সর্বশেষ আপডেট : ৩ ঘন্টা আগে
রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

হ্যামস্ট্রিং ইনজুরি কি এবং কিভাবে হয়

full_169790315_1464430192ডেইলি সিলেট ডেস্ক: খেলোয়াড়দের অতি পরিচিত ইনজুরির নাম হ্যামস্ট্রিং ইনজুরি। ক্রিকেট-ফুটবল সহ প্রায় সকল খেলার খেলোয়াড়দের আতঙ্কের নাম এটি। গতকাল এই কারণেই হায়দ্রাবাদের হয়ে খেলতে পারেননি মুস্তাফিজুর রহমান। আবার একাধিক বার এ ইনজুরিতে পড়েছেন বাংলাদেশের ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মোর্তুজা।

কিন্তু কি এই হ্যামস্ট্রিং ইনজুরি? আর কিভাবেই এটি হয়ে থাকে?

উরুর পিছন দিকের সেমিটেনডিনোসাস, সেমিমেমব্রেনোসাস, বাইসেপস ফিমোরিস মাংসপেশীগুলোকে একত্রে হ্যামস্ট্রিং পেশী বলা হয়। ব্যাটিং, বোলিং, বা ফিল্ডিং-এ দ্রুত দৌড়ানোর সময় হঠাৎ অতিরিক্ত চাপের ফলে এই মাংসপেশীগুলো সাধ্যের অতিরিক্ত টান টান বা প্রসারিত হয়। ফলে, পেশীতে খিঁচ ধরে বা ছিঁড়ে যেতে পারে।

এক গবেষণায় দেখা গেছে, ক্রিকেটীয় ইনজুরির ১৫ শতাংশই হ্যামস্ট্রিং-জনিত। বোলার, বিশেষতঃ ফাস্ট বোলারদের মধ্যে যারা অতিরিক্ত পরিমাণে বল করে থাকেন, তাদের এ ধরণের ইনজুরি বেশী হতে দেখা যায়। ব্যাটসম্যানদের ক্ষেত্রেও ঘটে এ ইনজুরি।

সাধারণত খেলার আগে যথাযথ ওয়ার্ম আপের মাধ্যমে এ ইনজুরির প্রবণতা কমিয়ে আনা যায়। কারণ, ওয়ার্ম আপের মাধ্যমে পেশী-তন্তুর তাপমাত্রা বৃদ্ধির ফলে এর প্রসারণ ক্ষমতাও খানিকটা বৃদ্ধি পায়। ট্রেনিং সেশনে বা ম্যাচের সময় কোচ বা সংশ্লিষ্টরা প্রতিটি বোলারের বোলিংয়ের পরিমাণের রেকর্ড রাখেন অতিরিক্ত বোলিং করা থেকে বোলারকে রক্ষার জন্য।

কোন কারণে হ্যামস্ট্রিং মাংসপেশী ক্ষতিগ্রস্ত হলে প্রাথমিকভাবে বিশ্রাম, ক্ষতিগ্রস্ত স্থানে বরফ লাগানো, পা উঁচু করে রাখা, ব্যথানাশক ওষুধ খাওয়া ইত্যাদি পরামর্শ দেয়া হয়। চামড়ায় সরাসরি বরফ লাগালে তা ক্ষতির কারণ হতে পারে বলে আইস প্যাক ব্যবহারের পরামর্শ দেয়া হয়।

পরবর্তীতে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে খেলোয়াড়ের পুনর্বাসন প্রক্রিয়া চলে। বেশীর ভাগ হ্যামস্ট্রিং স্ট্রেইন ছয় সপ্তাহের ভেতর ভাল হয়ে যায়, তবে পুরোপুরি ভাল হওয়ার আগেই খেলায় ফিরলে এ ইনজুরি বার বার হওয়ার প্রবণতা দেখা যায়।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: