সর্বশেষ আপডেট : ৩ মিনিট ৬ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ভারতের আইপিএল; সবচেয়ে আলোচিত বাংলাদেশের মুস্তাফিজ

full_1907823346_1464606233খেলাধুলা ডেস্ক: গতকাল শেষ হয়েছে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে নবম আসর। আর চ্যাম্পিয়ন হওয়ার রেশ এখনো কাটেনি সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের কারোরই। ভারতের প্রিমিয়ার লিগ- সেখানে ভারতের কোনো নতুন খেলোয়াড়ের উত্থান হবে এমনটাই ছিলো স্বাভাবিক। কিন্তু সব সময় স্বাভাবিক ঘটনা ঘটে না।

এবারের আইপিএলের সেরা উদীয়মান খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছেন বাংলাদেশের সাতক্ষীরা জেলার অজপাড়ার ছেলে মুস্তাফিজ। কিন্তু এটাই তার একমাত্র পাওয়া নয়।

আইপিএলের নিলামে যখন মুস্তাফিজের নাম উঠলো। তখন কেউই তেমন গুরুত্ব দেইনি। দু’একটি দল কয়েকবার আগ্রােহ দেখালেও একটু পর আর কেউ হাত তোলেনি। যার কারণে মুস্তাফিজকে পেতে খুব বেশী কষ্ট করতে হয়নি হায়দ্রাবাদকে। তবে তাকে দলে নেয়ার পরই তাকে নিয়ে আশার কথা বলেছিলেন দলের মেন্টর সাবেক ভারতীয় ক্রিকেটার ভিভিএস লক্ষণ।

তাদের সেই আশাকে কতটা পূর্ণ করতে পেরেছেন মুস্তাফিজ তা বলার অপেক্ষা রাখে না। বাংলাদেশের ক্রিকেটকে যেসব দেশ অবহেলার চোখে দেখে প্রকাশ্যে। তারাই প্রশংসার বন্যায় ভাসিয়েছেন মুস্তাফিজকে।

ভারত-পাকিস্তানের সাবেক এবং বর্তমান ক্রিকেটাররা বেশীরভাগ ক্ষেত্রে একমত হতে না পারলেও মুস্তাফিজকে নিয়ে তারা সম্পূর্ণ একমত।

হায়দ্রাবাদের দলে মুস্তাফিজ এবং অভিজ্ঞ বোলার ট্রেন্ট বোল্ট ছিলেন একই জায়গার খেলোয়াড়। তবে আশ্চর্যে বিষয় হলো দেড় কোটি টাকার মুস্তাফিজের কারণে কোনো ম্যাচ খেলতে পারেনি ছয় কোটি টাকার বোল্ট। একটি ম্যাচে ইনজুরির কারণে মুস্তাফিজ না খেললে সুযোগ হয় বোল্টের। ম্যাচ শেষে বোল্ট স্বীকার করেছেন এই জায়গার জন্য হায়দ্রাবাদের জন্য উত্তম হলো মুস্তাফিজ।

কয়েকটি ম্যাচ খেলার পর গোটা বিশ্ব যখন তার প্রশংসায় মুখর তখন বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে ঘোষণা দেয়া হয় সংবর্ধনা দেয়া হবে মুস্তাফিজকে। দেশের ইতিহাসে প্রথমবারের মত মন্ত্রানালয়ের সামনের দেয়ালে টানানো হয় মুস্তাফিজের ছবি সম্বলিত বিশাল সরকারি পোস্টার।

যৌবনে পা দেয়া এক যুবক সদ্য ক্রিকেটে এসে যা অর্জন করেছে এর আগে কোনো ক্রিকেটার তার অর্ধেকও পেরেছে কি না তা জানা যায় না। ক্রিকেটে অসাধারণ সাফল্যের কারণে বাংলাদেশকে নতুন করে চিনেছে বিশ্ব। আবার এক মুস্তাফিজেই বাংলাদেশের পরিচিত বেড়েছে অনেক তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: