের কলেজের সম্মানহানী হয়েছে বলে মনে করেন তিনি।

ভিডিওটি ফেসবুকে আসার পর এবং ওই ছাত্রীকে টিসি দেওয়ার আগে কোনও তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছিল কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এটা স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে যে তারা অনৈতিক কাজ করেছে। এতে তদন্তের কিছু নেই। তাছাড়া ওই ছাত্রী নিজেও তা স্বীকার করেছে।’

কবে এই ঘটনাটি ঘটে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ছাত্রীটি আমাদেরকে জানিয়েছে- ঘটনাটি গত মার্চ মাসের।

এর আগে মে মাসের শুরুতে ঢাকা কমার্স কলেজের দুই শিক্ষার্থী একে অপরকে প্রেমের প্রস্তাবের ভিডিওটিও ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে। এটি কলেজ কর্তৃপক্ষের নজরে এলে গত ১২ মে দুজনকে বহিষ্কার এবং ৯ শিক্ষার্থীর ভর্তি বাতিল করে ঢাকা কমার্স কলেজ কর্তৃপক্ষ।

এ ব্যাপারে কলেজের অধ্যক্ষ জানিয়েছেন, শৃঙ্খলা ভঙ্গের জন্য এই ১১ শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। পরে অবশ্য ভর্তি বাতিলকৃত ৯ শিক্ষার্থীর পুনরায় ভর্তি নেওয়া হয়।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: