সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বিশ্বনাথে যুবদল-সেচ্ছাসেবকদলের আহবায়ক কমিটি দিয়েই ৫ বছর পার!

14মোহাম্মদ আলী শিপন :: আহবায়ক কমিটির মেয়াদ ছিল ৩ মাস। কিন্তু প্রায় ৫ বছর পেরিয়ে যাওয়ার পরও সেই আহবায়ক কমিটি দিয়েই খুঁড়িয়ে চলছে সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলা যুবদল-সেচ্ছাসেবকদল। সম্মেলনের মাধ্যমে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের কোনো তোড়জোড় নেই আহবায়ক কমিটির নেতৃবৃন্দের। পূর্ণাঙ্গ কমিটি না থাকায় বর্তমানে বিএনপির সহযোগি সংগঠন যুবদল-সেচ্ছাসেবকদলে একধরনের স্থবিরতা বিরাজ করছে। হতাশায় আচ্ছন্ন হয়ে পড়ছেন নেতাকর্মীরা। বিএনপির ওই দুই সহযোগি সংগঠনের কমিটি ঘোষনা করেন নিখোঁজ বিএনপি নেতা এম ইলিয়াস আলী। ইলিয়াস আলী ২০১২ সালের ১৭ এপ্রিল ঢাকা থেকে নিখোঁজ হন। আজোও তাঁর কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি। ফলে উপজেলা যুবদল-সেচ্ছাসেবকদলের পূর্নাঙ্গ কমিটি গঠন করা হয়নি বলে দলীয় নেতারা জানান।

সূত্রে জানা যায়, উপজেলা যুবদলের ৭১ সদস্য বিশিষ্ট একটি আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয় ২০১১ সালের ৩০ আগষ্ট। আহমদ নূর উদ্দিনকে আহবায়ক এবং সুরমান খানকে প্রথম যুগ্ম-আহবায়ক করে কমিটি গঠন করা হয়। একই বছরের শেষের দিকে উপজেলা সেচ্ছাসেবকদলের আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়। কাওছার খানকে আহবায়ক করে ৭১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়। তবে উভয় কমিটির মেয়াদ ছিল ৩ মাস। এ সময়ের মধ্যেই সম্মেলন করে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করার দায়িত্ব ছিল আহবায়ক কমিটির। কিন্তু ৩ মাসের স্থলে প্রায় ৫ বছর পেরিয়ে যাওয়ার পরও সম্মেলনের মুখ দেখেননি উপজেলা যুবদল-সেচ্ছাসেবকদল নেতাকর্মীরা। পূর্ণাঙ্গ কমিটিও তাই ঘোষিত হয়নি।

দীর্ঘ ৫ বছরেও সম্মেলন না হওয়ায় এবং পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠিত না হওয়ায় বর্তমানে উপজেলা যুবদল-সেচ্ছাসেবকদলে স্থবিরতা বিরাজ করছে। হতাশায় ভোগছেন নেতাকর্মীরা। অনেকেই আবার ক্ষুব্দ। কারো কারো মতো হচ্ছে, এসব কমিটির দায়িত্বপ্রাপ্ত অনেক নেতা নিষিক্রয় থাকায় সম্মেলনের বিষয়টি এগুয়নি। কিন্তু দলীয় শৃঙ্খলা পরিপন্থি হবে, এজন্য কেউই এ ব্যাপারে প্রকাশ্যে মুখ খুলছেন না।

এ ব্যাপারে উপজেলা যুবদলের আহবায়ক আহমেদ নূর উদ্দিন বলেন, আমাদের প্রিয় নেতা ইলিয়াস আলী নিখোঁজের পর ২০১২ সালের ২৩ এপ্রিল বিশ্বনাথে সহিংসতার ঘটনায় মিথ্যা মামলায় যুবদলের অনেক নেতাকর্মীকে কারাবরণ করতে হয়। ফলে উপজেলা ৬টি ইউনিয়ন যুবদলের সম্মেলন সম্পন্ন করা হলে বাকি ২টি ইউনিয়নে সম্মেলন করা সম্ভব হয়নি। তবে ইউপি যুবদলের সম্মেলনে শেষে উপজেলা যুবদলের সম্মেলন করা হবে বলে তিনি জানান।

সেচ্ছাসেবকদলের আহবায়ক কাওছার খান বলেন, অতীতের যেন কোনো সময়ের চেয়ে বর্তমানে উপজেলায় সেচ্ছাসেবকদল অনেক শক্তিশালী। তবে ইউপি সেচ্ছাসেবকদলের সম্মেলন শেষে উপজেলা সেচ্ছাসেবকদলের সম্মেলন করা হবে।
নিখোঁজ ইলিয়াসপতœী তাহসিনা রুশদি লুনা বলেন, খুবই শিগগিরই ওই দুটি সংগঠনের সম্মেলন করে পূর্নাঙ্গ কমিটি ঘোষনা করা হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: