সর্বশেষ আপডেট : ৩৩ মিনিট ০ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

মুসলিমদের ৪ বউ ৪০ সন্তানের জন্ম দেয় : সাক্ষী মহারাজ

shakkhi-moharajআন্তর্জাতিক ডেস্ক ::
ফের মুসলিমদের নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেছেন ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির সংসদ সদস্য সাক্ষী মহারাজ। তিনি বলেছেন, হিন্দু দম্পতিকে ৪ সন্তানের জন্ম দেয়ার আহ্বান জানালে দেশজুড়ে হৈচৈ শুরু হয়ে যায়। যদিও অন্য সম্প্রদায়ের মানুষ চার স্ত্রী এবং ৪০ সন্তান জন্ম দিলেও, কারো মুখে কথা বেরোয় না।

রোববার মথুরাতে এক অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করার পরে সাংবাদিকদের কাছে ওই মন্তব্য করেন সাক্ষী মহারাজ।

তিনি অবশ্য আগেও মুসলিমদের টার্গেট করে এ ধরণের মন্তব্য করে সংবাদের শিরোনামে এসেছেন। গত বছর এপ্রিলে তিনি বলেছিলেন, ‘বন্ধ্যাকরণ আইন সবার জন্য হলেও মুসলিমদের এখনো চার বউ এবং চল্লিশ সন্তানের ঐতিহ্য চলছে। আমি চাই এবার চার বউ এবং চল্লিশ সন্তানের পরম্পরা নিষিদ্ধ করা হোক।’

তিনি আরো বলেন, ‘জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণের জন্য আইন তৈরি করতে হবে। এজন্য যদি সংবিধান সংশোধনেরও প্রয়োজন হয় তাও করতে হবে।’

রোববার মথুরাতে সাক্ষী মহারাজ দাবি করেন, ‘রাজ্য সরকার একদিকে মন্দির অধিগ্রহণ করছে। যদিও আবার মসজিদ নির্মাণের জন্য অর্থ দিচ্ছে। এই দ্বিমুখী নীতি চলতে দেয়া হবে না।’

রাম মন্দির নির্মাণ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘যখনই অযোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণের কথা ওঠে তখনই সুপ্রিম কোর্টে মামলা বিচারাধীন রয়েছে বলে বলা হচ্ছে।’ ভগবান শ্রীরামের মন্দিরের দ্রুত নির্মাণ করা প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেন তিনি।

তিনি বলেন, দুবাইতে মন্দির নির্মাণের জন্য সেখানকার শেখ জমি এবং অর্থ দিচ্ছে, যদিও আমরা অযোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণের জন্য আদালতের দিকে তাকিয়ে রয়েছি।

কেন্দ্রীয় মোদি সরকারের দুই বছর পূর্তি উপলক্ষে সাক্ষী মহারাজ বলেন, ‘কংগ্রেস ৬০ বছর ধরে দেশ শাসন করলেও তাদের কাছে কেউ রিপোর্ট কার্ড চায়নি। যদিও মোদি সরকারের দুই বছর পূর্তিতেই বিরোধীরা রিপোর্ট কার্ডের দাবি করছে।’

সন্তান জন্ম দেয়া বহুবিবাহ প্রসঙ্গে বিবৃতিতে অবশ্য পিছিয়ে নেই শঙ্করাচার্য স্বরূপানন্দ সরস্বতীও। তিনিও গত বছর এপ্রিলে অভিন্ন দেওয়ানি বিধির সাফাই দিতে বলেন, ‘যদি হিন্দুরা ৪ সন্তানের জন্ম দেয় তাহলে মুসলিমরা ৪০ সন্তানের জন্ম দেবে। কারণ, মুসলিমদের কাছে একাধিক বিয়ে করার অধিকার রয়েছে। এর সমাধানের জন্য অভিন্ন দেওয়ানি বিধি চালু করা প্রয়োজন।’

হিন্দুত্ববাদীরা মুসলিম জনসংখ্যা বৃদ্ধির আজগুবি দাবি খাড়া করলেও দেখা যাচ্ছে, ১৯৯১ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত মুসলিম জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার ২৯ শতাংশ হলেও ২০০১-২০১১ তে দশ বছরে এই সংখ্যা কমে ২৪ শতাংশে দাঁড়িয়েছে।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: