সর্বশেষ আপডেট : ২ মিনিট ১৪ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

মুস্তাফিজের হাতে অনেক অস্ত্র রয়েছে

full_489519814_1463220476খেলাধুলা ডেস্ক: মাত্র একটি ম্যাচে খারাপ করেছেন বাংলাদেশের বিস্ময় বোলার মুস্তাফিজুর রহমান। আর তাতেই গেল গেল রব তুলেছে সমালোচকরা।

অভিষেকের পর থেকেই আলো ছড়ানো মুস্তাফিজুরকে একটি মাত্র ম্যাচ দিয়ে বিচার করা কতটা যৌক্তিক সে বিষয়ে প্রশ্ন থেকেই যায়। আইপিএলে এবারই প্রথম খেলছেন মুস্তাফিজ। প্রথম ৯ ম্যাচে উইকেট নিয়েছেন ১১টি। তবে শেষ দুই ম্যাচে উইকেট পাননি তিনি। আর তাতেই সবাই বলতে শুরু করেছেন মুস্তাফিজ রহস্য ফাঁস হয়ে গেছে।

আর কৃতিত্বটা দেয়া হচ্ছে অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক স্টিভ স্মিথকে। তিনিই নাকি মুস্তাফিজকে খেলার কৌশল শিখিয়ে গেছেন ব্যাটসম্যানদের। মুস্তাফিজের বিপক্ষে তার করা ব্যাটিংয়ের ভিডিও দেখেই নাকি এখন সবাই মোকাবেল করছেন এ কাটার মাস্টারকে।

আইপিএলের নিলাম থেকে প্রায় দেড় কোটি টাকা দিয়ে মুস্তাফিজুর রহমানকে যখন কিনল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ, তখন চোখ কুঁচকেছিল অনেকেরই। সেই নির্বাচন যে কতটা সঠিক ছিল, পরবর্তী ম্যাচগুলিতে তা বুঝিয়ে দিয়েছে কাটার মাস্টার। পরের ন’টি ম্যাচে মাত্র ২০৩ রান দিয়ে নিয়েছিলেন ১৩টি উইকেট। তার কাটারের হদিশ পাচ্ছিলেন না তাবড় ব্যাটসম্যানরা।

পুণের বিরুদ্ধে কাটারমাস্টার ৪ ওভারে দিয়েছিলেন ২৬ রান। উইকেটবিহীন সেই স্পেল থেকে বিশেষ রান না উঠলেও উইকেটও পাননি ফিজ। এমনকী পুণের ব্যাটসম্যানদের তাকে খেলতে যে বিশেষ অসুবিধা হচ্ছে, তা-ও মনে হয়নি। প্রশ্নটা আরও বড় করে সামনে এল এর পরের ম্যাচে। দিল্লির ব্যাটসম্যানরা মুস্তাফিজুরের ৪ ওভার থেকে নিলেন ৩৯ রান। ভারতের অনূর্ধ্ব উনিশের উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান ঋষভ পন্থ একাই নিলেন ২৬ রান। আর এর পরেই উঠল সেই অমোঘ প্রশ্ন— মুস্তাফিজুরের রহস্য কি তবে ফাঁস হয়ে গেল?

রহস্য ফাঁসের সম্ভাবনা আরও বাড়ল পুণে কোচ স্টিফেন ফ্লেমিংয়ের কথায়। তার দাবি, ”মুস্তাফিজকে কীভাবে খেলা যায়, সে বিষয়ে স্টিভ স্মিথ আমাদের কিছু টিপস দিয়েছিল। আমাদের ব্যাটসম্যানরা সেই টিপস মেনে চলে অনেক উপকার পেয়েছে।”

দিল্লি ম্যাচের পর ক্রিস মরিসও বলেন, ”আমরা মুস্তাফিজের বোলিং নিয়ে অনেক সময় দিয়ে গবেষণা করেছি। আর তাতেই কাজে দিয়েছে। আমরা স্মিথের ব্যাটিং স্টাইলের ভিডিও নিয়ে গবেষণা করেছি। সে যেভাবে ব্যাটিং করেছে আমরাও তাই করার চেষ্টা করেছি।”

মুস্তাফিজের প্রতিভা নিয়ে সন্দেহ নেই কারও। তার বোলিংয়ের প্রশংসা করেছেন বিশ্বের তাবড় ক্রিকেটাররা।

তবে ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা বলছেন ভিন্ন কথা, এরকম একজন বোলারের দু একটি বল ভালো খেলে রহস্য উদঘাটন সম্ভব নয়। বরং এদের কাছে রয়েছে অনেক ধরনের অস্ত্র। যা তারা একটির পর একটি কাজে লাগাতে পারে।

তাই যদি না হয় তবে আম্পায়াররা কেন তার বলে এমন বিভ্রান্ত হবেন।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: