সর্বশেষ আপডেট : ৩৮ মিনিট ১৭ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

নতুন এক অনন্য উচ্চতায় শেখ হাসিনা

Hasina-G7-inner-220160525174648নিউজ ডেস্ক: বিশ্বের শীর্ষ নেতৃত্বের মাঝে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অবস্থান আরও আগে থেকেই। তবে কেবল নেতৃত্বেই নয় সাত শ’ কোটি মানুষের এই বিশ্বটির উন্নয়ন কোন পথে সে ভাবনা ও দর্শনের দিক থেকেও তিনি এখন বিশ্ব নেতাদের কাতারে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার লেখা ‘ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত বিশ্বের অন্বেষণে’ শীর্ষক বিশেষ নিবন্ধ তাই তুলে ধরেছে। যা প্রকাশিত হয়েছে এবারের জি-৭ শীর্ষ সম্মলন উপলক্ষে প্রকাশিত বিশেষ ম্যাগাজিনে। বিশ্বের সকল শীর্ষ নেতার পাশাপাশি শেখ হাসিনার নিবন্ধ স্থান পেয়েছে এই প্রকাশনায়।

বিশ্ব নেতারা ভবিষ্যত বিশ্বকে কেমন দেখতে যান, তাদের উন্নয়ন ভাবনা ও দর্শন কি সবই রয়েছে এসব নিবন্ধে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাতে লিখেছেন তার উন্নয়ন ভাবনা নিয়ে।

জি-৭ রিসার্চ গ্রুপ এই বিশেষ শু্যভেনিরটি প্রকাশ করেছে।

জাপানের প্রধানমন্ত্রী সিনঝো আবের লেখায় গুরুত্ব পেয়েছে একটি ফলপ্রসূ জি-৭ শীর্ষ সম্মেলনের জন্য করণীয় দিকগুলো। কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো লিখেছেন নাগরিকের সমতার কথা। বলেছেন, যখন প্রতিটি নাগরিকের সমান সুধিধা নিশ্চিত করা যাবে তখনই একটি দেশ এগিয়ে যাবে। জার্মানির চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মেরকেল গুরুত্ব দিয়েছেন শরণার্থী সঙ্কট ইস্যুতে। তিনি বলেছেন, একমাত্র সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টাতেই আমরা এমন বাস্তুচ্যুতির ঘটনা প্রতিরোধ করতে পারবো। ইতালির প্রেসিডেন্ট মাত্তিও রেনজি ইউরোপের জন্য সুযোগ ও প্রত্যাশার দিকগুলো তুলে ধরেছেন। ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ফ্রাঁসোয়া ওলাঁদ টেকসই উন্নত বিশ্নের জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপগুলোতে আলোকপাত করেছেন। ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন বলেছেন বন্ধু ও মিত্রদের সঙ্গে নিয়ে সামনে এগিয়ে চলার কথা। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাও গুরুত্ব দিয়েছেন সাম্যের বিশ্বের প্রতি আর বলেছেন, আমাদের অসমতার বিষয়ে উদ্বিগ্ন হতেই হবে। আর শেখ হাসিনা লিখেছেন- আমাদের এমনই একটি বিশ্ব নিশ্চিত করতে হবে যাতে কোনও ক্ষুধা ও দারিদ্রপীঁড়িত মানুষ থাকবে না।

২৬ ও ২৭ মে জাপানের ইসে-শিমা পেনিনসুলায় যে জি-৭ এর বৈঠক হতে চলেছে, তাতে হাতে হাতে পৌঁছে যাবে এই বিশেষ প্রকাশনা। যা থেকে ধীরে ধীরে গোটা বিশ্ব জানবে বিশ্ব নেতাদের উন্নয়ন ভাবনা। তারা জানতে পারবেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভাবনা ও আদর্শের কথাও।

‘জাপান, দ্য ইসে-শিমা সামিট’ শীর্ষক এই ১২২ পৃষ্ঠার বিশ্ব প্রকাশনায় জি-৭ নেতাদের নিজস্ব ভাবনার পরপরই শেখ হাসিনার নিবন্ধ স্থান পেয়েছে বিশ্ব ভাবনা ক্যাটেগরিতে। যার প্রচ্ছদেও স্থান পেয়েছে তার ছবি।

এর মধ্য দিয়ে শেখ হাসিনা কেবল নেতৃত্বেই বিশ্বনেতাদের কাতারে থাকলেন না, উন্নয়ন ভাবনা ও আদর্শেও তিনি উঠে এলেন একই উচ্চতায়।

জি-৭ এর আউটরিচ বৈঠকে অংশ নেওয়ার লক্ষ্যে ২৬ মে সকালে জাপানের উদ্দেশ্যে ঢাকা ছাড়ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেখানে উপদ্বীপ ইসে-শিমায় বিশ্বের প্রধান শক্তিশালী দেশগুলোর নেতৃত্বের সঙ্গে অংশ নেবেন তিনিও। ইসে-শিমাতে অনুষ্ঠেয় এবারের সামিটে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে স্বাস্থ্য, নারীর ক্ষমতায়ন, টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা এবং উন্নত অবকাঠামো বিনির্মাণে সহযোগিতা সংশ্লিষ্ট চারটি মৌলিক বিষয়ে আলোচনায় নেতৃত্বশীল ভূমিকা নেওয়ার অনুরোধ জানানো হয়েছে।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: