সর্বশেষ আপডেট : ৪ মিনিট ১৭ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

খুনীদের যোগ্য পাওনা বুঝিয়ে দেওয়ার অঙ্গীকার রিজওয়ানার

37নিউজ ডেস্ক :: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজী বিভাগের অধ্যাপক রেজাউল করিম সিদ্দিকীর খুনীদের বিচারের জন্য শেষ পর্যন্ত লড়াই করার অঙ্গীকার করেছেন তাঁর মেয়ে রিজওয়ানা হাসিন (২৩)। বাবার মৃত্যুতে সীমাহীন কষ্ট পেলেও রিজওয়ানা জানিয়েছেন তিনি মানসিকভাবে শক্ত আছেন এবং বিচারের মাধ্যমে বাবার খুনীদের উপযুক্ত পাওনা বুঝিয়ে দেবেন।

সিএনএনকে দেওয়া এক স্বাক্ষাৎকারে এ অঙ্গীকার করেছেন রিজওয়ানা হাসিন।

গত ২৩ এপ্রিল বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসের জন্য অপেক্ষারত অবস্থায় বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের দুই কিলোমিটার মধ্যে রেজাউল করিমকে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। ইসলামিক স্টেট এ হামলার দায় স্বীকার করে বলেছে, প্রফেসর রেজাউল করিম নাস্তিক ছিলেন। কিন্তু তাঁর পরিবার এ অভিযোগ সম্পূর্ণভাবে অস্বীকার করেছে।

প্রফেসর রেজাউল করিমের মৃত্যু এখনও তার পরিবারের কাছে এক বড় রহস্য। বিষ্মিত রিজওয়ানা বলেন, ‘কারা তাকে খুন করতে পারে? কেন তাকে খুন করা হবে?’

তার বাবাকে যে নৃসংশভাবে খুন করা হয়েছে সেদিকে ইঙ্গিত করে রিজওয়ানা বলেন, ‘কীভাবে একজন মানুষকে এভাবে খুন করা হতে পারে! মেয়ে হিসেবে বাবার এ দৃশ্য দেখে আমি আমার আবেগ ধরে রাখতে পারিনি।’

প্রফেসর রেজাউল করিম অনেক আগে থেকেই গান ভালোবাসতেন। এমনকি বাগমারা গ্রামে একটি গানের স্কুলও দিয়েছিলেন তিনি। এ গ্রামটিকে জামিয়াতুল মুজাহিদিন বাংলাদেশ (জেএমবি)’র ঘাঁটি বলে মনে করা হয়।

রিজওয়ানা বলেন, ‘বাবা গান ভালোবাসতেন। সম্প্রতি বাংলাদেশে একটি মতবাদ গড়ে উঠছে যিনি গান বা সংস্কৃতি ভালোবাসবেন, তিনি নাস্তিক।’

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে তার বাবার বিভাগেরই ছাত্রী ছিলেন রিজওয়ানা। সম্প্রতি ইংরেজী সাহিত্যে মাস্টার্স শেষ করেছেন তিনি। ক্ষোভের সাথে বলেছেন, ‘বাবা আমার মাষ্টার্সের ফলাফলটাও দেখে যেতে পারলেন না।’

রিজওয়ানার ছোটভাই রিসায়াত ইমতিয়াজ সৌরভ (২১) রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়েরই লোকপ্রসাশন বিভাগের শেষ বর্ষের ছাত্র। তার মা এ ঘটনার পর একেবারেই নির্বাক হয়ে পড়েছেন।

যে জায়গায় তাঁকে হত্যা করা হয়েছে, সেখানের দেয়ালে এখনও রক্ত ছড়িয়ে আছে। এ হত্যাকান্ডের পর সেখানে এখনও গুমোট অবস্থা বিরাজ করছে বলে দাবি করছেন সিএনএন এর সাংবাদিক।

সিএনএন’র সাথে কথা বলার সময় নিজের ও পরিবারের নিরাপত্তা নিয়েও উদ্বেবগ প্রকাশ করেছেন প্রফেসর রেজাউল করিমের মেয়ে।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশ জানিয়েছে এ হত্যাকাণ্ডে চার জেএমবি সদস্য জড়িত এবং মাসকাওয়াত হাসান সাকিব ওরফে আবদুল্লাহ নামের এক আসামি হত্যার দায় স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছেন। এ ঘটনার প্রতিবাদে রাজশাহীতে প্রায় প্রতিদিনই বিভিন্ন প্রতিবাদ সমাবেশ হচ্ছে।

সূত্র ও ছবি:সিএনএন

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: