সর্বশেষ আপডেট : ১০ মিনিট ৫৭ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ২৭ মার্চ, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ চৈত্র ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

তুরস্কে যাওয়া নিয়ে তাজুল ও রুমিনের রিট খারিজ

tajul20160524124930নিউজ ডেস্ক:
এক আন্তর্জাতিক সেমিনারে যোগ দিতে তুরস্কে যাওয়ার অনুমতি না দেওয়ার অভিযোগে সুপ্রিম কোর্টের দুই আইনজীবী অ্যাডভোকেট তাজুল ইসলাম ও ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানার পৃথক দুটি রিট উত্থাপিত হয়নি মর্মে খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট। মঙ্গলবার বিকেলে হাইকোর্টের বিচারপতি জুবায়ের রহমান চৌধুরী ও খসরুজ্জামানের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

এ সময় আদালতে রিটকারীদের পক্ষে অ্যাডভোকেট এজে মোহাম্মদ আলী উপস্থিত ছিলেন। অপরদিকে রাষ্ট্রপক্ষে উপস্থিত ছিলেন, অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম, অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মুরাদ রেজা ও রিটকারী আইনজীবী অ্যাডভোকেট তাজুল ইসলাম ও ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা।

এর আগে আদালত তাদের রিট আবেদন কিছু পর্যবেক্ষণসহ নিষ্পত্তির আদেশ দিয়েছিলেন, তখন দুই আইনজীবী তাদের রিট নটপ্রেস রিজেক্টেট করতে বললে আদালত তাদের প্রার্থনা মঞ্জুর করেন। পরে রিটটি উত্থাপিত হয়নি মর্মে খারিজ করেন আদালত।

ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা বলেন, এর আগে রাজনৈতিক ব্যক্তিসহ অনেকেই বিদেশে যাওয়ার ক্ষেত্রে বাধার সম্মুখীন হয়ে আদালতে এসেছেন। তাদেরকে ক্ষেত্রে বিদেশ ভ্রমণে সরকারকে বাধা না দিতে নির্দেশ দেয়া হলেও আমাদের ক্ষেত্রে আদালত রুল না দিয়ে আবেদন নিষ্পত্তি করতে চেয়েছিলেন। তাই আমরা রিটটি নটপ্রেস রিজেক্টেট করার জন্য বলেছি।

তিনি বলেন, আজ রিট আবেদনের শুনানিতে রাষ্ট্রের প্রধান আইনজীবী অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম হাতে লেখা একটি সাদা কাগজের চিরকুট ধরিয়ে দেন। ওই চিরকূট দেখে আদালত প্রথমে প্রশ্ন তোলেন এর দ্বায়-দ্বায়িত্ব কে নিবেন, যেখানে কারো কোনো সই/স্বাক্ষর নেই। তখন অ্যাটর্নি জেনারেল ওই চিরকুটের দ্বায়িত্ব নিয়ে নেন। রুমিন প্রশ্ন তোলেন, আদালতে কোনো কাগজ উপস্থপন করা হলে তা সত্যায়িত (এফিডেভিট) থাকতে হয়। কিন্তু অ্যাটর্নি জেনারেল আশ্চর্যজনকভাবে তার দ্বায়িত্ব নিয়ে নিলেন।

তাজুল ইসলাম বলেন, আমার জানা মতে ২০০৯ সাল থেকে এই পর্যন্ত মানবতাবিরোধী অপরাধের দণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াত নেতা মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী, জামায়াতের সিনিয়র আইনজীবী ব্যারিস্টার আব্দুর রাজ্জাক এবং বিএনপি নেতা ও বেসরকারি টেলিভিশন (এনটিভির) চেয়ারম্যান মোসাদ্দেক আলী ফালুর ক্ষেত্রেও বিদেশ যাওয়ার অনুমতি দিয়ে আদেশ দেন আদালত। হাইকোর্টের রুল জারি করার পরে আপিল বিভাগেও অনুমতি দেয়া হয়েছে তার প্রমাণ রয়েছে প্রধান বিচারপতি মো. মোজাম্মেল হোসেনের আমলে।

গত ১৯ মে করা রিটে তারা বলেন, এই সফরে যেতে না পারায় তাদের অর্থনৈতিক, পেশাগত ও সুনামের ক্ষতি হয়েছে। আবেদনে তার ক্ষতিপূরণ ও ভবিষ্যতে তাদের আর বিদেশ সফরে যেন বাধা না দেয়া হয় সেই নির্দেশনা চাওয়া হয়।

রিটে স্বরাষ্ট্র সচিব, পাসপোর্ট অধিদফতরের মহাপরিদর্শক, পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি), বিমানবন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি), বিমানবন্দর ওসি স্পেশাল ব্রাঞ্চ এবং স্টেশন ও কান্ট্রি ম্যানাজার কাতার এয়ারওয়েজকে বিবাদী করা হয়।

২২ মে রোববার রিট দুটির শুনানি শেষে আজ মঙ্গলবার আদেশের জন্য দিন ধার্য রেখেছিলেন। আদালতে ওই দুই আইনজীবীর পক্ষে শুনানি করেন সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল এজে মোহাম্মদ আলী। অপরদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মুরাদ রেজা।

দুই আইনজীবীর মধ্যে ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা প্রয়াত ভাষাসৈনিক অলি আহাদের মেয়ে। আর অ্যাডভোকেট তাজুল ইসলাম আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে জামায়াতে ইসলামীর শীর্ষ নেতাদের পক্ষে মানবতাবিরোধী মামলা পরিচালনা করেছেন। তবে এখন তিনি জামায়াত নেতারদের কোনো মামলার সঙ্গে নেই বলে জানিয়েছেন তিনি নিজে।

ব্যারিস্টার রুমিন ও অ্যাডভোকেট তাজুল সাংবাদিকদের বলেন, তুরস্কে ইস্তাম্বুলে ইন্টারন্যাশনাল জুরিস্ট কাউন্সিলের আয়োজনে ১৯ থেকে ২৩ মে অনুষ্ঠিত একটি কনফারেন্স হওয়ার কথা ছিল। সে মোতাবেক তারা ভিসা সংগ্রহের পর কাতার এয়ার ওয়েজের বিমানের টিকিটও কিনেন। পরে গত ১৮ মে তুরস্কে যেতে হযরত শাহজালাল (র.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে গেলে কাতার এয়ারওয়েজের তাদের বোডিং পাস দিতে অস্বীকৃতি জানায়। এ ব্যাপারে ইমিগ্রেশন বিভাগের সঙ্গে যোগাযোগ করেও কোনো প্রতিকার পাননি তারা। তাই ওই কনফারেন্সে যেতে পারেননি দুই আইনজীবী।

এতে সংক্ষুব্ধ হয়ে দুই আইনজীবী ১৯ মে বৃহস্পতিবার হাইকোর্টে দুটি রিট দায়ের করেন।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: