সর্বশেষ আপডেট : ১ মিনিট ১ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বালাগঞ্জে নির্বাচনী মাইকের শব্দে অতিষ্ট লোকজন, বিব্রত মুসল্লিরা

images-10শামীম আহমদ, বালাগঞ্জ::
ইউপি নির্বাচনে সিলেটের বালাগঞ্জ উপজেলার ছয়টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ২৯ জন, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ৫২ জন ও সাধারন সদস্য পদে ২০৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্ধীতা করছেন। ২৮মে পঞ্চম ধাপের নির্বাচনকে সামনে রেখে ১৩ মে প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ করা হয়েছে। প্রতীক বরাদ্দের দিন থেকেই প্রার্থীদের নির্বাচনী প্রচারনার মাইকের শব্দে লোকজন অতিষ্ট হয়ে পড়েছেন। উপজেলার মধ্যে সর্বাধিক চেয়ারম্যান প্রার্থী রয়েছেন বালাগঞ্জ সদর ইউনিয়নে।

এই ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থীর সংখ্যা ৮ জন। চেয়ারম্যান প্রার্থীরা তিনটি করে মাইক ব্যবহার করছেন। ফলে হাসপাতাল, শিক্ষা প্রতিষ্টান ও মসজিদসহ ধর্মীয় উপাসনালয় গুলোতে অতিমাত্রায় শব্দ দুষনের কারনে মারাত্মক সমস্যা হচ্ছে। তাছাড়া পবিত্র সাবানের চান্দে ধর্মপ্রান মুসল্লীদের নামাজ আদায়কালে মাইকের শব্দে বিব্রত হচ্ছেন, বাড়ীতে নারী-পুরুষের ধর্ম পালনেও ব্যাঘাত ঘটছে। আযান ও নামাজের সময় নির্বাচনী প্রচারের মাইক বন্ধ করা হচ্ছেনা বলেও অভিযোগ রয়েছে। বিশেষ করে উপজেলার বিভিন্ন বাজার গুলোতে বিকেল বেলা লোকজনের সমাগম ঘটে। ফলে বাজারের ব্যবসায়ী ও সদাই পাতি কিনতে আসা লোকজনকে দুই কানের মধ্যে হাত দিয়ে চেপে ধরে ক্রয়-বিক্রয়ের কাজ সারতে হচ্ছে।

আচরনবিধি লঙ্গনের ছড়াছড়ি: মনোনয়নপত্র দাখিল ও প্রতীক বরাদ্দের ঘোষনা আসা মাত্রই প্রার্থীসহ তাদের কর্মী-সমর্থকেরা যত ধরনের আচরনবিধি লংঙ্গনের নির্দেশনা রয়েছে তার সবগুলোই লঙ্গন করেই যাচ্ছেন। প্রতীক বরাদ্দের পর থেকেই উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের একাধিক স্থানে প্রার্থীদের পক্ষের লোকজন জড়ো হয়ে মিছিল ও মটর সাইকেল দিয়ে শো-ডাউন করছেন। বিভিন্ন ইউনিয়নের একাধিক চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতীক বরাদ্দের আগ থেকেই গনসংযোগ করার সময় ‘মার্কা’ সম্বলিত পোষ্টার বিতরন করেছেন। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম গুলোতে প্রতিক সহ প্রচারনা চালিয়েছেন। তবে আচরনবিধি লংঙ্গনের ক্ষেত্রে সরকার দলীয় প্রার্থীরা এগিয়ে রয়েছেন বলে অভিযোগ উটেছে।

পচারনায় পাঞ্জাবী-পাজামা: নির্বাচনী প্রচারনাকালে প্রার্থীদের পছন্দের পোশাকের তালিকায় রয়েছে পাঞ্জাবী-পাজমা। ভোটারদের দৃষ্টি আকর্ষন করতে চেয়ারম্যান ও মেম্বার প্রার্থীরা সফেদ পাঞ্জাবী-পাজামা আর টুপি পরে ভোটারদের দ্বারে-দ্বারে গিয়ে ভোট ভিক্ষা চাইছেন আর উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন। নির্বাচনী আড্ডায় চায়ের দোকানে বসে ষাটোবর্ধ রহমত আলী বলেন-‘ফারতি হখলে যেলা পাঞ্জাবী ফিনদা শুরু খরছ্ইন, অখনতো দেখি পাঞ্জাবীর দাম বাড়িযাইব’।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: