সর্বশেষ আপডেট : ১ মিনিট ৫৬ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ২৪ মার্চ, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ১০ চৈত্র ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

লো ব্যাটারিতঙ্ক!

full_1104458630_1464697191ডেইলি সিলেট ডেস্ক: দিন দিন বাড়ছে স্মার্টফোন ব্যবহারকারীর সংখ্যা। সেই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে সমস্যাও। বিশেষজ্ঞরা এই তালিকায় যোগ করেছেন আরেকটি নাম। আর তা হল- ‌লো ব্যাটারি অ্যাংজাইটি (‌এলবিএ)।‌ অর্থাৎ বাড়ির বাইরে থাকা অবস্থায় ফোনের ব্যাটারি ফুরিয়ে যাওয়ার আতঙ্ক।

দুই লাখ স্মার্টফোন ব্যবহারকারীর মধ্যে একটি সমীক্ষা চালিয়েছিল বৈদ্যুতিক পণ্য প্রস্তুতকারক সংস্থা এল জি। সেখানে দেখা গেছে, ৯০ শতাংশ মানুষই ফোনের ব্যাটারি ফুরানোর আগেই সেটা নিয়ে চিন্তা শুরু করে দেন। তাদের মধ্যে ২০ শতাংশ, চার্জার জোগাড়ের জন্য রীতিমতো মরিয়াও হয়ে পড়েন।

বিশ্বের ৯০টি দেশে চালানো হয়েছিল এই সমীক্ষা। এতে দেখা গেছে, সকালে বাড়ি থেকে অফিসে যাওয়ার আগে ৪২ শতাংশ মানুষ, সবার আগে দেখে নেন, তাদের ফোনে যথেষ্ঠ পরিমাণ চার্জ আছে কিনা। অফিস বা স্কুল কলেজে‌ থাকা ৩২ শতাংশ স্মার্টফোন ব্যবহারকারী, বিকেলের পর থেকেই ঘনঘন ফোনের চার্জ পরীক্ষা করে নেন।

বিশেষজ্ঞদের মতে, ‌এই অতিরিক্ত স্মার্টফোন নির্ভরতা মানসিক স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর। এতে সবচেয়ে বেশি সমস্যা হয় মনসংযোগে। এলবিএ’‌র উপসর্গ হিসেবে তিনটি লক্ষণকে চিহ্নিত করেছেন বিশেষজ্ঞরা। প্রথমত, একটি ফোনের জন্য একাধিক চার্জারের ব্যবস্থা রাখা। দ্বিতীয়ত, চার্জ শেষ হয়ে যেতে পারে, এই আশঙ্কায় কাছের লোকজনের ফোন না ধরা এবং তৃতীয়ত, অল্প পরিচিত বা অপরিচিত মানুষের কাছ থেকে চার্জার ধার করা।

সমস্যাটির গুরুত্ব যা-ই হোক, লক্ষন তিনটি ভয়াবহ।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: