সর্বশেষ আপডেট : ৯ মিনিট ২০ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

১৩ মাস পর দলীয় কার্যালয়ে খালেদা জিয়া

36নিউজ ডেস্ক ::
দীর্ঘ ১৩ মাস পর দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে গেলেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। দলের প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের ৩৫তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে রাজধানীর বিভিন্ন স্পটে খাবার বিতরণের এক পর্যায়ে নয়াপল্টনে যান তিনি। বিকাল ৫টায় কার্যালয়ে পৌঁছে তার গাড়িবহর।

সেখানে তাকে স্বাগত জানান দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রিজভী আহমেদ। গাড়ি থেকে নেমেই নেতাকর্মী পরিবেষ্টিত হয়ে দোতলার নিজ কক্ষে যান তিনি। খালেদা জিয়া নয়াপল্টনে যাবেন তাই আগে থেকেই ঝাড়া-মোছা করা হয় কার্যালয়। দেয়ালে পুরু হয়ে ওঠা নেতাকর্মীদের পোস্টার তুলে নিয়ে তিনতলার সিঁড়ির দুইপাশে রঙও করা হয়।
এ সময় নয়াপল্টনের হোটেল ভিক্টোরি থেকে তার জন্য কিছু ফলমূল ও হালকা নাস্তা আনা হয়। তিনি দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, ভাইস চেয়ারম্যান সেলিমা রহমানসহ উপস্থিত সিনিয়র নেতাদের নিয়ে নাস্তা করেন। সাধারণত কোন চা খান না খালেদা জিয়া। কিন্তু কার্যালয়ে নেতাদের কাছে হোটেল ভিক্টোরির চায়ের প্রশংসা শুনে তিনিও চা খাওয়ার আগ্রহ পোষণ করেন। পরে হোটেল ভিক্টোরি থেকে চা আনা হলে নেতাদের সঙ্গে চায়ে চুমুক দেন খালেদা জিয়া। চা খেতে খেতে তিনি উপস্থিত নেতাদের খোঁজ-খবর নেন। নাস্তার পর তিনি কার্যালয়ে কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের খোঁজ করেন। তারা এলে একে একে প্রত্যেকের ভালো-মন্দ খোঁজ খবর নেন।

তারপর কিছুক্ষণ বিশ্রাম নেন খালেদা জিয়া। সন্ধ্যা ৫টা ৫৫ মিনিটে নেতাকর্মীদের ভিড় ও মুহুর্মুহু স্লোগানের মধ্যে কার্যালয় থেকে নেমে আসেন খালেদা জিয়া। প্রথমে কার্যালয়ের নিচতলায় ড্যাব আয়োজিত রক্তদান কর্মসূচি ও ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প ঘুরে দেখেন। তারপর কার্যালয়ের সামনে স্থাপন করা ছাত্রদল, মুক্তিযোদ্ধা দল, তৃণমূল দল, জাসাস, জিনাফ ও জিয়া মঞ্চের প্যান্ডেল ঘুরে ঘুরে দুস্থদের মধ্যে খাবার, শুকনো খাবার, শাড়ি-লুঙ্গি বিতরণ করেন।

সন্ধ্যা সোয়া ৬টায় তিনি শান্তিনগর, শাহজাহানপুর এলাকার কয়েকটি স্পটে দুস্থদের মধ্যে খাবার বিতরণে অংশ নিতে নয়াপল্টন ছেড়ে যান। এদিকে খালেদা জিয়ার আগমণকে কেন্দ্র করে নয়াপল্টনে নেতাকর্মীদের ভিড় জমে ওঠে। যতক্ষণ তিনি কার্যালয়ে অবস্থান করেছেন ততক্ষণই বাইরে নেতাকর্মীরা ছিলেন স্লোগান মুখরিত।

এ সময় খালেদা জিয়ার সঙ্গে চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আহমদ আজম খান, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলালসহ বিএনপি অঙ্গদলের বেশ কয়েকজন কেন্দ্রীয় নেতা উপস্থিত ছিলেন। কার্যালয়ে গেলেও তিনি দলের দাপ্তরিক কোন কর্মকা অংশ নেননি।
উল্লেখ্য, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া সর্বশেষ নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিজ কক্ষে বসেছিলেন ২০১৫ সালের ২২শে এপ্রিল। সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী তাবিথ আউয়ালের পক্ষে প্রচারণা চালানোর সময় বাংলামোটর সিগন্যালে তার গাড়িবহরে হামলা চালায় ছাত্রলীগ। সেখানে তার নিরাপত্তার দায়িত্বরত সিএসএফের কয়েকজন সদস্য আহত হয়েছিল। পরে তিনি গাড়ি বহর ঘুরিয়ে নয়াপল্টনে যান এবং সেখানে কিছুক্ষণ অবস্থান করে দলের সিনিয়র নেতা ও ‘আদর্শ ঢাকা আন্দোলন’ এর নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেন। পহেলা বৈশাখের অনুষ্ঠান উপলক্ষে গত ১৪ই এপ্রিল তিনি নয়াপল্টনে বিএনপি আয়োজিত অনুষ্ঠানে অংশ নিলেও সেদিন কার্যালয়ে ঢুকেননি।

এর আগে ২০১৫ সালের ৫ই জানুয়ারির সমাবেশকে কেন্দ্র করে তার কক্ষটি পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করা হয়েছিল। কিন্তু ৩রা জানুয়ারি রাতে গুলশান কার্যালয়ে তাকে অবরুদ্ধ করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। পরে আর নয়াপল্টন কার্যালয়ে যেতে পারেননি তিনি। তারও আগে ২০১৩ সালের মার্চে নয়াপল্টন থেকে দলের দেড় শতাধিক নেতাকর্মীকে আটক করেছিল পুলিশ। ভাঙচুর করা হয়েছিল কার্যালয়। এরপর কার্যালয় পরিদর্শনে গিয়েছিলেন খালেদা জিয়া।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: