সর্বশেষ আপডেট : ৬ মিনিট ২৬ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ঘূর্ণিঝড় রোয়ানুর সর্বশেষ অবস্থা

full_488437907_1463824688নিউজ ডেস্ক:: বাংলাদেশের উপকূলে আঘাত হেনেছে ঘূর্ণিঝড় রোয়ানু। গভীর নিম্নচাপ থেকে ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হওয়ার তিন দিন পর অনেকটা দূর্বল হয়ে বাংলাদেশের উপকূলে আঘাত হানে ঘূর্ণিঝড়টি।

>> ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে উপকূলীয় জেলাগুলোতে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যাচ্ছে, সেই সঙ্গে চলছে বৃষ্টি।

>> উপকূলীয় জেলাগুলোর নিম্নাঞ্চল স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে ৪ থেকে ৫ ফুট বেশি উচ্চতার জলোচ্ছ্বাসেপ্লাবিত হয়েছে।

>> অতি ভারি বর্ষণে চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের পাহাড়ি এলাকার কোথাও কোথাও ভূমিধসেরও শঙ্কা রয়েছে বলে আবহাওয়ার পূর্বাভাসে সতর্ক করা হয়েছে।

>> সব মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে নিরাপদ আশ্রয়ে থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আবহাওয়ার বিশেষ বুলেটিন থেকে এক নজরের জেনে নিন ঘূর্ণিঝড়ের সর্বশেষ খবর।

অবস্থান: শনিবার বেলা দেড়টার দিকে চট্টগ্রম উপকূলের সন্দ্বীপ, হাতিয়া, কুতুবদিয়া, সীতাকুণ্ডু এবং ফেনী উপকূল দিয়ে উপকূল অতিক্রম করতে শুরু করে ঘূর্ণিঝড় রোয়ানু।

শক্তি: আঘাত হানার সময় ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের ৫৪ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের সর্বোচ্চ একটানা গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ৬২ কিলোমিটার, যা দমকা বা ঝড়োহাওয়ার আকারে ৮৮ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছিল।

সময়: ঝড়ের পুরো পরিধি সাগর থেকে স্থলভাগে উঠে আসতে বিকাল পেরিয়ে যেতে পারে বলে আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে।

সংকেত: চট্টগ্রাম, মংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরকে ৭ নম্বর এবং কক্সবাজার সমুদ্র বন্দরকে ৬ নম্বর বিপদ সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

ক্ষয়ক্ষতি:

ঝড়ে গাছ ভেঙে ও ঘর বিধ্বস্ত হয়ে ছয়জনের মৃত্যুর খবর এসেছে। এর মধ্যে ভোলায় ২, চট্টগ্রামে ৩ এবং পটুয়াখালীতে ১ জনের মৃত্যু হয়েছে।
পটুয়াখালীতে রাঙ্গাবালীতে বাঁধ ভেঙে তিন শতাধিক পরিবার পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। ভোলায় বিধ্বস্ত হয়েছে বহু বাড়িঘর। সড়কে গাছ পড়ে সড়ক যোগাযোগও বিঘ্নিত হচ্ছে।

প্রভাব:

>> খারাপ আবহাওয়ার কারণে মংলা ও চট্টগ্রাম বন্দরের মালামাল খালাস বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

>> চট্টগ্রাম শাহ আমানত বিমানবন্দরে উড়োজাহাজ ওঠানামা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

>> সব ধরনের নৌ চলাচল বন্ধ ঘোষণা রেখেছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌচলাচল কর্তৃপক্ষ।

>> চট্টগ্রামের দুটি ইপিজেডের সব কারখানায় ‍ছুটি ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ।

>> ঝড়ের কারণে ঝালকাঠি ও বরগুনা জেলায় বিদ্যুৎ বন্ধ রাখা হয়েছে।

প্রস্তুতি: উপকূলীয় ১৪ জেলার ৫ লাখ মানুষকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেওয়া সাড়ে তিন হাজার আশ্রয়কেন্দ্রে। উদ্ধার ও ত্রাণ কাজের জন্য এসব জেলায় প্রস্তুত এক লাখ স্বেচ্ছাসেবী।

নাম: এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের সাগর তীরের আট দেশের আবহাওয়া দপ্তর ও বিশ্ব আবহাওয়া সংস্থার দায়িত্বপ্রাপ্ত প্যানেলের তালিকা থেকে ক্রম অনুসারে ঠিক হয়েছে এবারের ঘূর্ণিঝড়ের নাম। রোয়ানু নামটি প্রস্তাব করেছিল মালদ্বীপ। স্থানীয় ভাষায় এর অর্থ নারকেলের ছোবড়ার দড়ি।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: