সর্বশেষ আপডেট : ৪ মিনিট ১ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ধর্মকে নিয়ে কটূক্তি: শ্যামল কান্তির বিচার দাবিতে ৭২ ঘণ্টার আল্টিমেটাম হেফাজতের

142845_1নিউজ ডেস্ক:
ইসলাম ধর্মকে নিয়ে কটূক্তি করার অভিযোগে নারায়ণগঞ্জের পিয়ার সাত্তার লতিফ উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শ্যামল কান্তি ভক্তের বিচারের দাবি জানানো হয়েছে।

বিচারের জন্য ৭২ ঘণ্টার সময় বেঁধে দিয়ে বলা হয়েছে, এর মধ্যে বিচার না হলে হরতাল-অবরোধ করে দেশ অচল করে দেওয়া হবে।

শুক্রবার জুমার নামাজের পর নারায়ণগঞ্জ শহরের ডিআইটি বাণিজ্যিক এলাকায় ‘সর্বস্তরের মুসলিম জনতার’ ব্যানারে বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে এই ঘোষণা দেওয়া হয়। শ্যামল কান্তির কঠোর শাস্তির দাবি জানাতে ওই সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

হেফাজতে ইসলাম নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি ও শহরের ডিআইটি বাণিজ্যিক এলাকার রেলওয়ে জামে মসজিদের খতিব আবদুল আউয়ালের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য দেন তাহরিকে নবুয়্যতে বাংলাদেশের আমির সায়্যেদ এনায়েতপুরী আব্বাসী জৈনপুরী, হেফাজতে ইসলামের নারায়ণগঞ্জ জেলার সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদির, জেলা ওলামা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মুফতি আবুল হাশেম প্রমুখ।

সমাবেশে আবদুল আউয়াল বলেন, বাংলার জমিনে ইসলামকে কটাক্ষ করে বিভিন্নভাবে কথা বলতে বলতে নাস্তিকেরা দুঃসাহস দেখাচ্ছে। তিনি শ্যামল কান্তি ভক্তের বিচারে আগামী ৭২ ঘণ্টার সময় বেঁধে দিয়ে বলেন, এই সময়ের মধ্যে তার বিচার করা না হলে গণজমায়েত করে হরতাল-অবরোধসহ কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে। একই সঙ্গে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ করে দেশ অচল করে দেওয়া হবে।

তিনি আইনমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রীকে উদ্দেশ করে বলেন, আপনারা নাস্তিক শ্যামল কান্তির পক্ষ নিয়েছেন এবং তাকে স্বপদে বহাল করেছেন। তিনি শ্যামল কান্তিকে তার পদ থেকে বরখাস্তের জন্য সরকারের কাছে দাবি জানান।

তাহরিকে নবুয়্যতে বাংলাদেশের আমির সায়্যেদ এনায়েতপুরী আব্বাসী জৈনপুরী বলেছেন, নাস্তিক, ব্লগার, বামপন্থীরা নাস্তিক শ্যামল কান্তির পক্ষ নিয়েছেন। তিনি তাদেরও শাস্তির দাবি জানান। তিনি বামপন্থীদের উদ্দেশ করে বলেন, তোমরা সাবধান হয়ে যাও। শ্যামল কান্তির বিচার না হলে দেশ অচল করে দেওয়া হবে। তিনি হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ বিলুপ্ত করার জন্য সরকারের প্রতি দাবি জানান।

সমাবেশে স্কুলছাত্র রিফাত তাকে মারধর ও ধর্ম নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে শিক্ষক শ্যামল কান্তি ভক্তের বিচার দাবি করে।

এই বিক্ষোভ সমাবেশ উপলক্ষে নারায়ণগঞ্জ নগরের প্রধান সড়ক, বঙ্গবন্ধু সড়কের চাষাঢ়া থেকে নিতাইগঞ্জ পর্যন্ত রাস্তায় মাইক লাগানো হয়। কেব্‌ল নেটওয়ার্কের মাধ্যমে সমাবেশ সরাসরি টেলিভিশনে সম্প্রচার করা হয়।

সেলিম ওসমান বৃহস্পতিবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে দাবি করেন, শ্যামল কান্তি স্বেচ্ছায় কান ধরে ওঠবস করেছেন। তার দাবি, সেদিন তিনি ওই শিক্ষকের জীবন রক্ষা করেছেন। এই সাংসদ বলেন, ফাঁসি হয়ে গেলেও এ ঘটনায় তিনি ক্ষমা চাইবেন না।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: