সর্বশেষ আপডেট : ২২ মিনিট ১৫ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

এখন পাশে স্বামীকে বসিয়ে ছবি তুলছি

imagesবিনোদন ডেস্ক :: ঘড়িতে তখন সন্ধ্যা সাড়ে সাতটা। রাজধানীর উত্তরার একটি রেস্তোরাঁর মূল ফটকে বেশ কিছু আগ্রহী মানুষের উঁকিঝুঁকি। সেখানে চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহির বিবাহ-পরবর্তী অনুষ্ঠান হচ্ছে। তাই সাধারণের মধ্যে একটু বাড়তি উত্তেজনা। রেস্তোরাঁর দরজা দিয়ে ঢুকতেই কানে এল সানাইয়ের সুর। নিচতলার খোলা ঘরটি মানুষে ঠাসা।
দুই পরিবারের সদস্যরা তো আছেনই, সঙ্গে বিভিন্ন মাধ্যমের সাংবাদিক আর ক্যামেরা। ভিড় ঠেলে এগিয়ে গেলেই দেখা যায় সোনালি জরির পাড়ের লাল শাড়িতে বসা নববধূ মাহি। পাশেই রুপালি রঙের শেরওয়ানিতে স্বামী অপু। দুজনকে ঘিরে ক্ষণে ক্ষণে জ্বলে উঠছে ক্যামেরার ফ্ল্যাশলাইট। এর ফাঁকেই নতুন বউ মাহি দিয়ে যাচ্ছেন সাংবাদিকদের নানা প্রশ্নের উত্তর।

কেমন লাগছে আপনার?
মনে হচ্ছে, আমি অন্য জগতে চলে গিয়েছি। আবার সামনের চেনা সাংবাদিক বন্ধুদের দেখে মনে হচ্ছে, যেন নতুন কোনো ছবির মহরত হচ্ছে এখানে। অনুভূতিটা যেমন অন্য রকম হওয়ার কথা, আমি তেমনটা বোধ করতে পারছি না!
সকালে বিয়ে হলো, নিজের ভেতর কোনো পরিবর্তন টের পাচ্ছেন?
হ্যাঁ, পাচ্ছি। আমি আগে একা বসে সাক্ষাত্কার দিতাম। এখন পাশে এ রকম (আঙুল দিয়ে স্বামীকে দেখিয়ে বললেন) একজনকে নিয়ে সাক্ষাত্কার দিচ্ছি। আগে কোনো ছেলের সঙ্গে ছবি তুলতে কেমন যেন লাগত! এখন পাশে স্বামীকে বসিয়ে ছবি তুলছি, সাক্ষাত্কার দিচ্ছি—এই যা পরিবর্তন। এর বাইরে কিছু বুঝে ওঠার সময় পাইনি। বিয়ের পর থেকে শুধু ফোনই ধরে যাচ্ছি। ফাঁকে ফাঁকে আত্মীয় ও বন্ধুদের নিয়ে হইহুল্লোড় চলছে। মজার ব্যাপার কি জানেন? গায়েহলুদের এক ঘণ্টা আগেও আমি একটা সিনেমা নিয়ে মিটিং করেছি।
আপনার অনেক ছেলেভক্ত এই বিয়ের খবরে কষ্ট পেয়েছেন। তাঁদের জন্য কিছু বলবেন?
আমি ভক্তদের কাছ থেকে দূরে সরে যেতে চাই না। অভিনেত্রী মাহি হিসেবে সবার মাঝে থাকতে চাই।
এর আগে যেমন ছেলে পছন্দ বলে জানিয়েছিলেন এর সঙ্গে বর কি মিলল?
অনেকটাই মিলেছে। কী করব বলেন, ভাগ্যে যা ছিল তা-ই হয়ে গেল।
অভিনয়ের ব্যাপারে বরের বাড়ি থেকে কোনো আপত্তি আছে কি?
না, একদম নেই। তবে আমি নিজ থেকে কাজ কমিয়ে দেওয়ার কথা ভাবছি। ভালো গল্প, ভালো পরিচালকের সঙ্গে বছরে দু-একটা ছবিতে কাজ করব।
অনুষ্ঠানে চলচ্চিত্রের কাউকে দেখা যাচ্ছে না কেন?
আমি তো কাউকে দাওয়াত দিইনি। এই অনুষ্ঠান শুধু দুই পরিবার ও সাংবাদিক বন্ধুদের জন্য। আমি লুকিয়ে বিয়ে করতে চাইনি। বিয়েকে আমি সম্মান করি। জুলাই মাসের শেষের দিকে বড় করে অনুষ্ঠান করব। তখন আমার সহশিল্পী ও শুভাকাঙ্ক্ষীদের দাওয়াত করব।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: