সর্বশেষ আপডেট : ২ মিনিট ৫৩ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

সাধারণের জন্য জীবন বাজি রাখা আড়ালের হিরোরা

full_1580556309_1463841117নিউজ ডেস্ক:: দুই দিন আগে থেকে সারাদেশে ঘোষণা করা হচ্ছে ভয়াবহ ঘূর্ণঝড় রোয়ানু সম্পর্কে। উপকূল এলাকায় নেয়া হয় সব রকম প্রস্তুতি। স্থানীয় বাসিন্দাদের সরিয়ে নেয়া হয় নিরাপদ স্থানে। তবে এই বিপুল বিপদের মাঝেও একদল লোক সাগড়পাড়ের উত্তাল ঢেউয়ের সামনে দেয়াল হয়ে দাড়িয়ে থাকেন। হাজার কষ্ট অার বিপদ উপেক্ষা করে তারা চিন্তা করেন সাধারণের নিরাপত্তার কথা।

রোয়ানুর কারণে কক্সবাজারের সমুদ্র সৈকতেই ছিলো উত্তাল ঢেউ। লণ্ডভণ্ড করে দেয় পতেঙ্গার ঝিনুক মার্কেট। তারপরও একদল লোক সবসময় সেখানে উপস্থিত। ঝড় বৃষ্টি আর সাগরের গর্জন উপেক্ষা করে নিরবিচ্ছিন্ন ভাবে দায়িত্ব পালন করেন ট্যুরিস্ট পুলিশের কক্সবাজার জোন।

সেখানে দায়িত্ব পালন করা ট্যুরিস্ট পুলিশের এ এস পি রায়হান কাজেমি ট্যুরিস্ট পুলিশের ফেসবুক পেজে লিখেছেন জীবন বাজি রেখে তাদের দায়িত্ব পালনের কথা।

তিনি লিখেছেন, ”ঠিক যেই মুহূর্তে আপনি বা আপনারা হয়ত কক্সবাজারের কোন বিলাস বহুল হোটেলের সি ভিও রুম থেকে অথবা রুম থেকে অল্প কিছু সময়ের জন্য বের হয়ে সমুদ্রের কাছে গিয়ে সেলফি এবং সাইক্লোন রোয়ানুর ছবি তুলে ফেসবুক এ পোস্ট করে হাজার হাজার লাইক কামিয়ে দুঃসাহসিক সাজার চেষ্টা করছেন ঠিক সেই সময় …।।”

”আমাদের ট্যুরিস্ট পুলিশ কক্সবাজার জোনের এই টিম টি আজকে সাইক্লোন রোয়ানুর সময় নিজের জানের পরোয়া না করে সেই সকাল ৭ টা থেকে সন্ধ্যা ৭ টা পর্যন্ত টানা ১২ ঘন্টা কোনোরকম বিরতি না দিয়ে এই ঝড় বৃষ্টি দমকা বাতাস বজ্রপাত উপেক্ষা করে সমুদ্র সৈকতে ট্যুরিস্ট দের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কাজ করে গেছে। প্রত্যেকের হাত ও পা কেটে গেছে, সবাই কোনো না কোনো ভাবে দমকা বাতাসে উরে আসা ডাল এর আঘাতে আহত, টানা বার ঘন্টা পানিতে ভেজার দরুন অনেকের জ্বর চলে এসেছে, কারো হাতের ও পায়ের চামড়া পুরোপুরি উঠে গেছে কিন্তু তারপরও তারা তাদের নিজেদের কাজ ঠিক মত করে গেছে। এই সব না বলা হিরোদের ছবি আপনি কখনই কোন পেপার পত্রিকায় দেখবেন না । জানবেন না এদের এই আত্মত্যাগ এর কথা।”

”এত কিছুর পর ও আমাদের এই কাজের জন্য যদি একজন ট্যুরিস্ট এরও জীবন বাচে তবেই আমাদের পরিশ্রম সার্থক। কারণ, শুনতে খারাপ লাগলেও বলতে বাধ্য হচ্ছি এই যে সামান্য কয়টি লাইক এর জন্য আপনি যে রিস্ক টা নিচ্ছেন আল্লাহ না করুক হটাৎ চোরাবালি, রিপ কারেন্ট অথবা ঢেউ এ যদি আপনি ভেসে যান, এই চরম প্রতিকুল পরিবেশে আমাদের কোন উপায় থাকবেনা আপনাকে উদ্ধার করার।”

”ঝড় থেমে গেলে আপনার লাশ উদ্ধারের জন্য সারাদিনের ক্লান্তি কে ছুড়ে ফেলে আমাদেরকেই আবার নামতে হবে এই সি বিচে সাথে থাকবে আপনার লাশ সনাক্ত করার জন্য আপনারি মা বাবা অথবা কোন আপনজন। আমাদের সামান্য ভুল তখন তাদের চোখে বিষের মত ঠেকবে। বিশ্বাস করুন যারা আপনাকে ফেসবুকে উৎসাহ দিচ্ছে এসব করার তাদের কাউকে পাবেন না আপনি সেই সময়। আর এই মুহূর্ত গুলি যে কি পরিমাণ হৃদয় বিদারক তা জানি শুধু আমরা। কারণ, আমাদের প্রতিনিয়ত এটার মধ্য দিয়ে যেতে হয়।”

”Prevention is always better than cure. তাই তো এইসময় আমরা বারবার চেষ্টা করেছি আপনাদের কে সি বিচ থেকে দূরে সরিয়ে রাখতে। কারণ, একটি দুর্ঘটনা সারা জীবনের কান্না। আমরা অনেক সভ্য ও শিক্ষিত জাতি তো। আইন মানতে আমাদের থেকে ভালো কেউ জানেনা। তাইতো বার বার নিষেধ করা সত্তেও আপনারা বার বার ছুটে গিয়েছেন সমুদ্র সৈকতে। আমরাও বার বার হাসি মুখে আপনাদের কে ফিরিয়ে দিয়েছি। অনেকেই তর্ক করেছেন , ঝগড়া করেছেন পেছন থেকে গালাগালি করেছেন, ধৈর্য হারাইনি। আপনাদের কাছে আমার একটাই অনুরোধ আমাদের ট্যুরিস্ট পুলিশ এর এই কাজের জন্য আমাদের ধন্যবাদ না দিন খারাপ ব্যাবহার করবেন না প্লিজ। দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে একটু ভালো ব্যাবহার আমাদের এই ট্যুরিস্ট পুলিশ সদস্যরা আপনাদের কাছে পেতেই পারে । ধন্যবাদ সবাইকে।”

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: